BSS-BNhrch_cat_news-24-5
বাসস
  ২৩ অক্টোবর ২০২১, ০৯:৪৮
আপডেট  : ২৩ অক্টোবর ২০২১, ১০:২০

সরকারের উন্নয়ন প্রকল্প বাস্তবায়নের ফলে পাহাড়ে বিভিন্ন ক্ষেত্রে এসেছে আমূল পরিবর্তন

// মনসুর আহম্মেদ//
রাঙ্গামাটি, ২১ অক্টোবর, ২০২১ (বাসস) : জনসাধারনের আর্থসামাজিক উন্নয়নে বর্তমান সরকারের নেয়া বিভিন্ন উন্নয়ন প্রকল্প বাস্তবায়নের ফলে পাহাড়ের প্রত্যন্ত এলাকায় শিক্ষা,যোগাযোগ, স্বাস্থ্যসহ বিভিন্ন ক্ষেত্রে এসেছে আমূল পরিবর্তন।
বিগত ১২ বছরে সরকারের ধারাবাহিকতার কারনে পাহাড়ে উন্নয়ন কর্মকান্ডের আওতায় রাঙ্গামাটিতে পার্বত্য জেলা পরিষদের মাধ্যমে রাঙ্গামাটি সদর উপজেলাসহ ১০টি উপজেলার যোগাযোগ, শিক্ষা,স্বাস্থ্যসহ অবকাঠামোগত বিভিন্ন  উন্নয়ন প্রকল্প বাস্তবায়ন হওয়ার কারনে সরকারের উন্নয়ন কার্যক্রমগুলো এখন দৃশ্যমান।
বিগত ১২ বছরে শুধুমাত্র জেলা পরিষদের মাধ্যমে সরকার ৫২০ কোটি টাকা ব্যয়ে ৫ হাজার ৫৯২টি উন্নয়ন প্রকল্প বাস্তবায়ন করেছে। এছাড়া জেলা পরিষদ সরকারি অর্থায়নের পাশাপাশি ইউএনডিপিসহ অন্যান্য বিদেশী সংস্থার মাধ্যমে ও জনস্বার্থে বাস্তবায়ন করছে বিভিন্ন উন্নয়ন প্রকল্প।
রাঙ্গামাটি পার্বত্য জেলায় রাঙ্গামাটি সদর উপজেলাসহ ১০টি উপজেলায় সমানতালে সরকারের উন্নয়নের ধারা অব্যাহত থাকায় খুশি স্থানীয় জনগণ। সমতলের মতো পাহাড়ের উন্নয়নের ধারা অব্যাহত রাখতে সরকার অত্যন্ত আন্তরিক বলে মন্তব্য করেছেন রাঙ্গামাটি পার্বত্য জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান অংসুই-প্রু চৌধুরী।
রাঙ্গামাটি পার্বত্য জেলা পরিষদ কর্তৃক রাঙ্গামাটিসহ এর আওতাধীন আরো ১০টি উপজেলায় সরকারের বাস্তবায়নকৃত এবং চলমান উন্নয়ন কার্যক্রম নিয়ে একান্ত সাক্ষাৎকারে বাংলাদেশ সংবাদ সংস্থাকে(বাসস) রাঙ্গামাটি পার্বত্য জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান অংসুই-প্রু চৌধুরী বলেন, বর্তমান সরকারের আমলে বিগত ১২ বছরে রাঙ্গামাটি পার্বত্য জেলা পরিষদের মাধ্যমে ৫২০ কোটি টাকা ব্যয়ে প্রায় ৫ হাজার ৫৯২টি প্রকল্প বাস্তবায়ন করা হয়েছে এবং পাহাড়ের উন্নয়নে নেয়া হয়েছে আরো অনেক নতুন-নতুন প্রকল্প।
তিনি বাসসকে জানান, ১৯৯৭ সালের ২ ডিসেম্বর পার্বত্য চট্টগ্রাম চুক্তির পর চুক্তির আইন অনুযায়ী পাহাড়ে সরকারের বেশীরভাগ উন্নয়ন কার্যক্রম পরিচালিত হয় পার্বত্য জেলা পরিষদের মাধ্যমে।
