অবৈধ ক্যাসিনো চালানোর অভিযোগে খালেদ আটক ॥ আগ্নেয়াস্ত্র, গুলি ও মাদকদ্রব্য উদ্ধার

229

ঢাকা, ১৮ সেপ্টেম্বর, ২০১৯ (বাসস) : যুবলীগ নেতা খালেদ মাহমুদ ভূঁইয়াকে গুলশানের বাসা থেকে আটক করেছে র‌্যাপিড এ্যাকশন ব্যাটালিয়ন (র‌্যাব)।
রাজধানীর ফকিরাপুলে ক্যাসিনো চালানোর অভিযোগে আজ বুধবার সন্ধ্যা সোয়া ৭টার দিকে গুলশান ২-এর ৫৯ নম্বর রোডের ৫ নম্বর বাড়ি থেকে তাকে আটক করা হয়। আটকের সময় তার কাছ থেকে র‌্যাব সদস্যরা তিনটি অস্ত্র জব্দ করেছে। এর মধ্যে একটি অস্ত্রের লাইসেন্স নেই এবং অপর দু’টি অস্ত্র লাইসেন্সের শর্ত ভঙ্গের কারণ জানিয়েছে র‌্যাব।
র‌্যাবের মুখপাত্র লেফটেন্যান্ট কর্ণেল সারওয়ার-বিন-কাশেম বাসস’কে এ তথ্য জানিয়েছেন।
অপরদিকে রাজধানীর মতিঝিলে ইয়াংম্যান্স ক্লাব নামে খালেদের পরিচালনাধীন একটি ক্যাসিনোতে পৃথক অভিযান চালিয়ে ১৪২ জনকে আটক করে কারাদন্ড দিয়েছে র‌্যাবের ভ্রাম্যমাণ আদালত। এরমধ্যে ৩১ জনকে ১ বছর করে কারাদন্ড দেয়া হয়। এদের ১৬ জন ওই ক্যাসিনোর স্টাফ। বাকিদের ছয় মাস করে কারাদন্ড দেয়া হয়েছে।
র‌্যাব জানিয়েছে, অভিযানে ২৪ লাখ ৩৯ হাজার টাকা ও বিপুল পরিমাণ মদ, বিয়ার ও ইয়াবা জব্দ করা হয়। ক্যাসিনোটি সিলগালা করে দেয়া হয়েছে। এছাড়া আটক স্টাফদের মধ্যে দুই নারীকে ছেড়ে দেয়া হয়।
অপরদিকে ইয়ংমেন্স ক্লাবের পাশে ঢাকা ওয়ান্ডার্স ক্লাবেও অভিযান পরিচালনা করা হয়েছে। এখানে জুয়ার বোর্ড রয়েছে ১২টি। এখান থেকে মদ, বিয়ার ও বিপুল টাকা উদ্ধার করা হয়।
এছাড়া বনানীর আহমেদ টাওয়ারে গোল্ডেন ঢাকা বাংলাদেশ ক্যাসিনোতেও অভিযান চালিয়েছে র‌্যাব-১। ক্যাসিনোটি সিলগালা করে দেয়া হয়েছে।
এদিকে এই প্রতিবেদন লেখা পর্যন্ত গুলিস্তানে পীর ইয়ামেনী মার্কেট সংলগ্ন মুক্তিযোদ্ধা সংসদ ক্রীড়া চক্রের ক্যাসিনোতে র‌্যাবের অভিযানে ৪০ জনকে বিভিন্ন মেয়াদে কারাদন্ড দেয়া হয়েছে। র‌্যাব সদর দপ্তরের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট সারওয়ার আলম এই অভিযানে নেতৃত্ব দেন।

image_printPrint