BSS-BNhrch_cat_news-24-5
বাসস
  ০১ ডিসেম্বর ২০২১, ১৫:০৯

জাতীয় অধ্যাপক রফিকুল ইসলামের মরদেহ কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে নেয়া হচ্ছে

ঢাকা, ১ ডিসেম্বর, ২০২১(বাসস): জাতীয় অধ্যাপক একুশে পদক ও স্বাধীনতা পদকপ্রাপ্ত এবং জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মশতবার্ষিকী উদযাপন জাতীয় বাস্তবায়ন কমিটির সভাপতি রফিকুল ইসলামের মরদেহ সর্বস্তরের জনগণের শ্রদ্ধা নিবেদনের জন্য দুপুর দু’টায় কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে রাখা হবে। 
এ দিকে আজ বাংলা একাডেমি সূত্র জানায়, দুপুর একটায় ১টায় বাংলা একাডেমি প্রাঙ্গণে শ্রদ্ধা নিবেদনের জন্য রাখা হয়েছে। 
পরে এর পর বাদ আছর জানাজা শেষে মরহুমের লাশ আজিমপুর কবরস্থানে দাফন করা হবে।
রফিকুল ইসলাম গতকাল মঙ্গলবার রাজধানীর এভারকেয়ার হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যান। তার বয়স হয়েছিল ৮৭ বছর। 
জাতীয় অধ্যাপক রফিকুল ইসলাম পেটের ব্যথা নিয়ে গত ৭ অক্টোবর বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তি হয়েছিলেন। বিভিন্ন পরীক্ষা-নিরীক্ষার পর তার ফুসফুসে পানি জমেছে বলে জানান চিকিৎসকরা। সে সময় তাকে সেখানে রেসপিরেটরি মেডিসিন বিভাগের অধ্যাপক ডা. এ কে এম মোশাররফ হোসেনের অধীনে চিকিৎসা দেয়া হচ্ছিল। পরে অবস্থার অবনতি হলে ২১ নভেম্বর বিএসএমএমইউ থেকে এভারকেয়ার হাসপাতালে তাকে স্থানান্তর করা হয়। চিকিৎসাধীন অবস্থায় গতকাল মঙ্গলবার সেখানে মারা যান তিনি।
উল্লেখ্য, রফিকুল ইসলাম ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের বাংলা বিভাগের অধ্যাপক ছিলেন। ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের বাংলা বিভাগের প্রথম নজরুল অধ্যাপক ও নজরুল গবেষণা কেন্দ্রের প্রথম পরিচালকও ছিলেন তিনি। তিনি বাংলা একাডেমির সভাপতি, ফেলো, মহাপরিচালক হিসেবেও দায়িত্ব পালন করেছেন। ইউনিভার্সিটি অব লিবারেল আর্টসের উপাচার্য ছিলেন। জাতীয় অধ্যাপক  রফিকুল ইসলাম শিক্ষা, সাহিত্য ও গবেষণায় অবদানের জন্য স্বাধীনতা পুরস্কার ও একুশে পদক পেয়েছেন। এ ছাড়া তিন বছর বাংলা একাডেমির সভাপতির দায়িত্বও পালন করেন তিনি।

 

  • সর্বশেষ
  • জনপ্রিয়
বেটা ভার্সন