নওগাঁয় ভুট্টার আবাদ ক্রমেই বাড়ছে

নওগাঁ, ২ মার্চ, ২০২০ (বাসস): জেলায় ভুট্টার চাষ ক্রমেই বৃদ্ধি পাচ্ছে। ভালো দাম পাওয়ায় এবং ভুট্টার বহুমুখি ব্যবহারের ফলে লাভজনক হওয়ায় কৃষকদের মধ্যে দিনে দিনে ভুট্টা আবাদের আগ্রহ বেড়ে যাচ্ছে বলে স্থানীয় কৃষি বিভাগ জানিয়েছে।
কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরের উপ-পরিচালক কৃষিবিদ মোঃ সিরাজুল ইসলাম জানিয়েছেন চলতি ২০১৯-২০২০ মওসুমে নওগাঁ জেলার ১১টি উপজেলায় ভুট্টার আবাদ হয়েছে মোট ৭ হাজার ১শ ৪৫ হেক্টর জমিতে। গত বছর ২০১৮-১৯ মওসুমে জেলায় ভুট্টার আবাদ হয়েছিল ৬ হাজার ৮শ ৬০ হেক্টর জমিতে। চলতি বছর বিগত বছরের চেয়ে ২৮৫ হেক্টর জমিতে বেশী ভুট্টা চাষ হয়েছে। এ ছাড়াও কৃষিবিভাগ সূত্রে জানা গেছে জেলায় গত ২০১৭-১৮ মওসুমে ৬২২০ হেক্টর এবং ২০১৬-১৭ মওসুমে ৬২০০ হেক্টর জেিমত ভুট্টার আবাদ হয়েছিল।
কৃষি বিভাগ সুত্রে পাওয়া তথ্য অনুযায়ী ২০১৮-১৯ মওসুমে উপজেলা ভিত্তিক ভুট্টাচাষের পরিমান ছিল নওগাঁ সদর উপজেলা ২২০ হেক্টর। রানীনগর উপজেলায় ৪৯০ হেক্টর, আত্রাই উপজেলায় ৫১০০ হেক্টর। বদলগাছি উপজেলায় ৬৫ হেক্টর। মহাদেবপুর উপজেলায় ৮০ হেক্টর। পত্নীতলা উপজেলায় ৩০ হেক্টর। ধামইরহাট উপজেলায় ৩৭০ হেক্টর। সাপাহার উপজেলায় ১০ হেক্টর, মান্দা উপজেলায় ৪৪০ হেক্টর এবং নিয়ামতপুর উপজেলায় ৪৫ হেক্টর।
সেখানে চলতি ২০১৯-২০২০ মওসুমে উপজেলা ভিত্তিক ভুট্টা আবাদের পরিমান হচ্ছে নওগাঁ সদর উপজেলায় ২৫৫ হেক্টর। রানীনগর উপজেলায় ৪২০ হেক্টর। আত্রাই উপজেলায় ৫১৫০ হেক্ট।, বদলগাছি উপজেলায় ৮০ হেক্টর। মহাদেবপুর উপজেলায় ১২০ হেক্টর। পত্নীতলা উপজেলায় ৩৫ হেক্টর, ধামইরহাট উপজেলায় ৩৯০ হেক্টর, সাপাহার উপজেলায় ২০ হেক্টর। পোরশা উপজেলায় ১৫ হেক্টর, মান্দা উপজেলায় ৬১৫ হেক্টর এবং নিয়ামতপুর উপজেলায় ৪৫ হেক্টর।
প্রতি হেক্টরে ৮ দশমিক ৭ মেট্রিকটন হিসেবে উল্লেখিত পরিমান জমি থেকে চলতি মওসুমে প্রায় ৬২ হাজার ১শ ৬২ মেট্রিক টন ভুট্টা উৎপাদিত হবে বলে প্রত্যাশা করা যাচ্ছে। বর্তমান বাজার মূুল্য প্রতি কেজি কমপক্ষে ৩৫ টাকা হিসেবে উৎপাদিত ভুট্টার মূল্য পাওয়া যাবে ২১ লক্ষ ৭৫ হাজার ৬শ ৭০ টাকা।
ভুট্টা দিয়ে মূুলত গো-খাদ্য এবং মাছের খাদ্য তৈরী করা হয়ে থাকে। এ ছাড়াও ফাষ্টফুড তৈরীতেও ভুট্টার ব্যবহার এখন ব্যপক। অপরদিকে ভুট্টার গাছ ও পাতা জ্বলানি হিসেবে ব্যবহৃত হচ্ছে। ব্যপকভাবে গবাদি পশুর এবং মাছের খামার গড়ে উঠায় ভুট্টার চাহিদা বৃদ্ধি পেয়েছে।