বাজিস-১১ : মনোজ বসুর ১১৭ তম জন্মবার্ষিকী : কেশবপুরের গড়ভাঙ্গায় উৎসবের আমেজ

357

বাজিস-১১
মনোজ-জন্মবার্ষিকী
মনোজ বসুর ১১৭ তম জন্মবার্ষিকী : কেশবপুরের গড়ভাঙ্গায় উৎসবের আমেজ
যশোর, ২৪ জুলাই, ২০১৮ (বাসস) : বাংলা সাহিত্যের প্রবাদ পুরুষ মনোজ বসুর ১১৭তম জান্মবার্ষিকী উপলক্ষে আগামীকাল (২৫ জুলাই) যশোরের কেশবপুর উপজেলা গড়ভাঙ্গা মাধ্যমিক বিদ্যালয় মাঠে দিনটি নানা কর্মসূচীর মধ্য দিয়ে পালিত হচ্ছে। কর্মসুচির মধ্যে রয়েছে সকালে মনোজ বসুর প্রতিকৃতিতে পুষ্পমাল্য অর্পণ, ছাত্র-ছাত্রীদের অংশ গ্রহণে কুইজ, রচনা ও কবিতা আবৃত্তি প্রতিযোগিতা। মনোজ বসু জন্মবার্ষিকী উদযাপন পরিষদএসব আয়োজন করেছে।
১৯০১ সালে ২৫ জুলাই কেশবপুর উপজেলার ডোঙ্গাঘাটা গ্রামে ঐতিহ্যবাহি বসু পরিবারে তিনি জন্মগ্রহণ করেন। মনোজ বসু মাত্র ৭ বছর বয়সে কবিতা লিখতে শুরু করেন। পাঠশালার গন্ডি না পেরুতেই ১৯০৯ সালের জুন মাসে মাত্র ৮ বছর বয়সে তাঁর পিতা রামলাল বসু মৃত্যু হয়। এক কঠিন বাস্তবতার মধ্যদিয়ে তিনি ১৯১৯ সালে ম্যাট্রিক, ১৯২২ সালে আই.এ এবং ১৯২৪ সালে বি.এ পাশ করে শিক্ষাকতা পেশায় যোগদান করেন। তাঁর উল্লেখযোগ্য কাব্যগ্রন্থ ঃ বঙ্গলক্ষী ও বিচিত্রা, উপন্যাস ঃ নিশি কুটুম্ব, ভুলিনাই, সৈনিক ও বাঁশের কেল্লা, গল্প ঃ বনমর্মর ও নববাধ, ভ্রমণ কাহিনী ঃ চীন দেখে এলাম ও নূতন ইউরোপ নতুম মানুষ সোভিয়েতের দেশে, নাটক ঃ নতুন প্রভাত, বিপর্যয় ও রাখিবন্ধন শেখ লগ্ন।
তিনি স্বদেশ ও বিদেশে পেয়েছেন অভাবনীয় স্বীকৃতি ও পুরস্কার। তিনি দেশে বাংলা একাডেমী ও নরসিংদাস পুরস্কার পেয়েছেন। তাছাড়া তিনি কলকাতা বিশ্ববিদ্যালয় প্রদত্ত শরৎচন্দ্র পদক ও পুরস্কার এবং অমৃত বাজার পত্রিকা প্রদত্ত মতিলাল ঘোষ পুরস্কারে ভূষিত হয়েছিলেন। বাংলা সাহিত্যের প্রবাদ পুরুষ মনোজ বসু ১৯৮৭ সালে ২৭ ডিসেম্বর পরলোক গমন করেন।
সাহিত্যিক মনোজ বসু জন্মবার্ষিকী উদযাপন পরিষদের আহ্বায়ক নিজাম উদ্দীনের সভাপতিত্বে উক্ত অনুষ্ঠান উদ্বোধন করবেন পাঁজিয়া ইউপি চেয়ারম্যান শফিকুল ইসলাম মুকুল। বিকাল ৩ টা ৩০ মিনিটে আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখবেন উপজেলা নির্বাহী অফিসার মোঃ মিজানূর রহমান। বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখবেন উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) মোঃ কবীর হোসেন, কেশবপুর উপজেলা প্রেসক্লাবের সভাপতি এস আর সাঈদ, পাঁজিয়া ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আব্দুল আহাদ আল বাহার ও সাহিত্যিক মনোজ বসুর বংশধর ডাঃ সিদ্ধার্ত বসু। আলোচনায় অংশ নেবেন সাবেক উপ-সচিব মুক্তিযোদ্ধা আব্দুল খালেক, অধ্যাপক হাশেম আলী ফকির, এ্যাড. আবু বক্কর সিদ্দিক, কবি খসরু পাভেজ, প্রধান শিক্ষক তাপস দে, খেলাঘরের আঃ মজিদ, সমাজসেবক বাবুর আলী গোলদার, প্রভাষ তাপস কুমার মজুমদার ও কবি মকবুল মাহফুজ।
বাসস/ সংবাদদাতা/২১০০/মরপা