পারস্পরিক কল্যাণে বাংলাদেশ-শ্রীলংকা সম্পর্ক আরো জোরদারে দৃঢ়প্রত্যয় পুনর্ব্যক্ত

172

ঢাকা, ২০ মার্চ, ২০২১ (বাসস) : বাংলাদেশ ও শ্রীলংকা সার্বভৌমত্ব, সমতা, বন্ধুত্ব, আস্থা ও সমঝোতার ভিত্তিতে দু’দেশের জনগণের পারস্পরিক কল্যাণে বাস্তব ও পরিপক্কতাসহ দ্বিপক্ষীয় সম্পর্ক আরো জোরদারের কথা দৃঢ়প্রত্যয়ের সঙ্গে পুনর্ব্যক্ত করেছে।
সন্ত্রাস, সহিংসতা এবং চরম পন্থাকে বহুত্ববাদী সমাজের প্রতি হুমকি হিসেবে উল্লেখ করে দু’দেশ এ অঞ্চল এবং এর বাইরে এ ধরনের চ্যালেঞ্জ মোকাবেলায় এক সঙ্গে কাজ করার অঙ্গীকার করেছে।
আজ শ্রীলংকার প্রধানমন্ত্রী মাহেন্দা রাজাপাকসের সঙ্গে বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার দ্বিপক্ষীয় বৈঠক শেষে পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় এক ইশতেহারে এ কথা জানায়।
এতে বলা হয়, দু’নেতা বাংলাদেশ-শ্রীলংকার সম্পর্কের সার্বিক দিক নিয়ে আলোচনা করেছেন। পাশাপাশি সমসাময়িক আন্তর্জাতিক এবং অভিন্ন স্বার্থ-সংশ্লিষ্ট আঞ্চলিক ইস্যু নিয়েও কথা বলেছেন।
প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার আমন্ত্রণে বাংলাদেশের স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তী এবং জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মশতবার্ষিকী উদযাপনে যোগদান উপলক্ষে ১৯-২০ মার্চ ঢাকায় সরকারি সফর করেন শ্রীলংকার প্রধানমন্ত্রী মাহেন্দা রাজাপাকসে। ২০২০ সালের আগস্টে প্রধানমন্ত্রী দায়িত্ব গ্রহণের পর রাজাপাকসের এটাই প্রথম বিদেশ সফর।
এ সফরে রাজাপাকসের সঙ্গে ছিলেন শ্রীলংকার শিক্ষামন্ত্রী জিএল পেইরিস, পল্লী আবাসন ও নির্মাণ ও বিল্ডিং উপকরণ শিল্প মন্ত্রকের প্রতিমন্ত্রী ইন্দিকা অনুরাধা, বাটিক, হ্যান্ডলুম ফ্যাব্রিক এবং স্থানীয় পোশাক পণ্য মন্ত্রকের প্রতিমন্ত্রী দয়াশ্রী জয়সেকেরা, অর্থ ও মূলধনের বাজার এবং রাজ্য এন্টারপ্রাইজ সংস্কার মন্ত্রণালয়ের প্রতিমন্ত্রী আজিথ নিভ্রাদ কাবরাল,আঞ্চলিক সহযোগিতা বিষয়ক প্রতিমন্ত্রী থারাকা বালাসুরিয়া, প্রধানমন্ত্রীর সচিব গামিনি সেদারা সেনার্থ।
যৌথ ইশতেহারে বলা হয়, দ্বিপক্ষীয় বৈঠকে রাজাপাকসে বাংলাদেশে কোভিড-১৯ মহামারী কার্যকরভাবে মোকাবেলায় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার বলিষ্ঠ নেতৃত্বের প্রশংসা করেন।
তিনি ১১ লাখ রোহিঙ্গা শরণার্থীকে আশ্রয় প্রদান এবং মানবিক সহায়তা দেয়ার জন্যও বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রীর প্রশংসা করেন। উভয় প্রধানমন্ত্রী রোহিঙ্গাদের তাদের মাতৃভূমিতে দ্রুত, নিরাপদ ও মর্যাদাসহ স্থায়ী প্রত্যাবাসনের ওপর গুরুত্বারোপ করেন।
শেখ হাসিনা রোহিঙ্গা সংকট সমাধানে সমর্থন প্রদানের জন্য শ্রীলংকার প্রধানমন্ত্রীর প্রতি অনুরোধ জানান।