BSS-BNhrch_cat_news-24-5
বাসস
  ০১ ডিসেম্বর ২০২২, ১৪:৫৮
আপডেট  : ০১ ডিসেম্বর ২০২২, ১৭:৫৮

তার পেনাল্টি মিস দলকে তাতিয়ে দিয়েছে বললেন  মেসি

দোহা, ১ ডিসেম্বর ২০২২ (বাসস) : পোল্যান্ডকে ২-০ গোলে হারিয়ে কাতার ফুটবল বিশ^কাপের শেষ ষোলো নিশ্চিত করেছে দু’বারের চ্যাম্পিয়ন আর্জেন্টিনা। মুহুর্মুহু আক্রমনে পোল্যান্ডকে কোনঠাস করে ফেললেও লিওনেল মেসির ভুলে ম্যাচের প্রথমার্ধে গোল পায়নি আর্জেন্টিনা। ৩৯ মিনিটে পাওয়া পেনাল্টি থেকে গোল করতে পারেননি মেসি। তবে  পেনাল্টি মিসেই দল আরও বেশি জেগেছে উঠেছে বলে মনে করছেন  মেসি।
ম্যাচ শেষে মেসি বলেণ, আমার পেনাল্টি মিসের পর শক্তিশালী হয়ে উঠে দল। প্রথম গোল পাবার পর আমরা যেভাবে চেয়েছি সেভাবেই হয়েছে।
গ্রুপ পর্বে নিজেদের প্রথম ম্যাচে পুঁচকে সৌদি আরবের কাছে ২-১ গোলে হেরে খাদের কিনারায় পড়ে যায় আর্জেন্টিনা। গ্রুপ পর্ব টপকে যাবার পথ কঠিন হয়ে পড়ে তাদের। দ্বিতীয় ম্যাচে মেক্সিকোকে ও শেষ ম্যাচে পোল্যান্ডকে একই স্কোরলাইন ২-০ ব্যবধানে হারিয়ে শেষ ষোলো নিশ্চিত করে আর্জেন্টিনা।
শেষ ষোলোতে উঠতে পোল্যান্ডের বিপক্ষে জয়ই সহজ সমীকরন ছিলো আর্জেন্টিনার সামনে। ড্র হলে পয়েন্ট টেবিলের হিসাব-নিকাশে বসতে হতো তাদের।
এমন অবস্থায় ম্যাচের শুরু থেকেই পোল্যান্ডকে আক্রমনের পর আক্রমনে চাপে ফেলে দেয় আর্জেন্টিনা। ভাগ্য সাথে না থাকায় গোলের দেখা পাচ্ছিলো না। ৩৯ মিনিটে মেসিকে ফাউল করায় আর্জেন্টিনাকে পেনাল্টি দেন রেফারি। পেনাল্টি থেকে গোল করতে ব্যর্থ হন মেসি। হতাশা ভর করে মেসির মুখে। ফিরে আসে পুরনো দুঃস্মৃতি। রাশিয়ায় ২০১৮  বিশ্বকাপে আর্জেন্টিনার প্রথম ম্যাচে আইসল্যান্ডের বিপক্ষে পেনাল্টি মিস করেছিলেন মেসি। মেসির পেনাল্টি মিসে ঐ ম্যাচ ১-১ গোলে ড্র করেছিলো আর্জেন্টিনা। তারপরও গ্রুপ পর্বের বাঁধা টপকে গিয়েছিলো তারা।
এবারও পেনাল্টি মিসের পর চ্যালেঞ্জিং ম্যাচে জয় নিয়ে শেষ ষোলো নিশ্চিত করে আর্জেন্টিনা। মেসির মতে, তার পেনাল্টি মিসে দল   গোলের জন্য আরও বেশি উদগ্রীব হয়ে উঠে।
মেসি বলেন, ‘পেনাল্টি মিস করায় আমি রেগে ছিলাম। আমার ঐ ভুলের পর দল আরও বেশি শক্তিশালী হয়ে উঠে।’
তিনি আরও বলেন, ‘আমি জানতাম, প্রথম গোল হয়ে গেলে খেলার চিত্র বদলে যাবে। আগের ম্যাচের জয় আমাদের শান্তি ও স্বস্তি দিয়েছে। আমরা জয়ের লক্ষ্য নিয়েই মাঠে নেমেছিলাম।’
প্রথমার্ধে গোল না পেলেও, দ্বিতীয়ার্ধের দুই গোলে ম্যাচ জিতে মাঠ ছাড়ে আর্জেন্টিনা। গোল দু’টি করেন দুই তরুণ ফুটবলার মিডফিল্ডার এ্যালেক্সিস ম্যাক এ্যালিস্টার ও স্ট্রাইকার জুলিয়ান আলভারেজ। দলের তরুণদের প্রশংসা করতেও ভুল করেননি মেসি। তিনি বলেন, ‘শুরু থেকেই বলে আসছি যারা দলে আসছে তারা ভালোভাবে জানে কার কি করতে হবে। সকলেই প্রস্তুত হয়ে দলে এসেছে। এটিই এই দলটির শক্তির জায়গা। ঐক্যবদ্ধ থাকা ও দলের প্রয়োজনে নিজেকে উজার করে দেয়া।’
শেষ ষোলোতে আর্জেন্টিনার প্রতিপক্ষ অস্ট্রেলিয়া। ঐ ম্যাচ নিয়ে সতর্ক মেসি। তিনি বলেন, ‘আমাদের শান্ত থাকতে হবে এবং ম্যাচ বাই ম্যাচ এগিয়ে যেতে হবে। এখন আরেকটি বিশ্বকাপ শুরু হলো আমাদের। আশা করি আমরা আজকে যেভাবে খেলেছি, চালিয়ে যেতে পারবো।’
তিনি আরো বলেন,‘অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে ম্যাচটি বেশ কঠিন হবে। যেকেউ যে কোন দলকে হারিয়ে দিতে পারে। সবাই এ পর্যায়ে সমান। অস্ট্রেলিয়া ম্যাচের জন্য আমাদের ভালো প্রস্তুতি নিতে হবে। যেমনটা আমরা সবসময় নিয়ে থাকি।’
নক-আউটপর্বেও আর্জেন্টিনার প্রতি ভক্তদের আস্থা রাখার অনুরোধ জানিয়েছেন মেসি। যেমনটা সৌদি আরবের সাথে হারের পর বলেছিলেন তিনি, ‘আমরা হার দিয়ে শুরুর পর যা বলেছিলাম ভক্তদের সেই একই কথা বলছি। আমাদের প্রতি আস্থা রাখতে। আমরা শান্ত আছি। দল এভাবেই খেলবে এবং আশাকরি আজকের খেলাটা ধরে রাখতে পারবো।’

  • সর্বশেষ
  • জনপ্রিয়