BSS-BNhrch_cat_news-24-5
বাসস
  ১৬ অক্টোবর ২০২১, ২০:১৭

বীর মুক্তিযোদ্ধা সশস্ত্র বাহিনীর সদস্যদের হত্যাকান্ডের বিচার দাবি

ঢাকা, ১৬ অক্টোবর, ২০২১ (বাসস ডেস্ক) : শত শত বীর মুক্তিযোদ্ধা সশস্ত্র বাহিনীর সদস্যকে ১৯৭৭ সালের ২ অক্টোবর হত্যার প্রতিবাদে আয়োজিত এক মানববন্ধনে এই হত্যাকান্ডের বিচারের লক্ষে একটি তদন্ত কমিশন গঠন ও ক্ষতিগ্রস্তদের ক্ষতিপূরণ দেয়ার দাবি জানানো হয়েছে। 
আজ শনিবার রাজধানীর শাহাবাগ চত্বরে ‘ফোজিত শেখ ক্রিয়েশন’ আয়োজিত এই মানববন্ধনে সভাপতিত্ব করেন, বাংলাদেশ জাতীয় গণতান্ত্রিক লীগের সভাপতি এম এ জলিল, প্রধান অতিথি ছিলেন আওয়ামী লীগ ঢাকা মহানগর দক্ষিণের সাংস্কৃতিক সম্পাদক আব্দুল মতিন ভুইয়া, বিশেষ অতিথি ছিলেন শিক্ষক কর্মচারি কল্যাণ ট্রাস্টে মহাসচিব শাহজাহান আলম সাজু, স্বাধীনতা চিকিৎসক পরিষদের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক উত্তম কুমার বড়ুয়া, বাংলাদেশ ন্যাপের ভাইস প্রেসিডেন্ট স্বপন কুমার, শিশু কল্যাণ পরিষদের চেয়ারম্যান মুশফিকুর রহমান মিন্টু প্রমুখ। 
এছাড়াও ১৯৭৭ সালে ভুক্তভোগী সদসদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন, কর্পোরাল হাফিজ আব্দুল মজুমদার, সার্জেন্ট এনামুল হক এনাম, কর্পোরাল সানাউল্লাহ, সার্জেন্ট নূরুল হক প্রমূখ। 
বক্তারা বলেন, ১৯৭৫ সালের ১৫ আগস্ট জাতির পিতা বঙ্গবন্ধুকে সপরিবারে হত্যার নেতৃত্ব দেন জিয়াউর রহমান। পরবর্তীতে সেনা ছাউনি ব্যবহার করে রাষ্ট্রপতি জিয়া তার এই পদকে পাকাপোক্ত করার জন্য ১৭টি সেনা অভ্যুত্থান ঘটিয়ে বিশেষভাবে মহান মুক্তিযুদ্ধে অংশ নেয়া সেনাদের ১৯৭৭ সালের ২ অক্টোবর হত্যা করে। অনেককে জেলে পাঠায় এবং অনেককে গুম করে। বক্তারা বঙ্গবন্ধু কন্যা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার কাছে ১৯৭৭ সালের ২ অক্টোবর ঘটনার তদন্তের জন্য বিচার বিভাগীয় কমিশন গঠন ও ক্ষতিগ্রস্তদের ক্ষতিপূরণ দেয়ার আহ্বান জানান। তারা শিশু শেখ রাসেল হত্যার জন্য জিয়া-মোস্তাকের মরণোত্তর বিচারেরও দাবি জানান।

 

  • সর্বশেষ
  • জনপ্রিয়
বেটা ভার্সন