বাসস
  ১৯ জুন ২০২৪, ১৬:৪৪

নীলফামারীতে বাড়ছে তিস্তার পানি

নীলফামারী, ১৯ জুন, ২০২৪ (বাসস) : জেলায় বাড়ছে তিস্তার পানি। ভারী বৃষ্টিপাত ও উজানের ঢলে আজ বুধবার সকাল ছয়টায় ডালিয়ায় তিস্তা ব্যারাজ পয়েণ্টে নদীর পানি বিপদসীমার মাত্র ২০ সেন্টিমিটার নিচ দিয়ে প্রবাহিত হয়। এরপর কিছুটা কমলেও সন্ধ্যায় পানি বাড়ার আভাস দিয়েছে ডালিয়া পানি উন্নয়ন বোর্ড কর্তৃপক্ষ।
ডালিয়া পানি উন্নয়ন বোর্ডের বন্যা পূর্বাভাস ও সতর্কীকরণ কেন্দ্র জানায়, উজানের ঢল ও ভারি বৃষ্টিপাতে নদীর পানি বৃদ্ধি পেয়ে বুধবার সকাল ছয়টায় তিস্তা ব্যারাজ পয়েণ্টে বিপদসীমার ২০ সেন্টিমিটার নিচ দিয়ে প্রবাহিত হয়। সকাল নয়টায় কিছুটা কমে ২৩ সেণ্টিমিটার এবং বেলা ১২টায় ২৭ সেণ্টিমিটার নিচে নামলেও সন্ধ্যা নাগাদ পানি বৃদ্ধির সম্ভাবনা রয়েছে। নদীর ওই পয়েণ্টে বিপদসীমা ৫২ দশমিক ১৫ মিটার।
এর আগে গত সোমবার বিকাল তিনটায় তিস্তা ব্যারাজ পয়েণ্টে নদীর পানি বিপদসীমার ৬৬ সেণ্টিমিটার নিচ দিয়ে প্রবাহিত হয়েছিল। এরপর থেকে পানি বাড়তে থাকলে মঙ্গলবার বিকাল তিনটায় ৩২ সেণ্টিমিটারে পৌঁছে যায়।
ডিমলা উপজেলার পূর্বছাতনাই ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান আব্দুল লতিফ খাঁন জানান, গত কয়েকদিন ধরে ক্রমে বৃদ্ধি পাচ্ছে তিস্তা নদীর পানি। নদীর উজান থেকে আসা ঢল এবং ভারি বৃষ্টিপাতে বুধবার সকালে নদীর পানি আরও বৃদ্ধি পায়। তবে তিস্তাপাড়ের কোনো বাড়ি ঘরে এখনো পানি উঠেনি। এলাকার পরিস্থিতি স্বাভাবিক আছে।
এদিকে ওই উপজেলার টেপাখড়িবাড়ি ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মো. রবিউল ইসলাম জানান, নদীর পানি বৃদ্ধি পেলেও তার ইউনিয়নের চরাঞ্চলের বাড়ি ঘরে এখনো পানি ওঠেনি। তবে যে কোনো সময় পানি বিপদসীমা অতিক্রমের শঙ্কায় রয়েছেন এলাকার মানুষ।
ডালিয়া পানি উন্নয়ন বোর্ডের নির্বাহী প্রকৌশলী মো. আসফাউদদ্দৌলা বলেন, ‘তিস্তা নদীর পানি কয়েকদিনের তুলনায় বৃদ্ধি পেয়েছে। বুধবার সকাল ছয়টায় বিপদসীমার ২০ সেণ্টিমিটার নিচ দিয়ে প্রবাহিত হয়। এরপর কিছুটা কমলেও সন্ধ্যার পর পানি বাড়তে পারে। তবে বিপদসীমা অতিক্রম করার সম্ভাবনা কম।’

 

  • সর্বশেষ
  • জনপ্রিয়