বাসস দেশ-২৯ : ক্রয়সীমার মধ্যে সেবা দিতে হবে : বিদ্যুৎ প্রতিমন্ত্রী

313

বাসস দেশ-২৯
ক্রয়সীমার মধ্যে সেবা দিতে হবে : বিদ্যুৎ প্রতিমন্ত্রী
ঢাকা, ২৪ ডিসেম্বর, ২০১৮ (বাসস) : বিদ্যুৎ, জ্বালানি ও খনিজ সম্পদ প্রতিমন্ত্রী নসরুল হামিদ বলেছেন, বিদ্যুৎ খাতে মানুষের আস্থা ও বিশ্বাস অর্জনের প্রয়োজনীয়তা ভবিষ্যতে আরো বাড়বে। মানুষ শুধু বিদ্যুৎ পেয়েই সন্তুষ্ট নয়। তারা মানসম্পন্ন নিরবচ্ছিন্ন বিদ্যুৎ চায়। প্রযুক্তির ব্যবহার বাড়াতে হবে, মানুষের ক্রয়সীমার মধ্যে সেবা পৌঁছে দিতে হবে। সরকার এসব নিয়ে কাজ করছে।
প্রতিমন্ত্রী আজ বিদ্যুৎ ভবনে বিদ্যুৎ উন্নয়ন বোর্ডের সাথে ডিপিডিসি ও আরইবি’র বিদ্যুৎ বিক্রয় চুক্তি স্বাক্ষর অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে এসব কথা বলেন। তিনি বলেন, দ্রুততার সাথে ঘরে ঘরে বিদ্যুৎ পৌঁছে দেয়া হয়েছে। ৯৪ ভাগ এলাকায় বিদ্যুৎ পৌঁছে গেছে। ৫৫ লাখ সোলার হোম সিস্টেম ব্যবহৃত হচ্ছে। রূপকল্প ২০২১ পেরিয়ে রূপকল্প ২০৪১ বাস্তবায়নে ঐক্যবদ্ধ প্রচেষ্টা চালাতে হবে।
বিদ্যুতের একক ক্রেতা হিসেবে পিডিবির সাথে অন্যান্য বিতরণ সংস্থার বিদ্যুৎ বিক্রয় ও ক্রয় চুক্তি সম্পন্ন করার জন্য বাংলাদেশ এনার্জি রেগুরেটরি কমিশনের নির্দেশনা রয়েছে। এরই আলোকে আজ পিডিবি’র সাথে আরইবি এবং ডিপিডিসি চুক্তি সম্পাদন হলো। এ চুক্তির ফলে চুক্তিবদ্ধ সংস্থাসমূহ বিদ্যুৎ বিক্রয় ও ক্রয়ের আইনগত কাঠামোর আওতায় আসলো। চুক্তির মাধ্যমে পরস্পরিক স্বার্থসংশ্লিষ্ট বিষয়াদি নির্দিষ্ট করা হবে, ফলে এখানে কোন বিরোধ হলে তা আইনের আওতায় নিরসন করা যাবে। বিদ্যুৎ উৎপাদন, সঞ্চালন ও বিতরণের সমন্বিত ও সুশৃঙ্খলা কার্যক্রম নিশ্চিত করতে পারলেই কেবল আন্তঃসংস্থার আয় ব্যয়, লাভ লোকসান, দায় দেনা ইত্যাদির হিসাব সুনির্দিষ্টকরণ ও অর্থ ব্যবস্থাপনায় শৃঙ্খলা নিশ্চিত করা সম্ভব হবে।
চুক্তিতে পিডিবির ভারপ্রাপ্ত সচিব মোঃ ইমরুল হোসেনের সাথে আরইবি’র সচিব আসাফুদ্দৌলাহ ও ডিপিডিসি’র সচিব জয়ন্ত কুমার শিকদার স্বাক্ষর করেন।
অনুষ্ঠানে অন্যান্যের মধ্যে বিদ্যুৎ সচিব ড. আহমদ কায়কাউস, পিডিবি’র চেয়ারম্যান খালেদ মাহমুদ, আরইবি’র চেয়ারম্যান মেজর জেনারেল মঈন উদ্দিন (অব.) ও ডিপিডিসি’র ব্যবস্থাপনা পরিচালক বিকাশ দেওয়ান বক্তব্য রাখেন।
বাসস/তবি/জেডআরএম/২১১৮/মহ/জেহক