BSS-BNhrch_cat_news-24-5
বাসস
  ০৬ জুলাই ২০২২, ১১:৫৭

আসন্ন ঈদে বরিশালে চাহিদার চেয়ে কোরবানীর পশু বেশি রয়েছে

॥ শুভব্রত দত্ত ॥
বরিশাল, ৬ জুলাই, ২০২২ (বাসস) : জেলার ১০ উপজেলা ও সিটি কর্পোরেশন এলাকায় কোরবানী দেয়ার জন্য প্রস্তুত প্রায় ১ লাখ ৮ হাজার ২’শ টি পশু। আসন্ন কোরবানীর ঈদে চাহিদার চেয়ে প্রায় ১ হাজার কোরবানীর পশু বেশি রয়েছে বলে জানান, জেলা প্রাণি সম্পদ অধিদপ্তর।
জেলা প্রাণি সম্পদ অধিদপ্তরের সংশ্লিষ্ট সূত্র জানায়, এ বছর জেলায় কোরবানীর জন্য সর্বমোট ১ লাখ ৮ হাজার ২’শ টি পশু প্রস্তুত থাকলেও চাহিদা রয়েছে ১ লাখ ৭ হাজার ২’শ টি পশু। ৪’শ টি বাণিজ্যিকসহ প্রায় ৩০ হাজার পারিবারিক খামারী রয়েছে বরিশালে। জেলায় আমাদের খামারীরা যথেষ্ট পরিশ্রমী। এসব খামারে কোন রকম স্টেরয়েড ব্যবহার করা হয় না, সম্পূর্ণ অর্গানিক। ঘাস, গমের ভুষি আর খৈল ছাড়াও গম, ভুট্টা, খেসারী, ধান, ডাবলী ও ছোলা সহযোগে মিশ্র খাবার আমাদের খামারের বিশেষ খাদ্য-যা পশুর স্বাস্থ্য সুরক্ষা এবং উন্নয়নে অগ্রণী ভূমিকা পালন করে। এসব খামারে নেপালী, অস্ট্রেলিয়ান, ফিজিয়ান, হরিয়ানাসহ নানা জাতের গরু কোরবানীর জন্য প্রস্তুত করা হয়েছে।
এ বিষয়ে সদর উপজেলার সায়েস্তাবাদ এলাকার বিপু হালদার বলেন, মহামারি করোনা ভাইরাসের প্রাদুর্ভাবে গত দুই বছর কোরবানীর পশুর হাটগুলো বন্ধ ছিল। তাই ন্যায্য মূল্যে কোরবানীর গরু বিক্রি করতে পারিনি। বর্তমানে আমার খামারে মোট ২২টি গরু রয়েছে। যার মধ্যে প্রায় ১৮ টি গরু কোরবানী হাটে বিক্রি করার জন্য প্রস্তুত করেছি।
বিপু উৎফুল্ল কন্ঠে আরো বলেন, গত মাসে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা আমাদের প্রত্যাশিত পদ্মা বহুমুখি সেতু উদ্বোধন করে দিয়েছেন। তাই খুব সহজেই রাজধানীর পশুর হাটে গরু বিক্রি করতে যেতে পারবো। আর আশা করছি ভালো দামও পাবো।
এ প্রসঙ্গে বরিশাল বিভাগীয় প্রাণি সম্পদ অধিদপ্তরের পরিচালক (ভারপ্রাপ্ত) ডাঃ নুরুল আলম বলেন, গরুর খাবার হিসাবে দেওয়া হয় খড়, খৈল, ঘাস, ভুট্রা, চালের খুদ ইত্যাদি। খামারীর গরু মোটাতাজা করন করার জন্য হরমোন জাতীয় কোন ওষুধ ব্যবহার করেন না খামারীরা। নিরাপদ ও স্বাস্থ্যসম্মত পশু উৎপাদন ও কোরবানীর দেয়ার জন্য প্রস্তাত করতে এখানকার খামারীদের জেলা প্রাণি সম্পদ অধিদপ্তরের কর্মকর্তারা নিয়মিত সকল পরামর্শসহ বিভিন্ন প্রকার সহযোগিতা প্রদান করে যাচ্ছেন।
তিনি আরো বলেন, এ বছর পদ্মা বহুমুখি সেতু উদ্বোধনের কারনে খামারীরা কোরবানীর পশু রাজধানীর বিভিন্ন হাটে বিক্রি করে অধিক লাভবান হবেন।

  • সর্বশেষ
  • জনপ্রিয়
বেটা ভার্সন