জয়পুরহাটে পৃথক দুর্ঘটনায় দুইজনের মৃত্যু

297

জয়পুরহাট, ৪ আগস্ট, ২০২০ (বাসস): জেলার ক্ষেতলাল ও কালাই উপজেলায় আজ পৃথক দুর্ঘটনায় দুইজন নিহত হয়েছেন।
আজ মঙ্গলবার বিকালে ক্ষেতলাল উপজেলার পৌলুঞ্জ গ্রামে মাঠে কাজ করার সময় বজ্রপাতে সেকেন্দার আলী (৫০) নামের এক কৃষক এবং কালাই উপজেলায় শ্যালো ইঞ্জিন চালিত গাড়ি (ভটভটি) নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে খাদে পড়ে গিয়ে মাবিয়া বেগম (৬০) এক নারী নিহত হয়েছেন।
পুলিশ ও প্রত্যক্ষদর্শী সূত্র জানা যায়, মঙ্গলবার বিকালে ক্ষেতলাল উপজেলার পৌলুঞ্জ গ্রামে জমিতে কাজ করার সময় কৃষক সেকেন্দার আলী (৫০) বজ্রপাতে নিহত হয়েছেন। তিনি ওই গ্রামের উমির উদ্দিনের পুত্র।
ক্ষেতলাল থানার পরিদর্শক (তদন্ত) আবু রায়হান বিষয়টি নিশ্চিত করে জানান, কৃষক সেকেন্দার আলী প্রতিদিনের মতো নিজের জমিতে কাজ করছিলেন। বিকালে বৃষ্টির সময় বজ্রপাতে তার পুরো শরীর ঝলসে যায়।গুরুতর অবস্থায় সেকেন্দার আলীকে উদ্ধার করে ক্ষেতলাল উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নেওয়া হলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন।
অপরদিকে, মঙ্গলবার বিকাল ৪টার দিকে জয়পুরহাট-বগুড়া সড়কে কালাই উপজেলার পুনট বাসস্ট্যান্ড এলাকায় শ্যালো ইঞ্জিন চালিত গাড়ি (ভটভটি) নিয়ন্ত্রন হারিয়ে রাস্তার পাশের খাদে পড়ে গেলে মাবিয়া বেগম ঘটনাস্থলেই নিহত হন। নিহত মাবিয়া কালাই উপজেলার পাঁচগ্রামের মৃত সিদ্দিকের স্ত্রী।
কালাই থানার পরিদর্শক (তদন্ত) আব্দুল মালেক সড়ক দুর্ঘটনায় মৃত্যুর ঘটনা নিশ্চিত করেছেন।