BSS-BNhrch_cat_news-24-5
বাসস
  ০৬ অক্টোবর ২০২২, ১৯:২৫
আপডেট  : ০৬ অক্টোবর ২০২২, ১৯:৩১

জয়ের চেয়ে, প্রক্রিয়ায় স্থির থাকার লক্ষ্য নিয়ে ত্রিদেশীয় সিরিজে পাকিস্তানের বিপক্ষে মাঠে নামবে বাংলাদেশ

ক্রাইস্টচার্চ, ৬ অক্টোবর, ২০২২ (বাসস) : স্বাগতিক নিউজিল্যান্ডসহ ত্রিদেশীয় সিরিজের উদ্বোধনী ম্যাচে বাল পাকিস্তানের বিপক্ষে মাঠে নামবে বাংলাদেশ ক্রিকেট দল।  এ ম্যাচে  ফলাফল যাই হোক না  কেন  নির্দিস্ট  সিস্টেম বা প্রক্রিয়াতে স্থির থাকার লক্ষ্যই মূল উদ্দেশ্যে টাইগারদের।  আগামীকাল ক্রাইস্টচার্চের হ্যাগলি ওভালে বাংলাদেশ-পাকিস্তানের মধ্যকার ম্যাচটি শুরু হবে বাংলাদেশ সময় সকাল ৮টায়।
সহ-অধিনায়ক নুরুল হাসান সোহানের মতে, টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের আগে দল গঠনের জন্য ফলাফলের পরিবর্তে প্রক্রিয়াই গুরুত্বপূর্ণ।
টুর্নামেন্টে উদ্বোধনী ম্যাচের আগে সোহান বলেন, ‘আমি মনে করি, আমাদের ফলাফল নিয়ে চিন্তা করা উচিত নয়। আমাদের জন্য সবচেয়ে বেশি দরকার নির্দিস্ট প্রক্রিয়া অনুসরণ করা ।’
তিনি আরও বলেন, ‘আমরা যদি সততার সাথে কাজ করি এবং একটি দল হিসাবে খেলি এবং দলকে ভালো অবস্থায় রাখতে পারি  তবে সেটিই হবে আমাদের জন্য ভালো দিক  । ব্যক্তিগত পারফরমেন্সে মনোযোগ না দিয়ে আমাদের খেলতে হবে এবং পরিস্থিতি অনুযায়ী ভূমিকা পালন করতে হবে। দলের ১১ জন খেলোয়াড়ই এক সাথে পারফর্ম করবে না। আমরা এই দিকগুলোতেই ফোকাস করছি।’
টুর্নামেন্টের উদ্বোধনী ম্যাচের ২৪ ঘন্টারও কম সময় আগে আজ দলের সাথে যোগ দিচ্ছেন  নিয়মিত অধিনায়ক সাকিব আল হাসান। ট্রানজিট ভিসা সংক্রান্ত জটিলতার কারণে দু’দিন দেরি হয়েছে সাকিবের।
এশিয়া কাপের পর ক্যারিবিয়ান প্রিমিয়ার লিগে (সিপিএল) খেলার কারণে সংযুক্ত আরব আমিরাতের বিপক্ষে দুই ম্যাচের টি-টোয়েন্টি সিরিজে খেলতে পারেননি সাকিব। সাকিব না থাকার পরও ২-০ ব্যবধানে সিরিজ জিতে বাংলাদেশ।
তাই টিম ম্যানেজমেন্টের মতে- সিরিজটি ২-০ ব্যবধানে জিততে পারায় দলের মধ্যে জয়ের সংস্কৃতি তৈরি হয়েছে।
এই ফরম্যাটে ধারাবাহিকভাবে হারের মধ্যে থাকা বাংলাদেশ দলের ২-০ ব্যবধানে  আরব আমিরাতের বিপক্ষে সিরিজ জয়  ত্রিদেশীয় সিরিজে বাংলাদেশকে বাড়তি আত্মবিশ^াস দিবে মনে করছে টিম ম্যানেজমেন্ট। যা আসন্ন টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের প্রস্তুতির মঞ্চ হিসেবে দেখা হচ্ছে।
