BSS-BNhrch_cat_news-24-5
বাসস
  ১৫ আগস্ট ২০২২, ২৩:৩৯
আপডেট  : ১৫ আগস্ট ২০২২, ২৩:৪১

জিয়া কখনই প্রকৃত মুক্তিযোদ্ধা ছিলেননা : হানিফ

ঢাকা, ১৫ আগস্ট, ২০২২ (বাসস) : আওয়ামী লীগের যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক মাহবুব উল আলম হানিফ বলেছেন, জিয়াউর রহমান যদি সত্যিই মুক্তিযুদ্ধর পক্ষের শক্তি হতেন, তাহলে বঙ্গবন্ধুকে হত্যাকান্ডের পর ইনডেমনিটি আইন করে খুনিদের রক্ষা করতেন না। আসলে তিনি কখনই প্রকৃত মুক্তিযোদ্ধা ছিলেন না।
জাতির পিতা বঙ্গবন্ধুশেখ মুজিবুর রহমানের ৪৭তম শাহাদতবার্ষিকী ও জাতীয় শোক দিবস উপলক্ষ্যে আজ সোমবার কৃষিবিদ ইনস্টিটিউশন মিলনায়তনে অনুষ্ঠিত আলোচনা সভায় তিনি এ কথা বলেন। কৃষিবিদ ইনস্টিটিউশন বাংলাদেশ ও বঙ্গবন্ধু কৃষিবিদ পরিষদ যৌথ ভাবে এই আলোচনা সভার আয়োজন করে। 
মাহবুব উল আলম হানিফ বলেন, ‘বিএনপি বলে জিয়া মুক্তিযুদ্ধা ছিলেন। তার কর্মকান্ডে সেটি প্রমান হয় না। যদি তিনি সত্যিই মুক্তিযুদ্ধর পক্ষের শক্তি হতেন তাহলে বঙ্গবন্ধুকে হত্যাকান্ডের পর ইনডেমনিটি আইন করে খুনিদের রক্ষা করতেন না। জিয়া যদি হত্যা কান্ডে জড়িত না থাকেন তাহলে তিনি খুনিদের বিচার কেন করেননি? তাদের বিচার করতে তার কি সমস্যা ছিলো?সে উল্টো তাদের পুরস্কৃত করেছিলো। তাদের রাষ্ট্রদূত বানিয়েছিলো।’
তিনি বলেন, জিয়া ৭৫ সালে  ক্ষমতায় বসে রাজাকার ও যুদ্ধাপরাধী এবং গণহত্যা ও অগ্নিসংযোগ এরনেতৃত্বদানকারিদের কারাগার থেকে মুক্ত করে দিয়েছেন। জিয়া মুক্তিযুদ্ধেরস্লোগান জয় বাংলা নিষিদ্ধ করে পাকিস্তান জিন্দাবাদ এর আদলে বাংলাদেশ জিন্দাবাদ নিয়ে এসেছিলেন। তিনি বঙ্গবন্ধুর ৭  মার্চের ভাষণ নিষিদ্ধ করেছিলেন।যে ভাষনের মাধ্যমে স্বাধীনতার ডাক দিয়েছিলেন বঙ্গবন্ধু। পৃথিবীর শ্রেষ্ঠ ভাষণ গুলোর মধ্যে একটি হলো ৭ মার্চের ভাষন। একজন মুক্তিযুদ্ধের স্বপক্ষের শক্তি কখনো এ কাজগুলো করতে পারে না। 
আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক কৃষিবিদ আ ফ ম বাহাউদ্দিন নাছিম বলেন,  বিএনপি-জামাত এখনো দেশের বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্র ও অপপ্রচার করে। তারা সন্ত্রাসী কর্মকান্ড ও অশুভ শক্তির উত্থান করে নিজেদের ফায়দা লুটতে চায়। এদের বিরুদ্ধে আমাদের সচেতন হতে হবে এবং সকলকে একসাথে এদের প্রতিহত করতে হবে। কেউ যদি দেশে খুনের রাজনীতি করে তাদের আমরা উপযুক্ত জবাব দেবো।আমরা আর হারাতে চাই না। আমরা অনেক হারিয়েছি।
বঙ্গবন্ধু কৃষিবিদ পরিষদের সহ-সভাপতি প্রফেসর এ. কে. এম. সাইদুল হক চৌধুরীর সভাপতিত্বে সভায় আরও বক্তব্য রাখেন আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক মির্জা আজম এমপি, কৃষি ও সমবায় বিষয়ক সম্পাদক ফরিদুন্নাহার লাইলী, শিক্ষা ও মানবসম্পদ বিষয়ক সম্পাদক শামসুন নাহার চাঁপা, কৃষিবিদ ইনস্টিটিউশন বাংলাদেশ সভাপতি কৃষিবিদ ড. মোঃ শহীদুর রশীদ ভূঁইয়া এবং প্রধানমন্ত্রীর বিশেষ সহকারী মসিউর রহমান হুমায়ূন ।
 

  • সর্বশেষ
  • জনপ্রিয়