বাসস
  ১৬ জুন ২০২৪, ২০:১৪

রাজধানীর বেশিরভাগ মানুষই কোরবানির পশু ক্রয় করেছেন

ঢাকা, ১৬ জুন, ২০২৪ (বাসস): মুসলমানদের সবচেয়ে বড় ধর্মীয় উৎসব পবিত্র ঈদুল আজহা আগামীকাল সোমবার। ইতিমধ্যে রাজধানীর বেশিরভাগ মানুষ কোরবানির জন্য তাদের পছন্দের পশু ক্রয় করেছেন। 
উত্তরা, মেরাদিয়া, শাহজাহানপুরসহ বেশ কিছু পশুর হাট ঘুরে দেখা গেছে, পশুর হাটগুলো আজ প্রায় গরু শূন্য হয়ে পড়েছে। হাট সংশ্লিষ্টরা জানান, এবছর কোরবানি পশুর কাঙ্খিত দাম থাকায় বিক্রি ভাল হয়েছে।  
এ বছর চাহিদার তুলনায় কোরবানি পশুর কাঙ্খিত দাম নাগালের মধ্যে থাকায় কোরবানি পশুর হাটের প্রায় সব গরু বিক্রি হয়ে গেছে। সে কারণে এখন হাটে সীমিত সংখ্যক গরু ও ছাগল রয়েছে। 
শনিবার রাতে ও আজ সকালের মধ্যে কোরবানি পশুর হাটের সকল গরু বিক্রি হয়ে গেছে।  তবে, ক্রেতারা বলছে গরুর দাম এবছর নাগালের মধ্যে ছিল। কমদামে গরু ও ছাগল ক্রয় করতে পেরে ক্রেতারা বেশ খুশি। তবে, আজ সকাল থেকে হাটে গরুর সংখ্যা কম থাকায় অনেককেই চড়া দামে উত্তরা ও আশপাশের হাট থেকে পশু ক্রয় করতে দেখা গেছে। রাজধানীর মেরাদিয়া, শাহজাহানপুরসহ অন্যান্য হাটেরও একই অবস্থা। গতকাল রাতে যে গরু ৬০ হাজার টাকায় বিক্রি করা হয়েছে সেটা আজ দ্বিগুণ প্রায়। 
ব্যবসায়ীরা জানান, উত্তরার পশুর হাটে গতকাল ও পরশু দিন পশু বেচাকেনা বেশ জমজমাট ছিল। হাটে কোথাও পা ফেলারও জায়গা ছিল না। তুরাগের নলভোগ  গ্রামের গরু ব্যবসায়ী  মোস্তফা মাতাব্বর  জানান, আমি সারা বছর খামারে বিভিন্ন জাতের গরু পালন করি। প্রতি বছর কোরবানি ঈদ আসলে উত্তরার পশুর হাটে গরু নিয়ে বিক্রি করি। এ বছর হাটে ভারতীয় গরু নেই বললেই চলে।  
তিনি বলেন, ‘আমি দীর্ঘ দিন ধরে গরুর ব্যবসা করছি। সারা বছর জুড়ে হাড়ভাঙা পরিশ্রম করতে হয়।  গরু বিক্রি করে আমার বছরে ১০-১৫ লাখ টাকা আয় হয়। এতে আমি বেশ খুশি।’
আজ  সকালে উত্তরার কোরবানির পশুর হাট ঘুরে দেখে যায়, কোরবানির পশু রাখার জন্য পেন্ডেলে গরু নেই বললেই চলে। মাঠের অধিকাংশ পশু বিক্রি হয়ে গেছে।  গরু বিক্রি করে ব্যাপারীরা অনেকেই বাড়ি ফিরে গেছেন। মেরাদিয়া হাট ও শাহজাহানপুর হাটেও একই অবস্থা চোখে পড়ে।  

 

  • সর্বশেষ
  • জনপ্রিয়