BSS-BNhrch_cat_news-24-5
বাসস
  ২৮ নভেম্বর ২০২২, ১৪:৪৩

বিশ্বকাপ-প্রিভিউ: জয় ভিন্ন অন্য কিছুই চিন্তা করছে না ইকুয়েডর-সেনেগাল

দোহা, ২৮ নভেম্বর, ২০২২ (বাসস) : আগামীকাল গ্রপের শেষ ম্যাচে খালিফা ইন্টারন্যাশনাল স্টেডিয়ামে সেনেগালের মুখোমুখি হবে ইকুয়েডর। গ্রুপ-এ’র গুরুত্বপূর্ণ এই ম্যাচটিতে জিততে পারলে উভয় দলেরই নক আউট পর্বে খেলা নিশ্চিত হয়ে যাবে।  বাংলাদেশ সময় রাত ৯টায় শুরু হবে ম্যাচটি। 
ইতোমধ্যেই দারুণ ছন্দে থাকা লা ট্রাইরা বিশ্বকাপে সকলের নজড় কেড়েছে। কাতারের বিরুদ্ধে জয় দিয়ে ম্যাচ শুরুর পর দ্বিতীয় ম্যাচে নেদারল্যান্ডের সাথে ১-১ গোলে ড্র করে দুই ম্যাচে ৪ পয়েণ্ট নিয়ে ইকুয়েডর এখন গ্রুপের দ্বিতীয় স্থানে রয়েছে। অন্যদিকে নেদারল্যান্ডের সাথে পরাজিত হলেও স্বাগতিক কাতারকে বিদায় করে দিয়ে সেনেগালও নক আউট পর্বে খেলার দৌঁড়ে টিকে আছে। 
ইকুয়েডরের আর্জেন্টাইন কোচ গুস্তাভো আলফারো ইতোমধ্যেই তার ট্যাকটিকাল দক্ষতা দিয়ে সারা বিশে^র প্রশংসা কুড়িয়েছেন। আক্রমনভাগের সাথে রক্ষনের একটি দারুন সমন্বয়ের মাধ্যমে তিনি ইকুয়েডরকে গোছানো ফুটবল খেলা রপ্ত করিয়েছেন। প্রথম দিন কাতারের বিপক্ষে এনার ভ্যালেন্সিয়া দুই গোলে ইকুয়েডর ২-০ ব্যবধানে জয়ী হয়েছিল। দ্বিতীয় ম্যাচে নেদারল্যান্ডের বিপক্ষেও গোল পেয়েছেন ভ্যালেন্সিয়া। ৪৯ মিনিটে তার দেয়া গোলেই ইকুয়েডর সমতা ফেরায়। ফ্রান্সের কিলিয়ান এমবাপ্পের সাথে এখন ভ্যালেন্সিয়া তিন গোল দিয়ে সর্বাধিক গোলদাতার তালিকায় শীর্ষে রয়েছেন। এখন দেখার অপেক্ষা সেনেগালের কৌশলী রক্ষনভাগকে ভেঙ্গে তিনি কতটা নিজেকে প্রমান করতে পারেন। 
তিন পয়েন্ট অর্জন করতে পারলে নক আউট পর্ব নিশ্চিত হবে ইকুয়েডরের, একইসাথে নেদারল্যান্ডকে টপকে গ্রুপের শীর্ষ দল হবারও সুযোগ রয়েছে। 
গ্রুপ-এ থেকে পরের রাউন্ডে যাবার সুযোগ সেনেগালেরও রয়েছে। কিন্তু সেজন্য জয় ভিন্ন বিকল্প নেই। কাতারকে ৩-১ গোলে উড়িয়ে দিয়ে সেনেগাল রয়েছে আত্মবিশ্বাসের তুঙ্গে। আল থুমামা স্টেডিয়ামে আগের ম্যাচে বুলায়ে ডিয়া, ফামারা ডিয়েহিউ ও বাম্বা ডিয়েংয়ে গোল করেছেন। অবশ্যই এই জয়ের পর তাদেরও নক আউট পর্বে যাবার সব সুযোগই রয়েছে। 
যদিও আরো একবার দলের সুপারস্টার সাদিও মানের অনুপস্থিতি দারুনভাবে অনুভূত হবে সেনেগাল শিবিরে। ইনজুরির কারনে বিশ^কাপ থেকে ছিটকে পড়া মানের জন্য তো অবশ্যই পুরো সেনেগালের জন্যই তা ছিল বড় দু:সংবাদ। কোচ আলিউ সিজের আশা মানের অনুপস্থিতিতে আরো একবার ডিয়া, ডিয়েহিউরা দলের হাল ধরবেন। ইকুয়েডরের সাথে ড্র করলেও বিশ^কাপ স্বপ্ন শেষ হয়ে যাবে সেনেগালের। 
এই ম্যাচের জন্য শক্তিশালী দল নিয়েই মাঠে নামকে ইকুয়েডর। নেদারল্যান্ডের সাথে ইনজুরিতে পড়ায় দলের সর্বোচ্চ গোলদাতা ভ্যালেন্সিয়ার খেলা নিয়ে শঙ্কা রয়েছে। শেষ পর্যন্ত ভ্যালেন্সিয়া খেলতে না পারলে ইকুয়েডরকে বিকল্প চিন্তা করতে হবে। এই মুহূর্তে ব্রাইটনের ফরোয়ার্ড জেরেমি সারমিয়েতো কিংবা কেভিন রডরিগুয়েজই তার স্থানে খেলার জন্য প্রস্তুত রয়েছেন। 
অন্যদিকে সেনেগাল দলে কোন ইনজুরি শঙ্কা নেই। পুরো ফিট দল নিয়েই ইকুয়েডরকে মোকাবেলা করতে তারা প্রস্তুতি। সেন্ট্রাল ডিফেন্সে কালিদু কুলিবালি ও আব্দু ডিয়ালো রয়েছেন। আক্রমনভাগে বুলায়ে ডিয়া ও ফামারা ডিয়েহিউকে বল যোগান দেবার জন্য মধ্যমাঠে ইসমাইলা সার ও ক্রেপিন ডিয়াট্টা ইতোমধ্যেই নিজেদের প্রমান করেছেন।

  • সর্বশেষ
  • জনপ্রিয়