BSS-BNhrch_cat_news-24-5
বাসস
  ০৩ অক্টোবর ২০২২, ১৪:০১

লা লিগা: বেনজেমার পেনাল্টি মিসে প্রথম পয়েন্ট হারালো রিয়াল

মাদ্রিদ, ৩ অক্টোবর, ২০২২ (বাসস) : করিম বেনজেমার পেনাল্টি মিসে লা লিগায় এবারের মৌসুমে প্রথম পয়েন্ট হারিয়েছেন রিয়াল মাদ্রিদ। রোববার ওসাসুনার বিপক্ষে ১-১ গোলে ড্র করার মাধ্যমে ছয় ম্যাচ পর রিয়ালের জয়রথ থামলো। 
দিনের অপর ম্যাচগুলোতে রিয়াল সোসিয়েদাদ ৫-৩ গোলে জিরোনাকে পরাজিত করলেও উড়তে থাকা রিয়াল বেটিসকে ১-০ গোলে হারের তিক্ত স্বাদ দিয়েছে সেল্টা ভিগো। 
শনিবার মায়োর্কাকে ১-০ গোলে পরাজিত করেছিল বার্সেলোনা। আর তাই টেবিলের শীর্ষস্থান পুনরুদ্ধারে রোববার জয় প্রয়োজন ছিল বর্তমান চ্যাম্পিয়ন মাদ্রিদের। কিন্তু সান্তিয়াগো বার্নাব্যুতে জাগোবা আরাসাতের দারুন গোছানো দলের বিপক্ষে শেষ পর্যন্ত পেরে উঠেনি স্বাগতিকরা। 
ইনজুরি কাটিয়ে দলে ফেরা বেনজেমা স্পট কিক থেকে বল ক্রসবারের উপর দিয়ে বাইরে পাঠালে হতাশ হতে হয় গ্যলাকটিকোদের। এছাড়াও তার আরো একটি গোল অফসাইডের কারনে বাতিল হয়ে গেছে। আর এসবই কাল মাদ্রিদকে এগিয়ে যেতে দেয়নি। 
বিরতির আগে কোনাকুনি শটে ডেডলক ভাঙ্গেন ভিনিসিয়াস জুনিয়র। কিন্তু ৫০ মিনিটে উনাই গার্সিয়ার ক্রসে কিকে গার্সিয়ার দারুন এক হেডে ওসাসুনার এক পয়েন্ট নিশ্চিত হয়।
ম্যাচ শেষে মাদ্রিদ কোচ কার্লো আনচেলত্তি স্থানীয় গণমাধ্যমে বলেছেন, ‘আমরা আজ যা ভুল করেছি তার সবটাই ছিল পেনাল্টিকে ঘিড়ে। সাধারণত বেনজেমা এই ধরনের ভুল করেনা, পেনাল্টি থেকে তার শতভাগ সফলতা আছে। ৯০ মিনিট খেলতেও তার কোন সমস্যা হয়নি। প্রায় মাসখানেক যাবত সে মাঠের বাইরে ছিল। নিজের সেরা ফর্ম ফিরে পেতে সে মরিয়া হয়ে আছে। পুরো ম্যাচে বেনজেমা নিজের দায়িত্ব ভালই পালন করেছে। পেনাল্টি থেকে গোলের সুযোগও পেয়েছিল। কিন্তু এটি একটি দূর্ঘটনা, মাঝে মাঝে এমন হতেই পারে।’
এর আগে রোববার সকালে ক্লাবের ভক্তদের সামনে রিয়াল মাদ্রিদ সভাপতি ফ্লোরেন্তিনো পেরেজ বলেছেন ইউরোপীয়ান সুপার লিগ প্রকল্প খুবই জরুরী। কিন্তু ওসাসুনা প্রমান করেছে ঘরোয়া ফুটবল এখনো রিয়ালের সামনে যেকোন সময়ই চ্যালেঞ্জ ছুঁড়ে দিতে পারে। 
গত ৬ সেপ্টেম্বরের পর এটি ছিল বেনজেমার প্রথম ম্যাচ। এদিকে থিবাট কোর্তোয়া ও লুকা মড্রিচের স্থানে কাল মূল একাদশে খেলেছেন আন্দ্রি লুনিন ও ডানি সেবালোস। শুরুতেই মাদ্রিদ ততটা আগ্রাসী ছিলনা। এই সুযোগে ওসাসুনা কয়েকটি আক্রমন চালিয়েছে। বার্সেলোনা থেকে এবারের গ্রীষ্মে ধারে ওসাসুনাতে খেলতে আসা মরোক্কান ২০ বছর বয়সী তরুন এ্যাটাকার আবদে এজালজুলির সাইড নেটে লাগলে এগিয়ে যাওয়া হয়নি সফরকারীদের। ৪২ মিনিটে মাদ্রিদকে দাপটের সাথে এগিয়ে দেন ভিনিসিয়াস জুনিয়র। ডেভিড আলাবার লো ক্রসে ভিনিসিয়াসের শট আটকাতে পারেননি ওসাসুনার গোলরক্ষক সার্জিও হেরেরা। ওসাসুনা অবশ্য এই গোলের আগে বেনজেমা ও এন্টোনিও রুডিগারের অফসাইডের আবেদন করেছিল। কিন্তু তাদের প্রতিবাদ কাজে আসেনি। 
