বাসস দেশ-৩০ : রাজ্যে এনআরসি এবং নাগরিকত্ব বিল কিছুতেই চালু করতে দেয়া হবে না : মমতা

216

বাসস দেশ-৩০
কলকাতা
রাজ্যে এনআরসি এবং নাগরিকত্ব বিল কিছুতেই চালু করতে দেয়া হবে না : মমতা
ঢাকা, ১৬ ডিসেম্বর, ২০১৯ (বাসস) : ভারতের পশ্চিমবাংলার মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জি বলেছেন, রাজ্যে এনআরসি এবং নাগরিকত্ব বিল কিছুতেই চালু করতে দেয়া হবে না।
যতদিন কালা কানুন প্রত্যাহার করা না হবে, ততদিন তিনি রাস্তায় থাকবেন, এ ভাবেই প্রতিবাদ জানাবেন বলে আজ কলকাতার ময়দানে অনুষ্ঠিত এক জানসভায় এ কথা ঘোষনা দেন। তার পরেও যদি এই আইন বলবৎ থাকে তা হলে তা আমার লাশের উপর দিয়ে বাস্তবায়ন করতে হবে বলেও জানান তিনি।
মমতা বন্দোপাধ্যায়ের নেতৃত্বে আজ মিছিলটি ময়দান থেকে ধর্মতলা, চিত্তরঞ্জন অ্যাভিনিউ হয়ে জোড়াসাঁকো ঠাকুরবাড়ির সামনে শেষ হয়।
সেখানে বক্তৃতায় তিনি বলেন, ‘এনআরসি এবং নাগরিকত্ব নিয়ে নতুন আইন এ রাজ্যে কিছুতেই চালু হতে দেয়া যাবে না’।
তিনি জানান, ‘কেন্দ্র থেকে আমার কাছে জানতে চেয়েছেন গন্ডগোল থামাতে কেন্দ্রীয় বাহিনী লাগবে কিনা, তিনি স্পষ্ট জানিয়ে দিয়েছেন, বিএসএফ, সিআরপি কিংবা সিআইএসএফ, কোনও কেন্দ্রীয় বাহিনী-ই এখানে দরকার হবে না। রাজ্যের পরিস্থিতি সামলাতে আমাদের পুলিশই যথেষ্ট’।
তিনি জেলায় জেলায় নাগরিকত্ব সংশোধনী আইনের বিরুদ্ধে আন্দোলনকারীদের শান্তিপূর্ণভাবে আন্দোলন করার আহ্বান জানিয়ে বলেন, আপনারা ট্রেনে আগুন দিবেন না এবং রাস্তায় অবরোধ সৃষ্টি করবেন না।
তিনি আজ এনআরসি এবং ক্যাবের বিরুদ্ধে পথে নেমেছেন। আগামী দু’দিন তিনি মিছিল করবেন বলেও ঘোষণা দিয়েছেন। এই কর্মসূচির জন্য ব্যাপক প্রস্তুতি নেওয়া হয়। ক’দিন ধরে জেলায় এবং কলকাতায় তৃণমূল নেতা, কর্মী, সমর্থকরা প্রচার এবং মিছিল অব্যাহত রাখে।
আজ দুপুরে ময়দানে অবস্থিত আম্বেদকার ও গান্ধীজির মূর্তিতে মালা দিয়ে মুখ্যমন্ত্রী মিছিল শুরু করেন। বিলটি সংসদে পেশ হওয়ার সময় থেকেই মুখ্যমন্ত্রী তীব্র প্রতিবাদ করে আসছেন। বিলটি আইনে পরিনত হওয়ার পর মুখ্যমন্ত্রীর প্রতিবাদ আরও তীব্রতর হয়।
বাসস/সংবাদদাতা/এফএইচ/২২১০/-স্বব