BSS-BNhrch_cat_news-24-5
বাসস
  ০৩ অক্টোবর ২০২২, ১০:৪২

জয়পুরহাটে জমে উঠেছে শারদীয় দুর্গোৎসব

জয়পুরহাট, ৩ অক্টোবর, ২০২২ (বাসস): আজ মহাঅষ্টমী। জমে উঠেছে জেলার শারদীয় দুর্গ্যােৎসব। ঢাকের বাদ্য, উলুধ্বনি, ধূপধোঁয়ায় শঙ্খ-কাঁসার নিনাদে মন্ডপগুলো মুখর করে চলছে বাঙালি সনাতন হিন্দু ধর্মাবলম্বীদের সবচেয়ে বড় ধর্মীয় পর্ব শারদীয় দুর্গোৎসব। বুধবার প্রতিমা বিসর্জনের মধ্যদিয়ে শেষ হবে সনাতন ধর্মালম্বীদের সবচেয়ে বড় ধর্মীয় আনন্দঘন পর্ব এ দুর্গোৎসবের।   
বিভিন্ন মন্ডপ ঘুরে দেখা যায়, করোনা কারণে বিগত সময়ের চেয়ে পূজা মন্ডপ গুলোতে এবার দর্শনার্থীদের উপস্থিতি অনেক বেশি লক্ষ্য করা যায়। দুর্গোৎসব  উদযাপন উপলক্ষে প্রতিটি মন্ডপে ঢাক-ঢোলক-কাঁসর বাজিয়ে কুমারী পূজা, কলাবউ ¯œান ও আদরিণী উমার সপরিবারে তিথি বিহিত পূজা করা হয়। এ ছাড়াও  ত্রিনয়নী দেবী দুর্গার চক্ষুদান, দেবীকে আসন , বস্ত্র, নৈবেদ্য, ¯œানীয়, পুষ্পমাল্য, চন্দন, ধুপ ও দীপ দিয়ে পূজা করেন ভক্তরা।  শহরের বারিধারা মহল্লায় নবজাগ্রত সংসদ, পূর্ববাজার, েেকন্দ্রীয়  বারোয়ারী দূর্গামন্দির ও মাদারগঞ্জ দুর্গামন্দিরে  আয়োজিত দুর্গোৎসবে মানুষের  উপস্থিতি অনেক বেশি লক্ষ্য করা যায় । মন্ডপ গুলোতে দুর্গাদেবীর মহীস্বাশুর বদ করার কাহিনী  তুলে ধরেন ঠাকুররা।  আইন শৃংখলা বাহিনীর কড়া নজরদারীর মধ্যে জেলায় এবার ২ শ ৯২ টি মন্ডপে দুর্গাপূজা অনুষ্ঠিত হচ্ছে। সুষ্ঠুভাবে দুর্গোৎসব উদযাপনের জন্য সরকারি ভাবে ১৪৬ মেট্রিক টন চাল বরাদ্দ দেয়া হয়েছে। পূজা মন্ডপ গুলোতে আইনশৃংখলা বাহিনীর তৎপরতায় সন্তোষ প্রকাশ করেছেন জেলা পূজা উদযাপন পরিষদের সভাপতি এ্যাড: হৃষিকেশ সরকার। আজ সোমবার মহাঅষ্টমী, বুধবার বিজয়া দশমী পূজা অনুষ্ঠিত হবে এবং  সন্ধ্যায় প্রতিমা বিসর্জনের মধ্যদিয়ে শেষ হবে বাঙালি সনাতন হিন্দু ধর্মাবলম্বীদের সবচেয়ে বড় আবেগ-আনন্দঘন পর্ব শারদীয় দুর্গোৎসবের। জয়পুরহাটের  পুলিশ সুপার মোহাম্মদ নূরে আলম   রোববার রাতে বিভিন্ন পূজা মন্ডপ ঘুরে দেখেন। এ সময়  হিন্দু বৌদ্ধ খ্রিস্টান ঐক্য পরিষদ কেন্দ্রীয় প্রেসিডিয়াম মেম্বার ও জেলা শাখার সভাপতি এ্যাড: নৃপেন্দ্রনাথ মন্ডল পিপিসহ পূজা উদযাপন পরিষদের স্থানীয় নেতৃবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন। পুলিশ সুপার মোহাম্মদ নূরে আলম সাংবাদিকদের বলেন, বাংলাদেশের মানুষ আবহমানকাল থেকে অসাম্প্রদায়িক চেতনায় উদ্বুদ্ধ। তাই উৎসব গুলোতে সকল ধর্মের লোকজনের উপস্থিতি সার্বজনীন হয়ে ওঠে।  সুষ্ঠু ভাবে দুর্গাপূজা উদযাপনে সিসি ক্যামেরা স্থাপনসহ কড়া নিরপত্তা মূলক ব্যবস্থা গ্রহন করা হয়েছে। যানবাহন চলাচল একমূখী করা হয়েছে যাতে ভক্তরা সহজেই এক মন্ডপ থেকে আরেক মন্ডপে যেতে পারেন।   
 

  • সর্বশেষ
  • জনপ্রিয়