BSS-BNhrch_cat_news-24-5
বাসস
  ১৮ আগস্ট ২০২২, ১৯:৫৯
আপডেট  : ১৮ আগস্ট ২০২২, ২০:১১

আত্মবিশ্বাসী সাকিবে এশিয়া কাপ নিয়ে আশাবাদী পাপন

ঢাকা, ১৮ আগস্ট ২০২২ (বাসস) : ক্রিকেটের সংক্ষিপ্ততম ফরম্যাটে বাংলাদেশের দুর্বলতা সত্ত্বেও আসন্ন এশিয়া কাপে টাইগারদের সাফল্যের ব্যাপারে আত্মবিশ্বাসী বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের (বিসিবি) সভাপতি নাজমুল হাসান পাপন।
সদ্য জিম্বাবুয়ের কাছে ২-১ ব্যবধানে সিরিজ হারসহ সর্বশেষ ১০ ম্যাচের মধ্যে মাত্র দু’টি টি-টোয়েন্টি ম্যাচ জিতেছে বাংলাদেশ। এমনকি টি-টোয়েন্টি ফরম্যাটে জিম্বাবুয়ের কাছে প্রথমবারের মত সিরিজ হারের স্বাদ পেয়েছে টাইগাররা।
সেই হারের ক্ষত নিয়েই  টি-টোয়েন্টি ফরম্যাটে আসন্ন এশিয়া কাপ খেলবে টাইগাররা। এরমধ্যে, ইনজুরির কারনে  বেশ কিছু খেলোয়াড়ও রয়েছেন দলের বাইরে।
এশিয়া কাপের গ্রুপ পর্বে বাংলাদেশের প্রতিপক্ষ আফগানিস্তান ও শ্রীলংকা। সুপার ফোরের টিকিট পাওয়াটা বাংলাদেশের জন্য চ্যালেঞ্জিং হবে এতে কোন সন্দেহ নেই।
তবে বিসিবি বস মনে করেন, অধিনায়ক হিসেবে সাকিব আল হাসান দলের দায়িত্ব্ নেয়ায় এশিয়া কাপে ভালো করার আত্মবিশ^াস পেয়েছে দল।
অনেক বিতর্কের পর সাকিবকে অধিনায়ক করার পেছনে বোর্ডের যুক্তি ছিল, অভিজ্ঞতা। পাপন জানান, নিজের অভিজ্ঞতা সবার মধ্যে ছড়িয়ে দেয়ার চেষ্টা করছেন সাকিব।
আজ মিরপুর শেরে বাংলা জাতীয় ক্রিকেট স্টেডিয়ামে হঠাৎ করে বাংলাদেশের খেলোয়াড়দের অনুশীলন দেখতে এসে সাংবাদিকদের পাপন বলেন, ‘সাকিবের সাথে নিয়মিত কথা বলি। সোহান-লিটনের মতো অনেক খেলোয়াড়ের সাথেও কথা বলেছি। আজ আমি জানতে চেয়েছিলাম, সে (সাকিব) কি ভাবছে। একটা জিনিস দেখলাম, সাকিব আত্মবিশ্বাসী। অবশ্য, সবসময় আত্মবিশ্বাস থাকে তার। তবে এই মুহূর্তে এমন আত্মবিশ্বাকসী  থাকাটা আরও বেশি গুরুত্বপূর্ণ।’
তিনি আরও বলেন, ‘আমি জিততে পারি, আমার এই বিশ্বাস থাকতে হবে। আমি খেলতে গিয়েছিলাম, তবে আমি হার-জয় নিয়ে ভাববো না। তবে জিততে পারার বিশ্বাস থাকাটা দরকার। দেখে খুশি হলাম। হার-জয় বড় কথা নয়, আমি মনে করি, আমাদের সামর্থ্য সম্পর্কে বিশ্বাস থাকা উচিত। আমি খুশি যে, সাকিবের সেই বিশ্বাস আছে। আমি মনে করি  বড় প্রতিযোগিতার আগে অধিনায়কের এমন মনোভাব গুরুত্বপূর্ণ।’
২০১৬ এবং ২০১৮ সালে এশিয়া কাপের শেষ দু’টি আসরে ফাইনাল খেলে বাংলাদেশ। দু’বারই ভারতের কাছে হারের স্বাদ নেয় টাইগাররা। এবার ফাইনালের জন্য কঠিন পথ পাড়ি দিতে হবে তাদের।
গ্রুপ পর্বে আফগানিস্তান ও শ্রীলংকার বিপক্ষে জিতে সুপার ফোরে উঠতে হবে বাংলাদেশকে। সুপার ফোরে একে অপরের বিপক্ষে খেলবে চারটি দল। সর্বোচ্চ পয়েন্টের ভিত্তিতে শীর্ষ দুই দল খেলবে ফাইনাল।
বাংলাদেশের জন্য কাজটি কঠিন হলেও, অসম্ভব নয়। টি-টোয়েন্টি ফরম্যাটে অংশ নেয়া প্রতিটি দলকে হারানোর অভিজ্ঞতা আছে টাইগারদের।
তাই দলকে নিয়ে আশাবাদি পাপন, ‘এই ফরম্যাটে আমাদের পারফরমেন্স আহামরি কিছু না হলেও, এবার দলের সম্ভাবনা নিয়ে সত্যিই আশাবাদী। দেখা যাক কি হয়।’
 

  • সর্বশেষ
  • জনপ্রিয়
বেটা ভার্সন