BSS-BNhrch_cat_news-24-5
বাসস
  ২৬ সেপ্টেম্বর ২০২২, ১৪:২৫

নেশন্স লিগের সেমিফাইনালে ক্রোয়েশিয়া, নেদারল্যান্ড, কোনমতে রেলিগেশন এড়ালো ফ্রান্স

লন্ডন, ২৬ সেপ্টেম্বর, ২০২২ (বাসস) : নেশন্স লিগের শেষ চার নিশ্চিত করেছে ক্রোয়েশিয়া ও নেদারল্যান্ড। এদিকে ডেনমার্কের কাছে পরাজিত হয়ে কোনমতে রেলিগেশন এড়িয়েছে বর্তমান চ্যাম্পিয়ন ফ্রান্স। 
ড্যানিশদের কাছে লেস ব্লুজরা এ্যাওয়ে ম্যাচে ২-০ গোলে পরাজিত হয়ে ছয়টি গ্রুপ ম্যাচে মাত্র একটি জয় নিয়ে নেশন্স লিগের মিশন শেষ করেছে। কিন্তু গ্রুপ-এ১’র আরেক ম্যাচে ক্রোয়েশিয়া অস্ট্রিয়াকে ৩-১ গোলে বিধ্বস্ত করায় বিশ্ব চ্যাম্পিয়নদের অবনমন রক্ষা পায়। তলানিতে থাকা অস্ট্রিয়ার থেকে এক পয়েন্ট এগিয়ে ফ্রান্স গ্রুপ টেবিলের তৃতীয় স্থানে থেকে এবারের আসর শেষ করেছে। আগামী ২২ নভেম্বর অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে বিশ্বকাপ অভিযান শুরু করার আগে বর্তমান চ্যাম্পিয়নরা তাদের শিরোপা ধরে রাখার লক্ষ্যে গুরুত্বপূর্ণ খেলোয়াড়দের ইনজুরি থেকে ফিরিয়ে আনতে পারবে বলে আশাবাদী ফরাসি কোচ দিদিয়ের দেশ্যম। 
এ সম্পর্কে দেশ্যম বলেছেন, ‘এটা ছিল তারুণ্য নির্ভর  একটি 
 দল। যাদের বেশীরভাগেরই আন্তর্জাতিক ম্যাচে সর্বোচ্চ পর্যায়ে খেলার কোন অভিজ্ঞতা নেই। আজকের ম্যাচটা ছিল বাস্তবতা। আগামী দুই মাস এখন আমাদের অপেক্ষা করা ছাড়া আর কোন উপায় নেই।’
কাতারে বিশ্বকাপের গ্রুপ পর্বেও ডেনমার্কের মুখোমুখি হতে হবে ফ্রান্সকে। ইউরো ২০২০ সেমিফাইনালিস্ট ডেনমার্ক ইতোমধ্যেই যেভাবে পারফর্ম করেছে তাতে প্রমানিত হয় দুই মাস সময়ের মধ্যে তারা আরো ভয়ঙ্কর হয়ে উঠতে পারে। কোপেনহেগেনে  কাল দুটি গোলই এসেছে বিরতির আগে। ৩৩ মিনিটে মিকেল ডামসগার্ডের ক্রস থেকে কাসপার ডোলবার্গ প্রথমে গোল করে ডেনমার্ককে এগিয়ে দেন। ছয় মিনিট পর আন্দ্রেস স্কোভ ওলসেনের ভলিতে ব্যবধান দ্বিগুন হয়।
ইনজুরির কারনে কাল ফ্রান্স দলে ছিলেন না হুগো লোরিস, জুলেস কুন্ডে, এন’গোলে কান্টে, পল পগবা, ওসমানে ডেম্বেলে ও করিম বেনজেমা। কিন্তু আঁতোয়ান গ্রীজম্যান, অলিভার গিরুদ ও কিলিয়াম এমবাপ্পেকে নিয়ে সাজানো তারকা খচিত আক্রমনভাগ ছিল সম্পূর্ণ ব্যর্থ। কোনভাবেই তারা ফ্রান্সকে ম্যাচে ফিরিয়ে আনার কোন সুযোগ তৈরী করতে পারেনি। 
