বাসস দেশ-২৪ : বাংলাদেশকে জঙ্গিবাদমুক্ত দেশ হিসেবে বিশ্বে পরিচিত করেছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা : নানক

বাসস দেশ-২৪
নানক-রিফ্রেসার্স-প্রশিক্ষণ
বাংলাদেশকে জঙ্গিবাদমুক্ত দেশ হিসেবে বিশ্বে পরিচিত করেছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা : নানক
ঢাকা, ১১ সেপ্টেম্বর, ২০১৮ (বাসস) ঃ আওয়ামী লীগের যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক ও সাবেক প্রতিমন্ত্রী জাহাঙ্গীর কবীর নানক বলেছেন, বাংলাদেশকে জঙ্গিবাদমুক্ত দেশ হিসেবে বিশ্বে পরিচিত করেছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।
আজ মঙ্গলবার সকালে ইসলামিক ফাউন্ডেশনের প্রধান কার্যালয়ে ইসলামিক ফাউন্ডেশন আয়োজিত ‘প্রশিক্ষণপ্রাপ্ত ইমামদের ৫ দিনব্যাপী রিফ্রেসার্স প্রশিক্ষণ কোর্স’ অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে নানক এসব কথা বলেন।
সাবেক এই প্রতিমন্ত্রী বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা জঙ্গীবাদের বিরুদ্ধে যুদ্ধ ঘোষণা করেছেন। এর মূল উপড়ে ফেলে দিয়েছে। তা না হলে বাংলাদেশ পাকিস্তান হয়ে যেত। পাকিস্তানে মসজিদে নামাজ পড়তে ঢুকে লাশ হয়ে বের হয়।
‘বাংলাদেশে মওদুদীবাদ কায়েম হতে দেয়া হবে না’- উল্লেখ করে জাহাঙ্গীর কবীর নানক বলেন, দেশের ইমাম সাহেবদেরকে সবচেয়ে বেশি মূল্যায়ন করেছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। সরকার ৫৬০ টি মডেল মসজিদ করার উদ্যোগ নিয়েছে। তাঁর যোগ্য নেতৃত্বে বাংলাদেশ আজ অবাধ সম্ভাবনার একটি দেশে পরিণত হয়েছে।
অনুষ্ঠানে স্বাগত বক্তব্যে ইসলামিক ফাউন্ডেশনের মহাপরিচালক সামীম মোহাম্মদ আফজাল বলেন, আজ পৃথিবীতে হানাহানির মূল কারণ হচ্ছে ইসলামের বিকৃত শিক্ষা। আর এই ইসলামকে বিকৃত করেছে জামায়াতে ইসলামী। ইসলামিক ফাউন্ডেশনের কার্যকরী পদক্ষেপের কারণেই বর্তমানে দেশে মসজিদকে কেন্দ্র করে কোন ধর্মীয় সংঘাত সৃষ্টি হচ্ছে না। ধর্মীয় সেক্টরকে স্থিতিশীল রাখার জন্যই ইসলামিক ফাউন্ডেশন কাজ করে যাচ্ছে।
প্রশিক্ষণ কোর্সে অন্যান্যদের মধ্যে ইসলামিক ফাউন্ডেশনের সচিব কাজী নূরুল ইসলাম, ৫৬০ মডেল মসজিদের উপ-প্রকল্প পরিচালক লুৎফর রহমান সরকার, ইমাম প্রশিক্ষণ একাডেমীর পরিচালক জালাল আহমেদ, সমন্বয় বিভাগের পরিচালক এবিএম শফিকুল ইসলাম, গবেষণা বিভাগের পরিচালক নূর মোহাম্মদ আলম, আইসিটি বিভাগের পরিচালক মুহাম্মদ রফিক উল ইসলামসহ ফাউন্ডেশনের কর্মকর্তা-কর্মচারী ও চার শতাধিক ইমাম উপস্থিত ছিলেন।
এছাড়া আজ বাদ আসর ইসলামিক ফাউন্ডেশনের প্রধান কার্যালয়ে প্রতিটি জেলা ও উপজেলায় ১ টি করে ৫৬০টি মডেল মসজিদ ও ইসলামিক সাংস্কৃতিক কেন্দ্র স্থাপন (১ম সংশোধিত) প্রকল্পটি একনেকে অনুমোদন হওয়ায় শুকরিয়া হিসেবে দোয়া ও মিলাদ মাহফিল অনুষ্ঠিত হয়েছে।
মাহফিলে ইসলামিক ফাউন্ডেশনের মহাপরিচালক সামীম মোহাম্মদ আফজালসহ ফাউন্ডেশনের পরিচালকবৃন্দ, কর্মকর্তা-কর্মচারী ও আলেম-ওলামা অংশ নেন।
বাসস/সবি/এমএন/২০২০/-কেএমকে