BSS-BNhrch_cat_news-24-5
বাসস
  ০৫ আগস্ট ২০২১, ১৯:১৩

শেখ কামালের আদর্শ তারুণদের মাঝে ছড়িয়ে দিতে হবে : আব্দুর রাজ্জাক

ঢাকা, ৫ আগস্ট, ২০২১ (বাসস) : আওয়ামী লীগের সভাপতিমন্ডলীর সদস্য ও কৃষি মন্ত্রী ড. আব্দুর রাজ্জাক বলেছেন, বহুমাত্রিক প্রতিভার অধিকারী শেখ কামাল ছিলেন অত্যন্ত সৃজনশীল ও সংস্কৃতি অঙ্গনের উজ্জ্বল নক্ষত্র।
আজ বৃহস্পতিবার বঙ্গবন্ধু অ্যাভিনিউস্থ আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে ‘বঙ্গবন্ধুর জ্যেষ্ঠপুত্র বীর মুক্তিযোদ্ধা শহীদ ক্যাপ্টেন শেখ কামালের ৭২তম জন্মশতবার্ষিকী উপলক্ষে আয়োজিত আলোচনা সভায় তিনি এসব কথা বলেন। ঢাকা মহানগর দক্ষিণ আওয়ামী লীগ এ আলোচনা সভায় আয়োজন করে।
আব্দুর রাজ্জাক বলেন, ‘দেশে যুবসমাজের অবক্ষয় ও অপসংস্কৃতিরোধে শহীদ শেখ কামালের আদর্শ ও চেতনাকে তারুণদের মাঝে ছড়িয়ে দিতে হবে। শেখ কামাল ছিলেন অনন্য ক্রীড়া সংগঠক, যিনি খেলাধুলায় নতুন যুগের সূচনা করেছিলেন। তিনি বেঁচে থাকলে বাংলাদেশ বিশ্ব ক্রীড়াঙ্গনে বিভিন্ন খেলায় অনন্য উচ্চতায় পৌঁছতে পারত।’
আওয়ামী লীগের সভাপতিমন্ডলীর সদস্য বলেন, অনেক রাজনীতিবিদের ছেলেদের পদস্খলন হয়। কিন্তু শেখ কামাল-এর মধ্যে আমরা উদ্যম দেখেছি। তিনি বেঁচে থাকলে দেশ পরিচালনায় অনন্য ভূমিকা রাখতেন। বঙ্গববন্ধু এবং শেখ কামাল বেঁচে থাকলে বাংলাদেশ অনেক আগেই উন্নত রাষ্ট্রের তালিকায় থাকতো।
আব্দুর রাজ্জাক বলেন, দেশের কিছু তথাকথিত সেলিব্রেটি সমাজে অপসংস্কৃতি ছড়াচ্ছে। বিতর্কিত কর্মকান্ড দিয়ে তরুণ সমাজ ও জাতিকে তারা বিভ্রান্ত করছে। তাদের মুখোশ উন্মোচনে কঠোর অভিযান চলছে। অপসংস্কৃতি রোধে এ অভিযান চলমান থাকবে।
আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মাহবুব উল আলম হানিফ বলেন, দল ক্ষমতায় থাকায় অনেকে নেতা হতে উদগ্রীব হয়ে আছেন। তাদের আদর্শ নেই। আওয়ামী লীগ করতে গেলে আদর্শ ধারণ করতে হবে।
তিনি বলেন, পদ-পদবী না পেয়ে নামের আগে পরে যারা লীগ যোগ করছে, বঙ্গবন্ধুর নাম ব্যবহার করছে, এরা আদর্শিক কর্মী হতে পারে না। আওয়ামী লীগের লাখ লাখ কর্মী আছে, সবাই তো পদধারী না। আজকে যারা হঠাৎ নেতা হতে চায়, তারা ধান্ধাবাজ, প্রতারক। এদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া হচ্ছে।
আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক আ. ফ. ম. বাহাউদ্দিন নাছিম বলেন,  শেখ কামাল ছিলেন সাহসী সন্তান। ১৫ আগস্ট প্রতিরোধের প্রথম যোদ্ধা ছিলেন তিনি। প্রথমেই জীবন দিয়ে প্রমাণ করেছিলেন, বাঙালিরা ভীতু নয়। শহীদ শেখ কামালের মতো অসংখ্য সাহসী সন্তান আমাদের প্রয়োজন।
ঢাকা মহানগর দক্ষিণ আওয়ামী লীগের সভাপতি আবু আহমেদ মন্নাফীর সভাপতিত্বে সাধারণ সম্পাদক হুমায়ুন কবিরের সঞ্চালনায় আলোচনা সভায় আরও বক্তৃতা করেন আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক মির্জা আজম, ঢাকা মহানগর দক্ষিণ আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি নুরুল আমিন রুহুল এমপি ও ডা. দিলীপ কুমার রায়, যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক কাজী মোরশেদ হোসেন কামাল ও মহিউদ্দিন মহি, দফতর সম্পাদক রিয়াজ উদ্দিন রিয়াজ প্রমুখ বক্তব্য রাখেন।

 

  • সর্বশেষ
  • জনপ্রিয়