ডেনমার্কের এই জয়ে শীর্ষস্থান নিশ্চিতের জন্য অস্ট্রিয়ার বিপক্ষে পূর্ণ তিন পয়েন্টের প্রয়োজন ছিল ক্রোয়েশিয়ার। ২০১৮ ফাইনালিস্টদের উড়ন্ত সূচনা এনে দেন তারকা মিডফিল্ডার লুকা মড্রিচ। ৬ মিনিটে মড্রিচের গোলে এগিয়ে যায় ক্রোয়েটরা। কিন্তু তিন মিনিটের মধ্যে ক্রিস্টোফ বমগার্টনারের হেডে সমতায় ফিরে অস্ট্রিয়া। দ্বিতীয়ার্ধে ৬৯ ও ৭২ মিনিটে মার্কো লিভায়া ও ডিয়ান লোভরেনের পরপর দুই গোলে শেষ পর্যন্ত ক্রোয়েশিয়ার জয় নিশ্চিত হয়। 
ম্যাচ শেষে মড্রিচ বলেছেন, ‘অস্ট্রিয়া আমাদের জীবন কঠিন করে তুলেছিল। কিন্তু শেষভাগে জয়টা আমাদের প্রাপ্য ছিল। গ্রুপে শীর্ষে থাকতে পেরে আমি দারুন খুশী।’
বড় এই পরাজয়ে অস্ট্রিয়া লিগ-বি’তে রেলিগেটেড হয়ে গেছে। 
আরেক ম্যাচে বেলজিয়ামকে ১-০ গোলে পরাজিত করে গ্রুপ-এ৪’র শীর্ষস্থান নিশ্চিত করেছে নেদারল্যান্ড। আমাস্টারডামের ইয়োহান ক্রুইফ এরেনাতে ম্যাচের ১৭ মিনিটে ভার্জিল ফন ডিকের হেডের গোলে ডাচদের জয় নিশ্চিত হয়। এর আগে ব্রাসেলসে বেলজিয়ামের বিপক্ষে ৪-১ গোলের বড় জয় দিয়ে নেশন্স লিগ শুরু করেছিল নেদারল্যান্ড। গ্রুপের শীর্ষস্থান নিশ্চিতে তাদের শুধুমাত্র তিন গোলের ব্যবধানের পরাজয় এড়াতে হতো। পুরো ম্যাচে বেলজিয়ামের ফিরে আসার কোন লক্ষ্মন দেখা যায়নি। কর্ণার থেকে পোস্টের মাত্র ছয় গজ দূরত্বে অনেকটা ফাঁকায় দাঁড়িয়ে থাকা ফন ডিক হেডের সাহায্যে দলকে এগিয়ে দিতে কোন ভুল করেননি। 
একই গ্রুপের ঘরের মাঠে পোল্যান্ডের কাছে ১-০ গোলে হেরে রেলিগেটেড হয়ে গেছে ওয়েলস। কার্ডিফে রবার্ট লিওয়ানদোস্কির থ্রু বলে কারোল সুইডার্স্কির একমাত্র গোলে ৫৭ মিনিটে পোল্যান্ডের জয় নিশ্চিত হয়। 
ফারো আইসল্যান্ডের কাছে ২-১ গোলে পরাজিত হয়ে হতাশ করলেও আগেই লিগ-সি থেকে প্রোমশন নিশ্চিত হয়ে গিয়েছিল তুরষ্কের। ফিফা বিশ্ব র‌্যাঙ্কিংয়ে ৮৩ ধাপ পিছিয়ে থাকা আইসল্যান্ডের  কাছে তুরষ্কের এই পরাজয় সত্যিই লজ্জাজনক।
 

  • সর্বশেষ
  • জনপ্রিয়