BSS-BNhrch_cat_news-24-5
বাসস
  ০৩ জুলাই ২০২২, ১৬:১০

নারীর ক্ষমতায়নই শুধু নয়; আর্থিক সমৃদ্ধিও নিশ্চিত করেছে সরকার : পলক

নাটোর, ৩ জুলাই, ২০২২ (বাসস): তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক বলেছেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বাধীন সরকার নারীর ক্ষমতায়নই শুধু নয়; তাদের আর্থিক সমৃদ্ধিও নিশ্চিত করেছে।
প্রতিমন্ত্রী আজ স্থানীয় অনিমা চৌধুরী অডিটোরিয়ামে বাংলাদেশ যুব মহিলা লীগ নাটোর জেলা শাখার ত্রি-বার্ষিক সম্মেলনে একথা বলেন।
সম্মেলনে প্রধান অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন জেলা আওয়ামী লীগ সভাপতি অধ্যাপক আব্দুল কুদ্দুস এমপি এবং প্রধান বক্তা ছিলেন জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মো. শরিফুল ইসলাম রমজান। বাংলাদেশ যুব মহিলা লীগের সাধারণ সম্পাদক অধ্যাপিকা অপু উকিল সম্মেলনের উদ্বোধন করেন। 
সম্মেলনে বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন নাটোর-২ আসনের সংসদ সদস্য মো. শফিকুল ইসলাম শিমুল, নাটোর-১ আসনের সংসদ সদস্য মো. শহিদুল ইসলাম বকুল, সংরক্ষিত নারী আসনের সংসদ সদস্য রতœা আহমেদ ও নাটোর পৌরসভার মেয়র উমা চৌধুরী জলি প্রমুখ। নাটোর জেলা যুব মহিলা লীগের সভাপতি আঞ্জুমান আরা পপি সভা প্রধানের দায়িত্ব পালন করেন।
প্রতিমন্ত্রী পলক বলেন, নারীর ক্ষমতায়নে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা প্রত্যেক ইউনিয়ন পরিষদ, উপজেলা পরিষদ এবং জেলা পরিষদে সরাসরি ভোটে নারী প্রতিনিধি নির্বাচনের ব্যবস্থা করে দিয়েছেন, যেন এলাকার নারীদের ক্ষমতায়নে নির্বাচিত প্রতিনিধিরা ভূমিকা রাখতে পারেন। জাতীয় সংসদে সংরক্ষিত নারী সংসদ সদস্যের সংখ্যা বৃদ্ধি করে ৫০ করেছেন তিনি। নারীদের সম্মান, মর্যাদা এবং নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে প্রধানমন্ত্রী সকল সনদপত্রে পিতার নামের পাশাপাশি মায়ের নাম সংযোজন করে দিয়েছেন।
প্রতিমন্ত্রী বলেন, ২০০৮ সালে জননেত্রী শেখ হাসিনা প্রযুক্তি নির্ভর ডিজিটাল বাংলাদেশ বাস্তবায়নের ঘোষণা দেন। এই প্লাটফর্ম নারীদের কর্মসংস্থান এবং তাদের মধ্য থেকে উদ্যোক্তা তৈরি করে অর্থনৈতিক ক্ষেত্রে নারীদের স্বাবলম্বী হবার সুযোগ তৈরি করে দিয়েছে। সারাদেশে সাড়ে ৮ হাজার ইউনিয়ন ডিজিটাল সেন্টার তৈরি করে ১ কোটি মানুষকে স্বল্প মূল্যে অনায়াসে দূর্নীতিমুক্ত নাগরিক সেবা প্রদান করা হচ্ছে। এসব ডিজিটাল সেন্টারে একজন মেয়ে উদ্যোক্তা কাজ করে যাচ্ছেন। ই-কমার্সে ৩ লাখ নারী উদ্যোক্তা কাজ করছেন। নাটোরের গুরুদাসপুরের সফল উদ্যোক্তা সুহা উইমেন ই-কমার্স প্লাটফর্মে সফল হয়েছেন এবং এখন তিনি নারী ই-কমার্স উদ্যোক্তা তৈরিতে কাজ করছেন।
ডিজিটাল বাংলাদেশে নারীদের অর্থনৈতিক সমৃদ্ধি অর্জনের লক্ষ্যে সারাদেশে ২ হাজার নারী ই-কমার্স উদ্যোক্তাকে ৫০ হাজার টাকা করে অনুদান প্রদান করা হবে অচিরেই। প্রধানমন্ত্রীর দিক নির্দেশনায় ‘হার পাওয়ার’ নামে ২৫০ কোটি টাকা ব্যয়ে ২৫ হাজার নারী উদ্যোক্তা তৈরির পদক্ষেপ গ্রহণ করা হয়েছে। এই প্রকল্পে নারী উদ্যোক্তারা তাদের শক্তি, মেধা ও প্রযুক্তি ব্যবহার করে ফ্রিল্যান্সার, ই-কমার্স উদ্যোক্তা, কল-সেন্টার এজেন্ট এবং মেইনটেন্যান্স ইঞ্জিনিয়ার হবে। 

 

  • সর্বশেষ
  • জনপ্রিয়
বেটা ভার্সন