BSS-BNhrch_cat_news-24-5
বাসস
  ২৬ নভেম্বর ২০২২, ১৫:১৩

ফুটবল-বিশ্বকাপ: এগিয়ে যেতে চায় আত্মবিশ্বাসী মরক্কো-বেলজিয়াম 

দোহা, ২৬ নভেম্বর, ২০২২ (বাসস) :  কাতার বিশ্বকাপে আল থুমামা স্টেডিয়ামে গ্রুপ-এফ’এ নিজেদের দ্বিতীয় ম্যাচে আগামীকাল বাংলাদেশ সময় সন্ধ্যা ৭টায়  মুখোমুখি হচ্ছে বেলজিয়াম ও মরক্কো। প্রথম ম্যাচে কানাডার বিপক্ষে ১-০ গোলের জয়ে বেলজিয়াম নক আউট পর্বের পথে অনেকটাই এগিয় আছে। এদিকে গতবারের রানার্স-আপ ক্রোয়েশিয়াকে রুখে দিয়ে এক পয়েন্ট অর্জন করা মরক্কোও আত্মবিশ্বাস নিয়েই মাঠে নামবে। 
গড়ে প্রতি ম্যাচে তিনটি করে গোল করে অনেকটা সহজ বাছাইপর্ব পেরিয়ে আসা বেলজিয়াম টুর্নামেন্টের শুরুটাও জয় দিয়ে করেছিল। এখন তাদের সামনে এমন এক প্রতিপক্ষ যারা গত চার দশক ধরে বিশ্বকাপের বাইরে ছিল। আল রাইয়ান স্টেডিয়ামে কানাডার বিপক্ষে ম্যাচের শুরুতে পেনাল্টি রুখে দিয়ে থিবো কোর্তোয়া আরো একবার বেলজিয়ানদের রক্ষা করেছিলেন। আর এতেই উজ্জীতি হয়ে ৪৪ মিনিটে মিশি বাটশুয়াইয়ের গোলে শেষ পর্যন্ত তিন পয়েন্ট নিয়ে মাঠ রবার্তো মার্টিনেজের দল। ইনজুরিতে ছিটকে পড়া রোমেলু লুকাকুর স্থান পূরনে ফেনারবাচের এই স্ট্রাইকারের উপর রাখা আস্থার  প্রতিদান তিনি ঠিকই দিয়েছেন। সেদিনের ম্যাচ সেরা হয়েছিলেন ম্যানচেস্টার সিটি তারকা কেভিন ডি ব্রুইনা। 
একইদিন প্রথম ম্যাচে ক্রোয়েশিয়ার সাথে মরক্কো গোলশুন্য ড্র করায় বেলজিয়ামের সামনে সুযোগ ছিল নিজেদের এগিয়ে নেবার। প্রাথমিক কাজটুকু সাড়ার পর এখন আরো বেশী চ্যালেঞ্জিং এক প্রতিপক্ষ তাদের সামনে। বেলজিয়ামের স্বর্ণালী প্রজন্মের দলটিকে এগিয়ে নিয়ে যাবার দায়িত্ব এখন অনেকটাই বাটশুয়াইয়ের উপর। ১০২ আন্তর্জাতিক ম্যাচে ৬৮ গোল করে বেলজিয়ামের সর্বকালের সর্বোচ্চ গোলদাতা লুকাকুর স্থানে নিজেকে প্রমান করাই এখন বাটশুয়াইয়ের মূল দায়িত্ব। 