তারই ধারাবাহিকতায় পাহাড়ের প্রত্যন্ত এলাকায় চলছে উন্নয়ন কার্যক্রম। সরকারের উন্নয়ন কার্যক্রমে পাহাড়ের দূর্গম এলাকায় যোগাযোগ ক্ষেত্রে এসেছে ব্যাপক পরিবর্তন।
যোগাযোগের পাশাপাশি পাহাড়ের প্রত্যন্ত এলাকায় বিভিন্ন ধর্মীয় প্রতিষ্ঠান গড়ে তোলার ক্ষেত্রে ও ভূমিকা রাখছে রাঙ্গামাটি পার্বত্য জেলা পরিষদ।
পাহাড়ে পিছিযে পড়া জনগোষ্টীসহ সকল সম্প্রদায়ের শিশু সুশিক্ষায় শিক্ষিত করতে শিক্ষা প্রতিষ্ঠান গড়ে তোলাসহ রাস্তাঘাটের উন্নয়নে জেলা পরিষদের পক্ষ থেকে উন্নয়ন কাজ চলমান রয়েছে।
রাঙ্গামাটি পার্বত্য জেলা পরিষদের নির্বাহী প্রকৌশলী বিরল বড়–য়া বাংলাদেশ সংবাদ সংস্থাকে (বাসস) জানান, রাঙ্গামাটির ১০টি উপজেলায় সরকারের উন্নয়ন কার্যক্রম চলমান রয়েছে এবং ভবিষ্যতে পাহাড়ে বসবাসরত সাধারণ মানুষের আর্থসামাজিক উন্নয়নে নতুন প্রকল্প নেয়া হচ্ছে।
রাঙ্গামাটি পার্বত্য জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান অংসুই-প্রু চৌধুরী বাংলাদেশ সংবাদ সংস্থাকে(বাসস) আরো জানান, সরকারের ধারাবাহিকতার ফলে বিগত ১২ বছরে পাহাড়ে ব্যাপক উন্নয়ন কাজ হয়েছে এবং এ উন্নয়নের ধারা অব্যাহত রাখতে বর্তমান সরকারের বিকল্প নেই। সরকারের ধারাবাহিকতার কারনে বিগত ১২ বছরে রাঙ্গামাটি পার্বত্য জেলা পরিষদের মাধ্যমে সরকারি অর্থায়নে প্রকল্প বাস্তবায়নের পাশাপাশি বিদেশী সংস্থা ইউএনডিপিসহ অন্যান্য সংস্থার মাধ্যমে ও উন্নয়ন কার্যক্রম বাস্তবায়ন করছে রাঙ্গামাটি পার্বত্য জেলা পরিষদ।
এছাড়া রাঙ্গামাটি পার্বত্য জেলা পরিষদের পাশাপাশি পার্বত্য চট্টগ্রাম উন্নয়ন বোর্ড, এলজিইডি, সড়ক ও জনপথ বিভাগ,গণপূর্তসহ সরকারের অন্যান্য সংস্থাগুলোও সমানতালে পার্বত্য চট্টগ্রামে পাহাড়ের প্রত্যন্ত এলাকায় জনস্বার্থে বাস্তবায়ন করছে সরকারের বিভিন্ন উন্নয়ন প্রকল্প।
পাহাড়ে সরকারের উন্নয়ন কাজের পাশাপাশি এখানে গড়ে উঠেছে মেডিকেল কলেজ, বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ^-বিদ্যালয়সহ বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ শিক্ষা প্রতিষ্ঠান।
বর্তমান সরকারের আন্তরিকতায় পাহাড়ে প্রত্যন্ত এলাকায় যোগাযোগ, শিক্ষা, স্বাস্থ্যসহ বিভিন্ন ক্ষেত্রে এসেছে পরিবর্তন। সরকারের বদান্যতায় সমতলের মতো এগিয়ে যাচ্ছে পার্বত্য চট্টগ্রামের মানুষ।  

 

  • সর্বশেষ
  • জনপ্রিয়
বেটা ভার্সন