বাসস ক্রীড়া-২২ : পাকিস্তান সফর নিয়ে কাল চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত : পাপন

178

বাসস ক্রীড়া-২২
ক্রিকেট-পাপন
পাকিস্তান সফর নিয়ে কাল চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত : পাপন
ঢাকা, ৮ জানুয়ারি ২০২০ (বাসস) : পাকিস্তান সফর নিয়ে আগামীকালই চূড়ান্ত সিদ্বান্ত হবে বলে জানালেন বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের (বিসিবি) সভাপতি নাজমুল হাসান পাপন। আজ বোর্ড পরিচালকদের সঙ্গে বৈঠকে বসেছিলেন বিসিবি বস। বৈঠকে কি আলোচনা হয়েছে তা জানান পাপন। আগামীকালের মধ্যে পাকিস্তান সফর নিয়ে সিদ্ধান্ত নেয়া হবে। তবে পাকিস্তান ক্রিকেট বোর্ড (পিসিবি) চাইছে, যেভাবেই হোক টেস্ট সিরিজ খেলতে। টি-২০ সিরিজ প্রয়োজনে পরে খেলবে। কারণ টেস্ট সিরিজ আইসিসির বিশ্ব চ্যাম্পিয়নশীপের অংশ।
বিসিবি সভাপতি পাপন বলেন, ‘ সিরিজটি আমাদের পূর্ণাঙ্গ ছিল। তবে আমরা তাদেরকে জানিয়েছি, তিন ম্যাচের টি-২০ সিরিজ খেলে আমরা চলে আসতে চাই। এসে পরে আবার কোন এক সময়ে টেস্ট সিরিজের সূচি নতুনভাবে করা যায় কিনা, তাদের সাথে এটা নিয়েই আলাপ করছিলাম। যদিও তাদের টেস্টের দিকেই বেশি নজর, তারা টেস্ট নিয়ে বেশি আগ্রহী। যেহেতু এটা আইসিসির টেস্ট চ্যাম্পিয়নশীপ। তারা বলছে টেস্টটাই বেশি গুরুত্বপূর্ণ, টি-২০ আমরা পরে অন্য সময় খেলতে অসুবিধা নেই। এখন পর্যন্ত এই অবস্থাতেই আছে। আমার ধারনা, কালকের মধ্যে আমরা একটা সিদ্বান্তে আসতে পারবো।’
খেলোয়াড়রা সূচি নিয়ে কি বলছেন? এ ব্যাপারে পাপন বলেন, ‘মুশফিক প্রথম থেকে কোন আগ্রহ দেখায়নি যাবার ব্যাপারে। অন্য যাদের সাথে কথা হয়েছে, তারা বলেছে সূচি ছোট হলেই ভালো হয়। এটা আমরা বলেছিলাম। তারা আবার আমাদের পাল্টাভাবে পাঠিয়েছে, আমাদের অনেক খেলোয়াড়, প্রায় সকলেই তারা পিএসএলে ৩৫ দিনের জন্য পাকিস্তানের বিভিন্ন জায়গায় থেকে খেলবে। তাহলে কেন জাতীয় দলের জন্য এই কয়দিন পারবে না। ওটা তো আরো বেশি সময়। আমরা এজেন্সির কাছ থেকে যা যা রিপোর্ট পাবার তা পেয়েছি। তারপরও আরও অনেক আলাপের ব্যাপার আছে।’
কোচিং স্টাফরা বেশিরভাগই যেতে চান না বলেও জানান পাপন। তিনি বলেন, ‘খেলোয়াড়দের তাদের সাথে এখনো কথা বার্তা হচ্ছে। আমরা আশা করছি, কালকের মধ্যে একটা কিছু সিদ্বান্তে হয়তো আমরা পৌঁছতে পারবো। পাকিস্তান তাদের সিদ্বান্ত তো দিয়ে রেখেছেই। আমাদের আসল সমস্যা হচ্ছে, খেলোয়াড়দের সাথে কথা বলে যেটা আমরা বুঝেছি, কোচিং স্টাফদের অনেকেই যাবে না। তবে হেড কোচ বলেছে যাবে। সেও টি-২০র কথা বলেছে। টি-২০তে যাবে সে। খেলোয়াড় যাদের সাথে কথা বলেছি, তারা সকলেই অল্প সময়ের জন্য সফর করতে চায়। সবকিছু বিবেচনা করে আমরা তাদের জানিয়েছি। আমরা টি-২০ খেলে চলে আসবো, পরে টেস্ট খেলবো। কিন্তু তারা গুরুত্ব দিচ্ছে টেস্টকে। তারা বলছে, টেস্ট তো আইসিসির অংশ। তাই আগে টেস্ট খেলো, টি-২০ আমরা পরে এক সময় আয়োজন করতে পারবো। যেহেতু আমরা এত বছর পাকিস্তানের যাইনি। এটার পেছনে তো অবশ্যই কোন কারণ আছে। এ ছাড়া আগে কোন দেশই যায়নি। সম্প্রতি ওয়েস্ট ইন্ডিজ ও শ্রীলংকা গিয়েছে। আমাদের খেলোয়াড়দের জন্য ও টিম ম্যানেজমেন্টের সকলের জন্য অনেক দিন পর একটা প্রথম অভিজ্ঞতা। আমরা চিন্তা করেছি যে, খেলোয়াড়রা টি-২০ খেলে চলে আসে, তখন যদি ওরা পরিস্থিতি দেখে আত্মবিশ্বাস পায়, যদি মনে করে সব ঠিক আছে। আমরাও মনে করি, আশ্বস্ত হই। সামনে আবার যাবো। এটাই এখন পর্যন্ত আমাদের এই অ্যাপ্রোচ আছে।’
বাসস/এএসজি/এএমটি/২১৪০/স্বব