BSS-BNhrch_cat_news-24-5
বাসস
  ০১ আগস্ট ২০২১, ১৮:৫০

গত অর্থবছরে রিটার্ন জমা পড়েছে ২৪ লাখ ৩০ হাজার ৬৪৫

ঢাকা, ১ আগস্ট, ২০২১ (বাসস) : চলমান করোনা মহামারির মধ্যেও সদ্যবিদায়ী ২০২০-২১ অর্থবছরে জাতীয় রাজস্ব বোর্ডের (এনবিআর) রাজস্ব আহরণ বৃদ্ধির পাশাপাশি ব্যক্তিশ্রেণীর আয়কর বিবরণী (রিটার্ন) দাখিলের সংখ্যা বেড়েছে। এ সময়ে মোট ২৪ লাখ ৩০ হাজার ৬৪৫ জন কর সনাক্তকরণ নাম্বারধারী (টিআইএন) রিটার্ন জমা করেছেন, যা এর আগের বছরের তুলনায় প্রায় ১৫ শতাংশ বেশি।
এনবিআরের হিসাবমতে ২০১৯-২০ অর্থবছরে আয়কর রিটার্নের সংখ্যা ছিল ২১ লাখ ১৪ হাজার ৩৮৫। সেই তুলনায় সদ্যবিদায়ী অর্থবছরে ৩ লাখ ১৬ হাজার ২৬০টি রিটার্ন বেশি জমা পড়েছে।
এ বিষয়ে এনবিআরের সদস্য (আয়কর নীতি) মো. আলমগীর হোসেন বাসসকে বলেন, গত অর্থবছরের পুরো সময়টা আমরা করোনা মহামারির মধ্যে দিয়ে পার করেছি বটে, তবে প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশে এসময়ে এনবিআর মানুষের পাশে দাঁড়াতে চেস্টা করেছে। একদিনের জন্য হলেও রাজস্ব অফিস বন্ধ করা হয়নি। কর সংক্রান্ত সব ধরনের সেবা উন্মুক্ত থাকায় রিটার্ন দাখিলের পাশাপাশি রাজস্ব আহরনও বেড়েছে বলে তিনি মন্তব্য করেন।
এছাড়া উৎসে কর আদায়ের ক্ষেত্রে মনিটারিং জোরদার ও আইনগত কিছু পরিবর্তন আনায় রাজস্ব আহরণ বৃদ্ধি পেয়েছে বলে তিনি উল্লেখ করেন। আলমগীর হোসেন বলেন, সকল টিআইএনধারীরর জন্য রিটার্ন দাখিল বাধ্যতামূলক করায় এবার রিটার্ন জমার সংখ্যা বেড়েছে। এছাড়া রিটার্ন দাখিলের বিষয়ে মানুষের মধ্যে সচেতনতা তৈরি হচ্ছে, যার সুফল আমরা দেখতে পাচ্ছি বলে তিনি উল্লেখ করেন।
দেশে বর্তমানে টিআইএনধারীর সংখ্যা ৫৬ লাখ। এদিকে, ২০২০-২১ অর্থবছরে রাজস্ব আয়ের পরিমাণ দাঁড়িয়েছে ২ লাখ ৬০ হাজার কোটি টাকা, যা বিগত অর্থবছরের তুলনায় প্রায় ২০ শতাংশ বেশি। ২০১৯-২০ অর্থবছরে রাজস্ব আয় ছিল ২ লাখ ১৬ হাজার ৫৪০ কোটি টাকার। 
আলোচ্য সময়ে আয়কর রাজস্বের পরিমাণ ৮৫ হাজার ২২৪ কোটি টাকার, মূল্য সংযোজন কর (মূসক) থেকে অর্জিত আয় ৯৭ হাজার ৪৯০ কোটি টাকা এবং শুল্ক কর থেকে অর্জিত আয়ের পরিমাণ দাঁড়িয়েছে ৭৭ হাজার ১৫০ কোটি টাকা।  

  • সর্বশেষ
  • জনপ্রিয়
বেটা ভার্সন