ঢাকা আর্ট সামিটের আয়োজন সংস্কৃতি ও মৈত্রীর বন্ধনকে দৃঢ় করবে : খালিদ

406

ঢাকা,৭ ফেব্রুয়ারি, ২০২০ (বাসস) : সংস্কৃতি বিষয়ক প্রতিমন্ত্রী কে এম খালিদ বলেছেন,ঢাকা আর্ট সামিট চারুকলা বিষয়ে দক্ষিণ এশিয়ায় ও আন্তর্জাতিকভাবে প্রশংসিত একটি প্রধান শিল্পকর্ম প্রদর্শনী। এটির আয়োজন দেশে দেশে সংস্কৃতি ও মৈত্রীর বন্ধনকে দৃঢ় করতে সহায়ক হবে।
আজ সকালে রাজধানীতে বাংলাদেশ শিল্পকলা একাডেমির জাতীয় চিত্রশালা মিলনায়তনে সামদানী আর্ট ফাউন্ডেশন আয়োজিত নয় দিনব্যাপী ‘৫ম ঢাকা আর্ট সামিট ২০২০’ এর উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তৃতায় তিনি এ কথা বলেন।
সংস্কৃতি বিষয়ক মন্ত্রণালয় এবং তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি বিভাগের পৃষ্ঠপোষকতায় এই প্রদর্শনীর আয়োজন করা হয়।
সংস্কৃতি প্রতিমন্ত্রী বলেন, বাঙালির রয়েছে হাজার বছরের সমৃদ্ধ ও ঐতিহ্যবাহী সংস্কৃতি। এ সংস্কৃতির অন্যতম প্রধান অনুষঙ্গ চারু ও কারুকলা।
তিনি বলেন, এ ধরনের প্রদর্শনী যেমন জঙ্গিবাদ ও সাম্প্রদায়িকতা বিনাশ করে মানুষের মধ্যে মানবিক মূল্যবোধ ও সৃজনশীলতার বিকাশ ঘটায়,তেমনি বাংলাদেশের শিল্প-সাহিত্য-সংস্কৃতিকে বিশ্বের দরবারে তুলে ধরতে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে।
প্রতিমন্ত্রী বলেন,৫ম ঢাকা আর্ট সামিট-২০২০ সে ধরনের একটি নান্দনিক ও সৃজনশীল শিল্পকর্মের আন্তর্জাতিক প্রদর্শনী।
কে এম খালিদ বলেন, জাতির পিতা বঙ্গবন্ধুশেখ মুজিবুর রহমানের জন্মশতবার্ষিকী মুজিববর্ষকে সামনে রেখে ৫ম ঢাকা আর্ট সামিটের প্রতিপাদ্য নির্ধারণ করা হয়েছে ‘লাইটিং দ্যা ফায়ার অফ ফ্রিডম বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান’ শীর্ষক বিশেষ প্রদর্শনী। এটি সেন্টার ফর রিসার্চ এন্ড ইনফরমেশন (সিআরআই) এর সার্বিক তত্ত্বাবধানে আয়োজন করা হয়েছে।
তিনি বলেন, ৪৪টির অধিক দেশ থেকে আগত ৩২জন কিউরেটর দল এবং ৫০০ জন শিল্পীর অংশগ্রহণে এবারের আয়োজন গতবারের তুলনায় আরো বৃহৎ পরিসরে অনুষ্ঠিত হচ্ছে যেটি আন্তর্জাতিক পরিমন্ডলে আমাদের সামর্থ্যের প্রমাণ দিচ্ছে।
বাংলাদেশ শিল্পকলা একাডেমির মহাপরিচালক লিয়াকত আলী লাকীর সভাপতিত্বে এ অনুষ্ঠানে শুভেচ্ছা বক্তব্য রাখেন ‘৫ম ঢাকা আর্ট সামিট-২০২০’ এর আয়োজক কমিটির চেয়ারম্যান ফারুক সোবহান।
এতে স্বাগত বক্তৃতা করেন সামদানী আর্ট ফাউন্ডেশনের সহ-প্রতিষ্ঠাতা নাদিয়া সামদানী।