BSS-BNhrch_cat_news-24-5
বাসস
  ২৬ সেপ্টেম্বর ২০২২, ১৩:৫৭

কোহলি-সূর্যের আলোয় অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে সিরিজ জিতলো ভারত

হায়দারাবাদ, ২৬ সেপ্টেম্বর ২০২২ (বাসস) : বিরাট কোহলি ও সূর্যকুমার যাদবের ব্যাটিং নৈপুন্যে বিশ্ব  চ্যাম্পিয়ন অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে নিজ মাঠে  টি-টোয়েন্টি সিরিজ জিতলো ভারত।
গতরাতে সিরিজের তৃতীয় ও শেষ টি-টোয়েন্টিতে ভারত ৬ উইকেটে হারিয়েছে অস্ট্রেলিয়াকে। এই জয়ে  তিন ম্যাচের সিরিজ ২-১ ব্যবধানে জিতলো টিম ইন্ডিয়া। কোহলি ৬৩ ও সূর্য ৬৯ রান করেন।
সিরিজের শেষ ম্যাচ জিতে এক বর্ষপঞ্জিকায় সবচেয়ে বেশি টি-টোয়েন্টি জয়ের বিশ^রেকর্ড গড়লো ভারত। এ বছর টি-টোয়েন্টিতে এটি ভারতের ২১তম জয় । গেল বছর ২০টি জয়ে বিশ^রেকর্ড গড়েছিলো পাকিস্তান। সেই  রেকর্ড এখন ভারতের দখলে।  
হায়দারাবাদে টস জিতে প্রথমে অস্ট্রেলিয়াকে ব্যাটিংয়ে পাঠায় ভারত। ওপেনার ক্যামেরুন গ্রিনের ঝড়ো ইনিংসের সুবাদে ৫ ওভারেই ৬২ রান তুলে নেয়  অস্ট্রেলিয়া। ২১ বলে ৭টি চার ও ৩টি ছক্কায় ৫২ রান করে ভারতীয়  পেসার ভুবেনশ^র কুমারের বলে গ্রিন আউট হলে প্রথম উইকেট হারায় সফরকারী অস্ট্রেলিয়া।
গ্রিন ঝড়ের মাঝে নিষ্প্রভ ছিলো অস্ট্রেলিয়ার টপ-অর্ডার। অধিনায়ক অ্যারন ফিঞ্চ ৭, স্টিভেন স্মিথ ৯ ও গ্লেন ম্যাক্সওয়েল ৬ রান করে ফিরেন।
৮৪ রানে ৪ উইকেট পতনের পর জশ ইংলিশকে নিয়ে ২৪ বলে ৩১ রান তুলেন গ্রিন। ইনিংসের ১৪তম ওভারে ইংলিশ ও উইকেটরক্ষক ম্যাথু ওয়েডকে থামিয়ে অস্ট্রেলিয়াকে চাপে ফেলেন ভারতের বাঁ-হাতি স্পিনার অক্ষর প্যাটেল। ইংলিশ ২৪ ও ওয়েড ১ রান করে আউট হলে ১১৭ রানে ষষ্ঠ উইকেট হারায় অসিরা।
১৪তম ওভারে চাপে পড়লেও, শেষ ৬ ওভারে দারুন ব্যাটিংয়ে অস্ট্রেলিয়াকে বড় সংগ্রহ এনে দেন ডেভিড ও ড্যানিয়েল সামস। সপ্তম উইকেটে ৩৪ বলে ৬৮ রানের গুরুত্বপূর্ণ জুটি গড়েন তারা। সামস ২০ বলে ২৮ রান করেন।
শেষ ওভারের প্রথম বলে ছক্কায় ২৫ বলে অস্ট্রেলিয়ার হয়ে প্রথম হাফ-সেঞ্চুরি করেন ডেভিড। শেষ পর্যন্ত ২টি চার ও ৪টি ছক্কায় ২৭ বলে ৫৪ রানে থামেন তিনি। এতে ২০ ওভারে ৭ উইকেটে ১৮৬ রানের সংগ্রহ পায় অস্ট্রেলিয়া। ভারতের প্যাটেল ৩৩ রানে ৩ উইকেট নেন।  
১৮৭ রানের টার্গেটে চতুর্থ ওভারের মধ্যে প্যাভিলিয়নে ফিরেন ভারতের দুই ওপেনার লোকেশ রাহুল ও অধিনায়ক রোহিত শর্মা। রাহুল ১ ও রোহিত ১৭ রান করেন।
৩০ রানে ২ উইকেট হারানোর পর ভারতের ত্রাতা হয়ে আসেন  কোহলি-সূর্য। ১০ ওভারে ভারতকে ৯১ রান এনে দেন তারা। ১৩তম ওভারে ছক্কা হাকিয়ে  টি-টোয়েন্টিতে ২৯ বলে সপ্তম অর্ধশতকের দেখা পান সূর্য।  শেষ পর্যন্ত ৩৬ বলে ৫টি চার ও ৫টি ছক্কায় ৬৯ রান তুলে আউট হন এ তরুণ ব্যাটার।   তৃতীয় উইকেটে কোহলির সাথে ৬২ বলে ১০৪ রানের জুটি গড়ে ভারতকে জয়ের পথে রাখেন সূর্য।
সূর্য ফেরার পর ৩৭ বলে টি-টোয়েন্টিতে ৩৩তম হাফ-সেঞ্চুরি করেন কোহলি।  জয় জন্য শেষ চার ওভারে ৩৯ রান সমীকরণ দাঁড় করায় ভারত।
আর শেষ ওভারে ১১ রানের প্রয়োজনে প্রথম বলে ছক্কা মারেন কোহলি। পরের বলেই বিদায় নেন তিনি। এরপর  পঞ্চম বলে চার মেরে ভারতের জয় নিশ্চিত করেন হার্ডিক পান্ডিয়া।
৩টি চার ও ৪টি ছক্কায় ৪৮ বলে ৬৩ রান করেন ফর্মে ফেরা কোহলি। ১৬ বলে ২টি চার ও ১টি ছক্কায় অপরাজিত ২৫ রান করেন পান্ডিয়া। ম্যাচ সেরা হন সূর্য। আর সিরিজ সেরা হন প্যাটেল।

  • সর্বশেষ
  • জনপ্রিয়