দ্বিতীয়ার্ধের পাঁচ মিনিটের মধ্যে সমতায় ফেরায় সফরকারীরা। কিকে গার্সিয়ার অসাধারন হেড আটকাতে পারেননি লুনিন। এর ফলে লিগের প্রথম সাত ম্যাচের সবকটিতেই গোল হজম করতে হলো মাদ্রিদকে। আনচেলত্তি বলেছেন, ‘রক্ষনভাগে আমরা আজ বেশী ভাল খেলেছি। ডিপ ক্রস থেকে আমাদের গোল হজম করতে হয়েছে, এটা সত্যিই বিস্ময়কর। দল আজ যেভাবে সংঘবদ্ধ ছিল তাতে গোল খাওয়ার কথা না।’
বেনজেমার একটি শক্তিশালী শট রুখে দেন হেরেরা, যদিও এসময় ফ্রেঞ্চম্যান বেনজেমা অফসাইড পজিশনে ছিলেন। পরের আক্রমনে রডরিগোর শট পোস্টের উপর দিয়ে বাইরে চলে যায়। ৭৮ মিনিটে বেনজেমাকে ডি বক্সের ভিতর ফাউলের অপরাধে সরাসরি লাল কার্ড দেখে মাঠের বাইরে চলে যান ডেভিড গার্সিয়া। স্পট কিক থেকে মাদ্রিদকে এগিয়ে দিতে ব্যর্থ হন বেনজেমা। পরের মিনিটেই বেনজেমা বল জালে জড়ালেও অফসাইডের কারনে তা বাতিল হয়ে যায়। ফলে আবারো হতাশ হতে হয় পুরো মাদ্রিদ শিবিরকে। 
এই ড্রয়ে সাত ম্যাচ পর গোল ব্যবধানে মাদ্রিদের থেকে এগিয়ে টেবিলের শীর্ষেই থাকলো বার্সেলোনা। উভয় দলই ১৯ পয়েন্ট নিয়ে এখনো অপরাজিত আছে। ২০২০ সালের জুনের পর একটি রাউন্ড শেষে এই প্রথমবারের মত কাতালান জায়ান্টরা লিগ টেবিলের শীর্ষস্থান ধরে রাখলো। 
ওসাসুনার কোচ আরাসাতে বলেছেন, ‘আমাদের এই পয়েন্ট উদযাপন করা উচিৎ। এ পর্যন্ত মাদ্রিদ সবকটি ম্যাচ জিতেছে। আমরা পিছিয়ে থেকেও গোল শোধ করেছি। আজ আমার ছেলেরা দুর্দান্ত খেলেছে।’
দিনের শুরুতে মন্টিলিভিতে লিয়াল সোসিয়েদাদ আট গোলের উত্তেজনাকর ম্যাচে শেষ পর্যন্ত জয় নিয়েই বাড়ি ফিরেছে। নরওয়েজিয়ান স্ট্রাইকার আলেক্সান্দার সোরলোথ প্রথমার্ধে সফরকারীদেও হয়ে জোড়া গোল করেছেন। তবে তার এই দুই গোলের মাছে রডরিগো রিকুয়েলমে ও আরনাও মার্টিনেজের গোলে এগিয়ে গিয়েছিল জিরোনা। ৪৮ মিনিটে ভ্যালেন্টিন কাস্তেলানোসের গোলে আবারো এগিয়ে যায় স্বাগতিক জিরোনা। কিন্তু ব্রেইস মেনডেজ ও মার্টিন জুবিমেন্ডির ছয় মিনিটের দুই গোলে বাসকুয়েসরা ৭১ মিনিটে ৪-৩ গোলের লিড পায়। ৮৫ মিনিটে জাপানীজ মিডফিল্ডার টাকেফুসা কুবোর গোলে লা রিয়ালের জয় নিশ্চিত হয়। এই জয়ে সাত ম্যাচে ওসাসুনার সাথে সমান ১৩ পয়েন্ট নিয়ে টেবিলের সপ্তম স্থানে উঠে এসেছে সোসিয়েদাদ।
ঘরের মাঠে রিয়াল বেটিসকে ১-০ গোলে পরাজিত করেছে সেল্টা ভিগো। ২০ মিনিটে ইতালিয়ান ডিফেন্ডার লুইজ ফিলিপ লাল কার্ড দেখে মাঠ ত্যাগে বাধ্য হলে বাকিটা সময় বেটিসকে ১০ জন নিয়ে খেলতে হয়েছে। এর আগে ৯ মিনিটে গ্যাব্রিয়েল ভেইগার দুরপাল্লার শটে সেল্টা এগিয়ে গিয়েছিল। পুরো ম্যাচে আর গোল পরিশোধ করতে পারেনি বেটিস। পরাজয় সত্তেও বেটিস টেবিলের চতুর্থ স্থানটি ধরে রেখেছে। অন্যদিকে মায়োর্কাকে টপকে ১০ম স্থানে উঠে এসেছে সেল্টা।

  • সর্বশেষ
  • জনপ্রিয়