বাসস দেশ-৪১ : যুব ও ক্রীড়া মন্ত্রণালয়ের ইয়ুথ ডেভেলপমেন্ট ইনডেক্স ২০১৯ চূড়ান্ত

172

বাসস দেশ-৪১
ইয়ুথ-ইনডেক্স
যুব ও ক্রীড়া মন্ত্রণালয়ের ইয়ুথ ডেভেলপমেন্ট ইনডেক্স ২০১৯ চূড়ান্ত
ঢাকা, ৬ আগস্ট, ২০২০ (বাসস) : যুব ও ক্রীড়া মন্ত্রণালয় প্রথমবারের মতো বাংলাদেশের ইয়ুথ ডেভেলপমেন্ট ইনডেক্স ২০১৯ চূড়ান্ত করা হয়েছে।
আজ দুপুরে যুব ও ক্রীড়া প্রতিমন্ত্রী মোঃ জাহিদ আহসান রাসেলের সভাপতিত্বে ন্যাশনাল স্টিয়ারিং কমিটির ভার্চুয়াল প্লাটফর্মে অনুষ্ঠিত এক সভায় এ ইনডেক্স চূড়ান্ত করা হয়।
সভাপতির বক্তব্যে প্রতিমন্ত্রী বলেন, বাংলাদেশের বিশাল জনগোষ্ঠীর এক তৃতীয়াংশ যুব। এই যুবদের যথোপযুক্ত ব্যবহার নিশ্চিতকরণের মাধ্যমে ডেমোগ্রাফিক ডিভিডেন্ডের সর্বোচ্চ সুবিধা নিশ্চিত করতে ইয়ুথ ডেবলপমেন্ট ইনডেক্স প্রনয়ণের উদ্যোগ গ্রহণ করা হয়েছে । এতে যুবদের জন্য গুরুত্বপূর্ণ শিক্ষা, স্বাস্থ্য, কর্মসংস্থান, অংশগ্রহন ও অন্তর্ভুক্তিমূলক উন্নয় সহ নানা বিষয়ে আলোকপাত করা হয়েছে।
তিনি বলেন, যুব উন্নয়নে ২০১৭ সালে একটি বাস্তবভিত্তিক সময়োপযোগী জাতীয় যুব উন্নয়ন নীতি প্রণয়ন করে। সে যুব নীতি বাস্তবায়নে নিরন্তরভাবে কাজ করা হচ্ছে। জাতীয় যুব নীতি ২০১৭ তে জাতীয় যুব উন্নয়ন সূচক প্রনয়ণের বিষয়ে উল্লেখ রয়েছে। নতুন ইনডেক্স প্রণয়নের মধ্যে দিয়ে যুব উন্নয়নে নতুন দিগন্তের দ্বার উন্মোচতি হল। যুব সম্প্রদায়কে শক্তিশালী সম্পদে রূপান্তর করতে এটি তারই একটি দলিল হিসেবে দেশের যুবদের ভবিষ্যৎ চাহিদা নিরূপণে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখবে।
তিনি বলেন, বর্তমান সরকার যুববান্ধব সরকার। যুব উন্নয়নে সময়োপযোগী বিভিন্ন পদক্ষেপ গ্রহণ করা হচ্ছে। যুবদের দক্ষ জনশক্তি হিসেবে গড়ে তুলতে দেশের প্রতিটি উপজেলায় যুব প্রশিক্ষণ কেন্দ্র গড়ে তুলতে প্রকল্প গ্রহণ করা হয়েছে। যুব উন্নয়ন সূচকের মাধ্যমে যুব উন্নয়নের জন্য গুরুত্বপূর্ণ নিয়ামকসমূহ নির্ধারণ করা যাবে। একইসাথে যুব উন্নয়নের জন্য যে সকল চ্যালেঞ্জ বা অসুবিধা রয়েছে সেগুলো শনাক্ত করে করণীয় নির্ধারণে সহায়তা করবে এই ইয়ুথ ডেভেলপমেন্ট ইনডেক্স। দক্ষিণ এশিয়াসহ বিশ্বের অনেক দেশে এটি করা হয়েছে। এ সূচক জাতীয় ও অঞ্চলভিত্তিক যুব উন্নয়ন পরিকল্পনা প্রণয়ন পরিবর্তন পরিবর্ধনে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করবে বলে প্রতিমন্ত্রী আশা প্রকাশ করেন
সভায় যুব ও ক্রীড়া মন্ত্রণালয়ের সচিব মোঃ আখতার হোসেনসহ জাতীয় স্টিয়ারিং কমিটির সদস্যবৃন্দ অংশগ্রহণ করেন।
বাসস/সবি/ এমএআর/২১১৫/এবিএইচ