BSS-BNhrch_cat_news-24-5
বাসস
  ২৩ সেপ্টেম্বর ২০২২, ১৩:০৩

বাবর-রিজওয়ানের তান্ডবে লন্ডভন্ড ইংল্যান্ড

করাচি, ২৩ সেপ্টেম্বর ২০২২ (বাসস) : সফরকারী ইংল্যান্ডকে নিয়ে ছেলেখেলা করলো  ওপেনার হিসেবে খেলতে নামা পাকিস্তান অধিনায়ক বাবর আজম ও মোহাম্মদ রিজওয়ান। বাবরের  সেঞ্চুরি ও মোহাম্মদ রিজওয়ানের ব্যাটিং তান্ডবে সিরিজের দ্বিতীয় টি-টোয়েন্টিতে সোজা কথায় ইংল্যান্ডকে উড়িয়ে দিয়ে নতুন রেকর্ডের জন্ম দিয়েছে  পাকিস্তান।
গতরাতে অনুষ্ঠিত ম্যাচে ইংল্যান্ডের ছুঁেড় দেয়া ২০০ রানের লক্ষ্যে খেলতে নেমে বাবর-রিজওয়ান   অন্য কোন ব্যাটারকে মানে নামার সুযোগ দেননি। টি-টোয়েন্টি ক্রিকেটের  ইতিহাসে সর্বোচ্চ  রান তাড়া করে  ১০ উইকেটের এই রেকর্ড জয়ে সাত ম্যাচের টি-টোয়েন্টি সিরিজে ১-১ সমতা আনলো পাকিস্তান। 
সিরিজের প্রথম টি-টোয়েন্টি ৬ উইকেটে জিতেছিলো ইংল্যান্ড। বাবর ৬৬ বলে ১১০ ও রিজওয়ান ৫১ বলে ৮৮ রানে অপরাজিত থাকেন।
করাচিতে টস জিতে প্রথমে ব্যাটিং বেছে নেয় ইংল্যান্ড। উদ্বোধনী জুটিতে ৩১ বলে ৪২ রান তুলেন ইংল্যান্ডের দুই ওপেনার ফিল সল্ট ও অ্যালেক্স হেলস। সল্ট ৩০ ও হেলস ২৬ রান করে আউট হন।
তিন নম্বরে নামা ডেভিড মালান খালি হাতে ফিরলেও  মিডল-অর্ডারে ব্যাট হাতে ঝড় তুলেন বেন ডাকেট-হ্যারি ব্রুক ও অধিনায়ক মঈন আলি। ডাকেট ২২ বলে ৪৩, ব্রুক ১৯ বলে ৩১ ও মঈন ২৩ বলে অপরাজিত ৫৫ রান করেন। ৪টি করে চার-ছক্কা মারেন মঈন। ফলে ২০ ওভারে ৫ উইকেটে ১৯৯ রানের বড় সংগ্রহ পায় ইংল্যান্ড। পাকিস্তানের শাহনাওয়াজ দাহানি-হারিস রউফ ২টি করে উইকেট নেন।
 জবাবে পাকিস্তান যা করেছে সবই অবিশ্বাস্য। ২০০ রানের টার্গেটের শুরু থেকেই ঝড়  বইয়ে দিয়েছেন  বাবর-রিজওয়ান। পাওয়ার প্লেতেই ৫৯ রান যোগ করেন তারা। অবশ্য দলীয় ৪৬ রানে ভাঙ্গতে পারতো এই জুটি। ২৩ রানে থাকা রিজওয়ানের ক্যাচ ফেলেন হেলস।
জীবন পেয়ে ১১তম ওভারে ৩০ বলে টি-টোয়েন্টি ক্যারিয়ারের ১৮তম হাফ-সেঞ্চুরি করেন রিজওয়ান। ১২তম ওভারে পাকিস্তানের রান তিন অংকে পা রাখে। আর ঐ ওভারেই ৩৯ বলে টি-টোয়েন্টিতে ২৭তম হাফ-সেঞ্চুরির দেখা পান বাবর।
১৫ ওভার শেষে দেড়শতে পৌঁছায় পাকিস্তানের রান। শেষ ৩০ বলে ৪৯ রান দরকার পড়ে পাকিস্তানের। ১৮তম ওভারের পঞ্চম বলে ৮২ ম্যাচের টি-টোয়েন্টি ক্যারিয়ারে দ্বিতীয় সেঞ্চুরির দেখা পান বাবর। ৬২ বল খেলে ৯টি চার ও ৫টি ছক্কা মারেন বাবর। এর আগে ২০২১ সালে সেঞ্চুরিয়নে দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষে ক্যারিয়ারের প্রথম সেঞ্চুরি তুলে ১২২ রানের ইনিংস খেলেছিলেন বাবর।
বাবরের সেঞ্চুরির পর ইনিংসের  শেষ ওভারের তৃতীয় বলেই জয়ের বন্দরে পৌঁছে যায় স্বাগতিক  পাকিস্তান। ৬৬ বলে অপরাজিত ১১০ রানের নান্দনিক ইনিংসে  ১১টি চার ও ৫টি ছক্কা মারেন  বাবার। অন্যপ্রান্তে ৫টি চার ও ৪টি ছক্কায় ৫১ বলে  ৮৮ রানে  অপরাজিত থাকেন   দু’বার জীবন পাওয়া রিজওয়ান। ম্যাচ সেরা হয়েছেন বাবর।
আজই সিরিজের তৃতীয় টি-টোয়েন্টিতে আবারও মুখোমুখি হবে পাকিস্তান ও ইংল্যান্ড।
 

  • সর্বশেষ
  • জনপ্রিয়
বেটা ভার্সন