BSS-BNhrch_cat_news-24-5
বাসস
  ২৫ অক্টোবর ২০২১, ২০:১৮

ঔপনিবেশিক আমলের ফৌজদারী কার্যবিধি যুগোপযোগী হচ্ছে

ঢাকা, ২৫ অক্টোবর, ২০২১ (বাসস) : আধুনিকায়ন, যুগোপযোগী ও বাংলা ভাষায় প্রণয়ন করা হচ্ছে ১৮৯৮ সালের ফৌজদারী কার্যবিধি।
বিষয়টি নিয়ে একটি কমিটি গঠন করা হয়েছে। আইন, বিচার ও সংসদ বিষয়ক মন্ত্রী আনিসুল হক আজ ফৌজদারী কার্যবিধির প্রয়োজনীয় সংশোধন, সংযোজন, পরিমার্জন, প্রয়োজনীয় সংস্কার ও গবেষণাপূর্বক যুগোপযোগী, আধুনিকায়ন ও বাংলা ভাষায় প্রণয়নে পরীক্ষা-নিরীক্ষার জন্য একটি কমিটি গঠন করে দিয়েছেন। 
লেজিসলেটিভ ও সংসদ বিষয়ক বিভাগ থেকে এ কমিটি গঠনের আদেশ দেয়া হয়েছে। 
গত ১৯ অক্টোবর অনুষ্ঠিত মন্ত্রিসভার বৈঠকে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ফৌজদারী কার্যবিধির প্রয়োজনীয় সংশোধন, সংযোজন, পরিমার্জন এবং এতদসংক্রান্ত সংস্কার ও গবেষণাপূর্বক তা যুগোপযোগী, আধুনিকায়ন ও বাংলা ভাষায় প্রণয়নের জন্য আইন, বিচার ও সংসদ বিষয়ক মন্ত্রী আনিসুল হককে নির্দেশনা প্রদান করেন। 
এর পরিপ্রেক্ষিতে আইন, বিচার ও সংসদ বিষয়ক মন্ত্রী আনিসুল হক আজ লেজিসলেটিভ ও সংসদ বিষয়ক বিভাগের সচিব  মো. মইনুল কবিরকে চেয়ারপার্সন এবং আইন ও বিচার বিভাগের সিচিব মো. গোলাম সারওয়ারকে কো-চেয়ারপার্সন করে নয় সদস্য বিশিষ্ট এই কমিটি গঠন করে দেন। 
কমিটির অন্য সদস্যরা হলেন- অতিরিক্ত সচিব হাফিজ আহমেদ চৌধুরী, যুগ্মসচিব বিকাশ কুমার সাহা ও কাজী আরিফুজ্জামান, উপসচিব শেখ গোলাম মাহবুব, যুগ্মসচিব (চলতি দায়িত্ব) মোহাম্মদ আসাদুজ্জামান নূর, উপসচিব গাজী কালিমুল্লাহ ও যুগ্মসচিব (চলতি দায়িত্ব) মোঃ মুনিরুজ্জামান।
কমিটির কার্যপরিধি হবে : (ক) ফৌজদারী কার্যবিধির প্রয়োজনীয় সংশোধন, সংযোজন, পরিমার্জন এবং এতদ্- সংক্রান্ত সংস্কার ও গবেষণা এবং তা যুগোপযোগী ও আধুনিকায়ন বিষয়ে প্রয়োজনীয় পরীক্ষা-নিরীক্ষাপূর্বক সুপারিশ প্রদান ;  (খ) ফৌজদারী কার্যবিধির বাংলা ভাষায় প্রণয়নের বিষয়ে প্রয়োজনীয় সুপারিশ প্রদান; (গ) ফৌজদারী মামলা দ্রুত নিষ্পত্তির লক্ষ্যে বর্তমানে ফৌজদারী কার্যবিধির প্রয়োগের ক্ষেত্রে কী কী সমস্যার উদ্ভব হচ্ছে, সে বিষয়ে প্রয়োজনীয় পরীক্ষা-নিরীক্ষাপূর্বক সুপারিশ প্রদান; (ঘ) ফৌজদারী কার্যবিধির এবং এতদসংক্রান্ত বিশ্বের অন্যান্য দেশের আইন পর্যালোচনাপূর্বক সুপারিশ প্রদান এবং  (ঙ) কমিটি প্রয়োজনে, এক বা একাধিক সদস্যকে কমিটিতে কো-অপ্ট করতে পারবে। 
কমিটি যতদ্রুত সম্ভব আইন, বিচার ও সংসদ বিষয়ক মন্ত্রী আনিসুল হকের নিকট উপর্যুক্ত বিষয়ে পর্যালোচনা সংক্রান্ত সুপারিশসহ প্রতিবেদন দাখিল করবেন। 
কমিটি গঠনের বিষয়ে আইনমন্ত্রী আনিসুল হক বলেন, ব্রিটিশ ঔপনিবেশিক আমলে প্রণীত উপর্যুক্ত ফৌজদারী কার্যবিধি দ্বারা বর্তমান চতুর্থ শিল্পবিপ্লব, কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তা, জিন প্রকৌশল ও ন্যানোপ্রযুক্তির এই যুগে সংঘটিত বিভিন্ন অপরাধ সংশ্লিষ্ট বিষয়ে মামলা পরিচালনা করা দুরূহ ও সময় সাপেক্ষ। এ কারণে ফৌজদারী মামলা দ্রুত নিষ্পত্তি এবং জনগণের আইনি অভিগম্যতা বৃদ্ধির লক্ষ্যে ফৌজদারী কার্যবিধিতে প্রয়োজনীয় সংশোধন, সংযোজন, পরিমার্জন এবং এতদসংক্রান্ত সংস্কার ও গবেষণাপূর্বক তা যুগোপযোগী, আধুনিকায়ন ও বাংলা ভাষায় প্রণয়ন করা প্রয়োজন।
উল্লেখ্য, ১৯৭১ সালের মার্চ মাসের ২৬ তারিখে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান কর্তৃক স্বাধীনতা ঘোষণার অব্যবহিত পূর্বে তদানীন্তন পূর্ব পাকিস্তানের প্রযোজ্য সকল আইনকে ১৯৭১ সালের ১০ এপ্রিল তারিখে জারীকৃত ল'জ কনটিনিউয়েন্স এনফোর্সমেন্ট অর্ডার দ্বারা একই তারিখে জারীকৃত প্রোকলেমেশন অব ইন্ডিপেন্ডেন্টস এর বিধান সাপেক্ষে অব্যাহত রাখা হয়। পরবর্তীতে গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশের সংবিধানের ১৪৯ অনুচ্ছেদ দ্বারা অব্যাহত থাকা ওই আইনগুলোকে হেফাজত করা হয়। বাংলাদেশের স্বাধীনতা ঘোষণার অব্যবহিত পূর্বে তদানীন্তন পূর্ব পাকিস্তানে প্রচলিত ব্রিটিশ ভারত ও পাকিস্তান আমলে প্রণীত অনেক আইন অদ্যাবধি বিদ্যমান রয়েছে।
 

  • সর্বশেষ
  • জনপ্রিয়
বেটা ভার্সন