বাংলাদেশের প্রতি ইনজামামের কৃতজ্ঞতা প্রকাশ

78

করাচি, ২১ জানুয়ারি ২০২০ (বাসস) : দীর্ঘ জল্পনা-কল্পনার পর অবশেষে পাকিস্তান সফরে যাচ্ছে বাংলাদেশ জাতীয় ক্রিকেট দল। তিন দফায়। তবে যেভাবেই হোক না সফরে রাজি হওয়ায় বাংলাদেশকে ধন্যবাদ জানাতে ভুল করেননি পাকিস্তানের সাবেক অধিনায়ক ও নির্বাচক ইনজামাম উল হক। পাশাপাশি এক সফরেই সিরিজের সব ম্যাচ শেষ হলে ভালো লাগতো বলেও জানান ইনজামাম।
ওয়ানডে বিশ্বকাপের পর প্রধান নির্বাচকের পদ থেকে সড়ে দাঁড়ানো ইনজামাম নিজের ইউটিউব চ্যানেল ‘দ্য ম্যাচ উইনার’-এ আসন্ন বাংলাদেশ-পাকিস্তান সিরিজ নিয়ে তিনি বলেন, ‘প্রথমে অবশ্যই বাংলাদেশকে ধন্যবাদ জানাতে হচ্ছে, কারন তারা পাকিস্তান সফরে আসছে। এখানে পূর্ণাঙ্গ সিরিজই খেলবে বাংলাদেশ। এটি দেশের ক্রিকেটের জন্য ভালো দিক। পাকিস্তান সরকার ও বোর্ড তাঁদের নিরাপত্তা নিয়ে যে নিশ্চয়তা দিয়েছে, সে নিশ্চয়তার ওপর বিশ্বাস রেখেছে বাংলাদেশ। পাকিস্তান সরকার বাংলাদেশকে সবধরনের সুবিধা ও নিরাপত্তা দিবে, এতে কোন সন্দেহ নেই।’
এদিকে, তিন দফায় পাকিস্তান সফর করবে বাংলাদেশ। আগামী চার মাসের মধ্যে তিনবার পাকিস্তানে যাবে বাংলাদেশ জাতীয় ক্রিকেট দল। এমন শর্তেই সিরিজের সূচি সাজানো হয়েছে। তিন দফার সফরে তিনটি টি-২০, দু’টি টেস্ট ও একটি ওয়ানডে খেলবে বাংলাদেশ। আগামী ২৪ জানুয়ারি থেকে তিন ম্যাচের টি-২০ সিরিজ শুরু হবে বাংলাদেশ ও পাকিস্তানের। পরের দু’টি ম্যাচ হবে ২৫ ও ২৭ জানুয়ারি। তিনটি ম্যাচই হবে লাহোরে। টি-২০ সিরিজ শেষে দেশে ফিরে আসবে মাহমুদুল্লাহ’র দল।
এরপর দ্বিতীয় ধাপে পাকিস্তান সফরে ১টি টেস্ট খেলবে বাংলাদেশ। রাওয়ালপিন্ডিতে প্রথম টেস্ট হবে ৭ থেকে ১১ ফেব্রæয়ারি। ঐ টেস্ট খেলে আবারো দেশের ফিরে আসবে বাংলাদেশ।
তৃতীয় ও শেষ ধাপে আাগমী এপ্রিলে আবারো পাকিস্তান সফরে যাবে বাংলাদেশ। ঐ সফরে ৩ এপ্রিল একমাত্র ওয়ানডে খেলবে টাইগাররা। ওয়ানডে হবে করাচিতে। ওয়ানডের পর ৫ এপ্রিল থেকে করাচিতে সফরের দ্বিতীয় ও শেষ টেস্ট খেলবে বাংলাদেশ।
তবে সিরিজটি এক সফরেই হলে ভালো হতো বলে জানাতে ভুলে যাননি ইনজামাম, ‘একবারে সিরিজটি শেষ হয়ে গেলে আরও বেশি উপভোগ্য হতো। ক্রিকেটার, দর্শকরা বেশি উপভোগ করতো। এভাবে তিন দফায় সিরিজ না হলে ভালো হতো। ভাগে ভাগে না খেলে একবারে সিরিজ খেললে উত্তেজনা বেশি হতো। তবে একটা বিষয় নিশ্চিত করে আমি বলতে পারি, পাকিস্তানের ক্রিকেটপ্রেমীদের উপস্থিতিতে ক্রিকেট খেলতে টাইগারদের অনেক ভালো লাগবে ব এবং তাঁরা এ সফরটি বেশ উপভোগও করবে।’

image_printPrint