টাইফুন ধেয়ে আসায় ফিলিপাইনে ২ লাখ লোক সরিয়ে নেয়া হচ্ছে

238

ম্যানিলা, ৩১ অক্টোবর, ২০২০ (বাসস ডেস্ক) : এ বছরের সবচেয়ে শক্তিশালী টাইফুন ফিলিপাইনের দিকে ধেয়ে আসায় সরকার শনিবার ২ লাখেরও বেশী ফিলিপিনোকে তাদের ঘরবাড়ি থেকে সরিয়ে আনার নির্দেশ দিয়েছে। বাতাসের প্রবল গতি ও তীব্রতার জন্য কর্তৃপক্ষ ভয়ংকর এই ঘূর্ণিঝড়ের ব্যাপারে সকলকে সতর্ক করেছে।
আবহাওয়া বিভাগ জানায়, টাইফুন গনি রবিবার ভোরে দক্ষিণ পূর্বের লুজন দ্বীপে আঘাত হানবে বলে আশঙ্কা করা হচ্ছে, বিকালে স্থলভাগে আঘাত হানার সময় বাতাসের গতিবেগ থাকবে ঘন্টায় ২০৫ কিলোমিটার (১২৭ মাইল)।
এর এক সপ্তাহ আগে টাইফুন মোলাভে চীন সাগর পেরিয়ে ভিয়েতনামে আঘাত হানার আগে একই এলাকায় এই টইিফুনের তান্ডবে ২২ জনের মৃত্যু হয়েছে, জলোচ্ছ্বাসে তলিয়ে গেছে নিচু এলাকা ও কৃষিজমি ।
করোনাভাইরাস ছড়িয়ে পড়ার শুরু থেকে স্কুলগুলো বন্ধ রয়েছে, এ সব স্কুল ও জিমনেসিয়াম জরুরি আশ্রয় কেন্দ্র হিসেবে ব্যবহার করা হবে।
জাতীয় দুর্যোগ ঝুঁকি হ্রাস ও পরিচালনা কাউন্সিলের মুখপাত্র মার্ক টিমবল স্থানীয় সম্প্রচার মাধ্যমকে বলেছেন, “ টাইফুনে বাতাসের গতি প্রবল থাকবে, এতে ব্যাপক জলোচ্ছ্বাস ও ভূমিধসের আশঙ্কা রয়েছে।”
তিনি বলেন, ঝড় আমাদের পূর্ব উপকূলের কাছাকাছি, আমারা মায়ান ও তাল আগ্নেয়গিরির লাভা উদগীরণের আশঙ্কার ব্যাপারে নজর রাখছি। ঝড়ে ১০ ফুট উঁচু জলোচ্ছ্বাস হতে পারে। এই এলাকায় ২ কোটি লোক বসবাস করে।