BSS-BNhrch_cat_news-24-5
বাসস
  ০১ অক্টোবর ২০২২, ১৪:৩৯
আপডেট  : ০১ অক্টোবর ২০২২, ১৭:১৯

পুতিন ইউক্রেনের অঞ্চলগুলো সংযুক্তি ঘোষণা দিয়েছে, কিয়েভ লড়াইয়ের প্রতিশ্রুতি নিয়েছে


মস্কো, ১ অক্টোবর, ২০২২ (বাসস ডেস্ক) : রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন তার সেনাবাহিনীর দখলে থাকা ইউক্রেনের চারটি অংশের সংযুক্তি উদযাপন উপলক্ষে শুক্রবার মস্কোতে একটি জমকালো অনুষ্ঠানের আয়োজন করেন। এদিকে কিয়েভ দ্রুত সদস্যপদের জন্য ন্যাটোর প্রতি আহবান জানিয়েছে।
কয়েক মাস ধরে বেসামরিক নাগরিকদের বিরুদ্ধে সবচেয়ে খারাপ হামলায় ইউক্রেনের দক্ষিণাঞ্চলীয় জাপোরিঝিয়ায় ৩০ জন বেসামরিক লোকের নিহত হওয়ার কয়েক ঘন্টা পরে ক্রেমলিনের এই ইভেন্টটি সোভিয়েত-পরবর্তী ইতিহাসের একটি টার্নিং পয়েন্ট।
রাশিয়ার রাজনৈতিক অভিজাতদের উদ্দেশে ভাষণ দেয়ার সময় পুতিন অবজ্ঞা প্রদর্শন করে বলেন, পশ্চিমাদের আন্তর্জাতিকভাবে নিন্দা করার চালচলন অপরিবর্তনীয়। ভাষণে তিনি ইউক্রেনকে আত্মসমর্পণের জন্য আলোচনার আহ্বান জানান।
পুতিন বলেন, ‘আমি পশ্চিমের কিয়েভ সরকার এবং তার প্রভুদের বলতে চাই: লুগানস্ক, ডোনেটস্ক, খেরসন এবং জাপোরিঝিয়াতে বসবাসকারী লোকেরা চিরকালের জন্য আমাদের নাগরিক হয়ে উঠছে।’
‘আমরা কিয়েভ সরকারকে অবিলম্বে যুদ্ধ বন্ধ, সমস্ত শত্রুতার অবসান এবং আলোচনার টেবিলে ফিরে আসার আহ্বান জানাচ্ছি।’
চুক্তি সই হওয়ার পর পরিপূর্ণ হল ‘রাশিয়া! রাশিয়া! শ্লোগানে ফেটে পড়ে।
মহামারী থেকে পুতিনকে খুব কমই সরাসরি জন সম্মুখে হাজির হতে দেখা গেছে। তিনি সংযুক্ত অঞ্চল থেকে আসা তার প্রক্সি নেতাদের সাথে হাত মিলিয়েছেন এবং তা রাষ্ট্রীয় টিভিতে একযোগে প্রচারিত হয়েছে।
ওয়াশিংটন রাশিয়ান কর্মকর্তাদের এবং দেশটির প্রতিরক্ষা শিল্পের বিরুদ্ধে ‘কঠোর’ নতুন নিষেধাজ্ঞার ঘোষণা দিয়েছে এবং সংযুক্তি সমর্থনকারী যে কোনও দেশের উপর অর্থনৈতিক নিষেধাজ্ঞা আরোপ করতে জি-৭ মিত্রদের প্রতি আহবান জানিয়েছে।
ইউক্রেনের প্রেসিডেন্ট ভলোদিমির জেলেনস্কি অবিলম্বে মার্কিন নেতৃত্বাধীন সামরিক জোট ন্যাটোকে তার দেশকে দ্রুত সদস্যপদ দেওয়ার জন্য আহ্বান জানিয়েছেন।
ইউক্রেনের নেতা জাতির উদ্দেশে ভাষণে আরো বলিষ্ঠ অবস্থান ব্যক্ত করে বলেছেন, যতদিন পুতিন ক্ষমতায় থাকবেন ততদিন রাশিয়ার সাথে কখনই আলোচনা করবেন না।
জেলেনস্কি বলেন, আমরা নতুন প্রেসিডেন্টের সঙ্গে আলোচনা করব।
মার্কিন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন মস্কোতে শুক্রবারের অনুষ্ঠানের নিন্দা করে বলেছেন, এর মাধ্যমে পুতিন শক্তি প্রদর্শনের চেষ্টা করেছেন কিন্তু পরিবর্তে দেখিয়েছেন যে ‘তিনি সংগ্রাম করছেন’ এবং কিয়েভকে অব্যাহত সমর্থনের প্রতিশ্রুতি দিয়েছেন।
ন্যাটো প্রধান জেনস স্টলটেনবার্গ সংযুক্তিটিকে ‘অবৈধ এবং বেআইনি’ বলে নিন্দা করেছেন।
 

  • সর্বশেষ
  • জনপ্রিয়