বাসস দেশ-২১ : শাহজালালে আমদানি নিষিদ্ধ ৩০ লাখ টাকার ওষুধ ও সিগারেট জব্দ

494

বাসস দেশ-২১
আমদানি নিষিদ্ধ সিগারেট-জব্দ
শাহজালালে আমদানি নিষিদ্ধ ৩০ লাখ টাকার ওষুধ ও সিগারেট জব্দ
ঢাকা, ২ জুন, ২০১৮ (বাসস): হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে পরিত্যক্ত অবস্থায় আমদানি নিষিদ্ধ বিদেশি ওষুধ ও সিগারেট জব্দ করেছেন শুল্ক গোয়েন্দা ও তদন্ত অধিদপ্তরের কর্মকর্তারা। জব্দকৃত ওষুধ ও বিদেশী সিগারেটের বাজার মূল্য প্রায় ৩০ লাখ টাকা। এঘটনায় কাউকে আটক করা যায়নি।
শুল্ক গোয়েন্দা ও তদন্ত অধিদপ্তরের মহাপরিচালক (ডিজি) ড. মো: শহিদুল ইসলাম আজ বাসসকে এ তথ্য জানান।
তিনি বলেন, আজ শনিবার শ্রীলঙ্কা থেকে ছেড়ে আসা ইউএল-১৮৯ নম্বরের ফ্লাইটটি হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে বেলা সাড়ে ১১টার দিকে অবতরণ করে। গোপন সংবাদের ভিত্তিতে শুল্ক গোয়েন্দারা ব্যাগেজ বেল্টসহ গ্রিন চ্যানেল এরিয়া বিশেষ নজরদারিতে রাখেন। যাত্রীরা ৮নম্বর বেল্ট থেকে লাগেজ সংগ্রহ করে গ্রিন চ্যানেল পার হয়ে চলে যাওয়ার পর ১টি লাগেজ দীর্ঘক্ষণ ধরে ব্যাগেজ বেল্টে এলাকায় পড়ে থাকে। পরে শুল্ক গোয়েন্দারা বিমানবন্দরের কাস্টমস হলে বিভিন্ন সংস্থার উপস্থিতিতে লাগেজ খুলেন এবং তার ভেতরে বিপুল পরিমাণ বিদেশি ওষুধ ও সিগারেটগুলো জব্দ করেন।
আটককৃত ওষুধগুলোর মধ্যে রয়েছে-রিটালিন ট্যাবলেট ১১৭০ পাতা, কেভিনটন ২৫০ পাতা, প্রোজ্যাক (ট্যাবলেট) ৭০০ পাতা, ইকট্যারেন্স (ট্যাবলেট) ১৭৫ পাতা, প্লাভিক্স (ট্যাবলেট) ২৪০ পাতা এবং মোর ও ইজি ব্র্যান্ডের ৩০ কার্টন সিগারেট।
জব্দকৃত ওষুধগুলো নোভাট্রিজ ব্র্যান্ডের। পণ্যের শুল্ককরসহ আটক ওষুধ ও সিগারেটের বাজারমূল্য প্রায় ৩০ লাখ টাকা।
আটক পণ্যের বিষয়ে শুল্ক আইনে ব্যবস্থা নেয়া হয়েছে। আমদানি নীতি আদেশ অনুযায়ী, ওষুধশিল্প প্রশাসনের অনুমতি ব্যতিরেকে বিদেশি ওষুধ আমদানি করা যায় না।
বাসস/সংবাদদাতা/এমএমবি/২০৪২/শহক