গুজব ছড়ালে শক্ত হাতে ব্যবস্থা : এইচটি ইমাম

266

ঢাকা, ১ অগাস্ট, ২০১৯ (বাসস) : প্রধানমন্ত্রীর রাজনৈতিক উপদেষ্টা এইচটি ইমাম গুজব রটনাকারীদের বিরুদ্ধে কঠোর হুঁশিয়ারি উচ্চারণ করে বলেছেন, সুশাসন নিশ্চিত করার জন্য তাদেরকে শক্ত হাতে দমন করা হবে।
তিনি বলেন, ‘যারা অসৎ উদ্দেশ নিয়ে রাষ্ট্র এবং জনগণের বিরুদ্ধে অপপ্রচার চালাচ্ছে তাদেরকে ছাড়া হবে না এবং তাদের অবশ্যই বিচারের সম্মুখীন করা হবে।’
তিনি আজ বিকেলে প্রধানমন্ত্রীর তেজগাঁওস্থ কার্যালয়ে অনুষ্ঠিত এক সভায় প্রধান অতিথির ভাষণে একথা বলেন।
প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের সচিব সাজ্জাদুল হাসান ডেঙ্গু এবং সমসাময়িক বিভিন্ন বিষয়াবলী নিয়ে অনুষ্ঠিত আন্তঃমন্ত্রণালয় সংক্রান্ত এই সমন্বয় সভার সভাপতিত্ব করেন।
বর্তমান সরকার সুশাসনের প্রতি সর্বাধিক গুরুত্বারোপ করেছে উল্লেখ করে এইচটি ইমাম বলেন, ‘সুশাসনের একটি উল্লেখযোগ্য দিক হচ্ছে জনগণ শান্তি এবং সমৃদ্ধির সঙ্গে বসবাস করবে এবং এ বিষয়ে কারো কোন অভিযোগ থাকবে না।’ তিনি এ সময় গুজবের মাধ্যমে সৃষ্ট নানা হিংসাত্মক ঘটনার বিরুদ্ধে সংশ্লিষ্ট সকলকে জনমত গড়ে তোলার আহবান জানান।
উপদেষ্টা এ সময় দেশব্যাপী ছড়িয়ে পড়া ডেঙ্গু প্রতিরোধে সকলকে সর্বাত্মক প্রচেষ্টা গ্রহণেরও আহবান জানান। তিনি বলেন, ‘আমরা মুক্তিযুদ্ধের বিজয়ী জাতি এবং আমরা মশার বিরুদ্ধেও অবশ্যই বিজয়ী হব।’
বৈঠকে আসন্ন ঈদের সময় যানবাহন ও সড়ক ব্যবস্থাপনা এবং সড়ক নিরাপত্তা বজায় রাখা সহ জনস্বাস্থ্য এবং পরিবেশের কথা চিন্তা করে নির্দিষ্ট স্থানে কোরবানীর পশু জবেহ করার বিষয়েও আলোচনা অনুষ্ঠিত হয়।
বৈঠকে জানানো হয়, জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়ের উপসচিব অথবা জেষ্ট্য সহকারি সচিব পদমর্যাদার ১৫৪ জন কর্মকর্তাকে ঢাকা উত্তর এবং দক্ষিণ সিটি কর্পোরেশনের ১৫৪টি ওয়ার্ডে ডেঙ্গু প্রতিরোধ কর্মসূচি পর্যবেক্ষন এবং সম্বয়ের জন্য নিয়োজিত করা হবে।
এ সময় ঢাকা উত্তর এবং দক্ষিণ সিটি করের্পারেশনের সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তাদের ডেঙ্গু প্রতিরোধে মশক নিধন অভিযান জোরদার করার জন্যও বৈঠকে আহবান জানানো হয়।

বৈঠকে ডেঙ্গু প্রতিরোধে সরকারী কর্মকর্তা-কর্মচারিদের নিজ নিজ আবাসস্থল এবং অফিসকে পরিচ্ছন্ন রাখার পাশাপাশি সাধারণ জনগণকে তাদের বাসা-বাড়ি ও চারপাশ পরিচ্ছন্ন রাখার জন্য উদ্বুদ্ধকরণের আহবান জানানো হয়। যাতে করে কোন ভাঙ্গা বা পরিত্যক্ত পাত্রে স্বচ্ছ পানি জমতে না পারে, বিশেষ করে ফুলের টব,এয়ারকন্ডিশনার এবং রিফ্রেজারেটরের পানি কোথাও যেন জমে না থাকে।
ডেঙ্গু এবং গুজব প্রতিরোধে বেঠকে টেলিভিশন চ্যানেলগুলোতে প্রচারনা চালানোর ওপরও গুরুত্বারোপ করা হয়।
এ সময় বৈঠকে উপস্থিত সংশ্লিষ্ট মন্ত্রণালয় এবং সিটি কর্পোরেশনের প্রতিনিধিবৃন্দ ডেঙ্গু এবং গুজব প্রতিরোধে নিজস্ব মতামত এবং পরিকল্পনা তুলে ধরেন।
গুজব এবং ডেঙ্গুর বিরুদ্ধে জনমত সৃষ্টিতে বাংলাদেশ টেলিভিশনের ভ’মিকার জন্য বৈঠকে তাঁদের ধন্যবাদ জানিয়ে এ বিষয়ে বেসরকারী টিভি চ্যানেলগুলোকেও কার্যকর ভ’মিকা পালনের আহবান জানানো হয়।
প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের এসডিজি বিষয়ক মুখ্য্য সমন্বয়ক মো. আবুল কালাম আজাদ, তথ্য সচিব মো.আব্দুল মালেক, স্বরাষ্ট্রমন্ত্রণালয়ের জননিরাপত্তা বিভাগের সচিব মোস্তফা কামালউদ্দিন, ঢাকা মহানগর পুলিশ কমিশনার আসাদুজ্জামান মিয়া, বিভিন্ন মন্ত্রণালয়ের জেষ্ঠ্য সচিব এবং সচিববৃন্দ,ঢাকা উত্তর এবং দক্ষিণ সিটি কর্পোরশেনের প্রতিনিধিবৃন্দ এবং র‌্যাবের পক্ষ থেকে অন্যাণের মধ্যে বৈঠকে বক্তৃতা প্রদান করা হয়।

image_printPrint