চার বছর আগে টুর্নামেন্টে  তৃতীয় হওয়া  বেলজিয়াম এবার সেই সাফল্যকে ছাড়িয়ে যেতে মুখিয়ে আছে। এর আগে ৯৪’ যুক্তরাষ্ট্র বিশ^কাপে একমাত্র দেখায় মরক্কোকে ১-০ গোলে পরাজিত করেছিল বেলজিয়াম। এনিয়ে বিশ^কাপে গ্রুপ পর্বের শেষ আটটি ম্যাচের সবকটিতেই জয়ী হয়েছে বেলজিয়াম। বিপরীতে মরক্কো সাম্প্রতিক সময়ে নিজেদের প্রমানে ব্যস্ত ছিল। সে কারনেই ২০১৮ রানার্স-আপদের প্রথম ম্যাচেই রুখে দিয়ে অনেকটা ফুরফুরে মেজাজেই কাল মাঠে নামবে আফ্রিকান দেশটি। এ পর্যন্ত খেলা পাঁচটি বিশ^কাপের কোনটিতেই গ্রুপ পর্বের বাঁধা পেরুতে পারেনি মরক্কো। চার বছর আগে কঠিন গ্রুপ থেকে মাত্র এক পয়েন্ট অর্জন করতে সক্ষম হয়েছিল দলটি। 
বর্তমান কোচ ওয়ালিদ রেগ্রাগুই ইতোমধ্যেই স্বীকার করেছেন তার দলের নক আউট পর্বে যাওয়াটা অনেকটা অবাস্তব, এক্ষেত্রে গ্রুপের ইউরোপীয়ান প্রতিপক্ষদেরই তিনি এগিয়ে রেখেছেন। যদিও ক্রোয়েশিয়ার বিপক্ষে প্রতাশ্যার চেয়ে ভাল ফল করায় মরক্কোকে নিয়ে অনেকেই আশাবাদী হয়ে উঠেছেন। কিন্তু এ পর্যন্ত বিশ^কাপে খেলা ১৭টি ম্যাচের নয়টিতেই তারা কোন গোল করতে পারেনি। 
গত বছর আফ্রিকান নেশন্স কাপের কোয়ার্টার ফাইনালে মিশরের কাছে পরাজিত হবার পর সাবেক কোচ ভাহিদ হাভিহোডিচ হামিক জিয়েচ ও নুসাইর মাজারুইর মত খেলোয়াড়কে বাদ দিয়েছিলেন। কিন্তু রেগ্রাগুই দলে আসার পর আবারো তারকা এই দুই খেলোয়াড়কে জাতীয় দলে ফিরিয়ে আনেন। কাতারে ভাল একটি শুরুর পর কালকের ম্যাচেও অন্তত এক পয়েন্টের লক্ষ্য নিয়েই মাঠে নামবে মরক্কো। কানাডার বিপক্ষে চারদিন পর শেষ ম্যাচের আগে যাতে কিছুটা হলেও সুবিধাজনক অবস্থানে থাকা যায় সেটাই এখন মূল চ্যালেঞ্জ। উত্তর আমেরিকা থেকে সরাসরি কাতারে উড়ে আসা হাজারো মরোক্কান সমর্থক যেন হতাশা নিয়ে বাড়ি ফিরে না যায়। মরক্কোর বড় একটি কমিউনিটি মধ্যপ্রাচ্যেও বসবাস করে। সব মিলিয়ে সমর্থনটাও বেশ জোড়ালে হবে বলেই আশা করা হচ্ছে। 
এ দিকে এ সপ্তাহেই তারকা স্ট্রাইকার লুকাকুকে দলে পাবার আশা করছেন মার্টিনেজ। আগস্টের পর থেকে প্রায় বেশীরভাগ সময়ই মাঠের বাইরে কাটানো ২৯ বছর বয়সী লুকাকু মাঠে ফিরে কতটা স্বাচ্ছন্দ্য বোধ করবে তা নিয়েও শঙ্কা রয়েছে। প্রথম ম্যাচের ফর্মেশনই ধরে রাখতে চান মার্টিনেজ। মূও একাদশে থমাস মুনিয়ার ও আমাডু ওনানাকেই উইং ব্যাক ও সেন্ট্রল মিডফিল্ডার হিসেবে রাখা হবে। 
 

  • সর্বশেষ
  • জনপ্রিয়