এখন পর্যন্ত পাকিস্তানের বিপক্ষে ১৫টি ম্যাচ খেলে মাত্র দু’টিতে জিতেছে বাংলাদেশ। আর হেরেছে ১৩টিতে। গত বছর মিরপুরে টি-টোয়েন্টি সিরিজে বাংলাদেশকে ৩-০ ব্যবধানে হোয়াইটওয়াশ করেছিলো সর্বশেষ এশিয়া কাপের রানার্স-আপ পাকিস্তান। সাম্প্রতিক পারফরমেন্স বিবেচনায় টাইগারদের চেয়ে পরিস্কারভাবে ফেভারিট পাকিস্তান।
টি-টোয়েন্টি বিশ^কাপের জন্য এই সিরিজ থেকে ইতিবাচক অর্জনের দিক তাকিয়ে সোহান। তিনি বলেন, ‘অস্ট্রেলিয়া যাবার আগে এই কন্ডিশনে আমরা বেশ কয়েকটি ম্যাচ খেলবো। নিউজিল্যান্ড এবং পাকিস্তানের মতো দলের বিপক্ষে এই ম্যাচগুলো আমাদের জন্য সত্যিই ভাল হবে। কারণ এগুলো বিশ্বকাপে ভালো করতে আমাদের উৎসাহি করবে।’
তিনি আরও বলেন, ‘আমরা যদি এই সিরিজ থেকে ইতিবাচক কিছু নিতে পারি, তবে বিশ্বকাপে আমরা ভালো কিছু আশা করতে পারি।’
সব মিলিয়ে ১৩৫টি টি-টোয়েন্টি খেলেছে বাংলাদেশ। এরমধ্যে ৪৭টি ম্যাচে জয় ও ৮৫টিতে হেরেছে টাইগাররা। বাকি তিনটি ম্যাচ পরিত্যক্ত হয়।
যদিও এই ফরম্যাটে বাংলাদেশের চেয়ে অনেক এগিয়ে পাকিস্তান। ব্যাট হাতে দারুন ফর্মে রয়েছে বাবর আজম এবং মোহাম্মদ রিজওয়ান। তারপরও সম্প্রতি টি-টোয়েন্টিতে সাফল্য নেই পাকিস্তানের। এশিয়া কাপের ফাইনালে শ্রীলংকার কাছে হারের পর ঘরের মাঠে সাত ম্যাচের টি-টোয়েন্টি সিরিজ ইংল্যান্ডের কাছে ৪-৩ ব্যবধানে হারে পাকিস্তান। তাই বিশ্বকাপের আগে জয়ের ধারায় থাকতে মরিয়া পাকিস্তানও।
বাংলাদেশ দল : সাকিব আল হাসান (অধিনায়ক), নুরুল হাসান (উইকেটরক্ষক), নাসুম আহমেদ, তাসকিন আহমেদ, ইয়াসির আলী, লিটন দাস (উইকেটরক্ষক), মেহেদি হাসান মিরাজ, আফিফ হোসেন, এবাদত হোসেন, মোসাদ্দেক হোসেন, হাসান মাহমুদ, মুস্তাফিজুর রহমান, সাব্বির রহমান, মোহাম্মদ সাইফুদ্দিন ও নাজমুল হোসেন শান্ত।
পাকিস্তান দল : বাবর আজম (অধিনায়কক), শাদাব খান, শাহিন শাহ আফ্রিদি, ইফতেখার আহমেদ, আসিফ আলি, হায়দার আলী, মোহাম্মদ হাসনাইন, শান মাসুদ, মোহাম্মদ নাওয়াজ, উসমান কাদির, হারিস রউফ, মোহাম্মদ রিজওয়ান (উইকেটরক্ষক), খুশদিল শাহ, নাসিম শাহ, মোহাম্মদ ওয়াসিম।

 

  • সর্বশেষ
  • জনপ্রিয়