সেমিফাইনাল নিশ্চিত করলো ইংল্যান্ড, ঝুলে থাকলো নিউজিল্যান্ড

148

চেস্টার লী স্ট্রিট, ৩ জুলাই, ২০১৯ (বাসস) : দ্বাদশ ক্রিকেট বিশ্বকাপের তৃতীয় দল হিসেবে সেমিফাইনাল নিশ্চিত করলো স্বাগতিক ইংল্যান্ড। ঝুলে গেল নিউজিল্যান্ডের ভাগ্য।
সেমি নিশ্চিত করার ম্যাচে নিউজিল্যান্ডকে ১১৯ রানে হারিয়েছে ইয়োইন মরগানের নেতৃত্বাধীন ইংলিশরা। টুর্নামেন্টে সেমিফাইনাল নিশ্চিত করা অপর দুই দল বর্তমান চ্যাম্পিয়ন অস্ট্রেলিয়া ও ২০১১ চ্যাম্পিয়ন ভারত। আজকের ম্যাচে পরাজিত হওয়ায় নিউজিল্যান্ডকে এখন আগামী ৫ জুলাই বাংলাদেশ-পাকিস্তান ম্যাচের ফলের ওপর নির্ভর করতে হবে। অবশ্য বাংলাদেশের বিপক্ষে পাকিস্তান বড় ব্যবধানে জয় না পেলে সেমিফাইনাল খেলেবে নিউজল্যান্ডই।
জয়ের জন্য ৩০৬ রানের লক্ষ্যে খেলতে নেমে শুরুতেই হোচট খায় কিউইরা। একামাত্র টম লাথাম ছাড়া আর কেউই স্বাগতিকদের বোলিংয়ের সামনে লড়াই করতে পারেননি। লাথামের হাফ সেঞ্চুরির সুবাদেই শেষ সম্মানজনক স্কোর গড়তে সক্ষম হয় নিউজিল্যান্ড। ইনিংসের ৫ দশমিক ২ ওভারে দলীয় ১৪ রানেই দুই ওপেনারকে হায়ায় বর্তমান রানার্সআপরা। প্রথম ওভারের পঞ্চম বলেই শুন্য রানে জোফরা আর্চারের শিকার হন হেনরি নিকোলস। আরেক ওপেনার মার্টিন গাপটিল ব্যক্তিগত ৮ রানে ক্রিস ওকসের শিকার হলে দ্বিতীয় উইকেট হারিয়ে ধুকতে থাকে দলটি। এমন অবস্থায় দলের হাল ধরেন দুই অভিজ্ঞ ব্যাটসম্যান অধিনায়ক কেন উইলিয়ামসন ও রস টেইলর। কিন্তু তারাও দলীয় রানকে বড় করতে পারেননি। আগের সব ম্যাচেই বড় রান পাওয়া উইলিয়ামসন ৪০ বল খেলে ২৭ রানে রানআউটের ফাঁদে পড়লে ভাঙ্গে ৪৭ রানের জুটি। মাত্র তিন রান পর রান আউটের শিকার হন টেইলরও। ৪২ বলে ২৮ রান করেন তিনি। এরপর ১৯ রান করা নিশাম ৩ রান করা ডি গ্র্যান্ডহোম বিদায় নিলে ২৮ দশমিক এক ওভারে দলীয় ১২৮ রানে ষষ্ঠ উইকেট হারায় নিউজিল্যান্ড। অবশ্য এক প্রান্ত আগলে রাখেন টম লাথাম। তবে ৬২ বল মোকাবেলায় পাঁচ বাউন্ডারির সাহায্যে ৫৭ রান করে প্লানকেটের শিকার হলে ১৬৪ রানে সপ্তম উইকেট হায় দলটি। আউট হওয়ার আগে নিশামের সাথে ষষ্ঠ উইকেট জুটিতে ৫৪ এবং স্যান্টনারের সঙ্গে অস্টম উইকেট জুটিতে ৩৬ রান করে আউট হন নিউজিল্যান্ডের একমাত্র হাফ সেঞ্চুরিয়ান লাথাম। শেষ হয়ে যায় দলের আশা-ভরসা। এরপরই স্টোকসের শিকার হয়ে বিদায় নেন ১২ রান করা স্যান্টনার। মুলত প্রথম থেকেই আজ নড়বড়ে ছিল কিউইরা। একবারের জন্যও ম্যাচে ফিরতে পারেনি তারা। ৪ রান করা ট্রেন্ট বোল্ট স্টাম্পিংয়ের শিকার হলে ৪৫ওভারে ১৮৬ রানে থামে নিউজিল্যান্ড ইনিংস। মার্ক উড ৩৪ রানে নেন ৩ উইকেট।
এর আগে চলতি আইসিসি ক্রিকেট বিশ্বকাপে গ্রুপ পর্বে নিজেদের শেষ ম্যাচে টস জিতে আগে ব্যাটিং করে জনি বেয়ারস্টোর টানা সেঞ্চুরিতে ভর করে নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে ৮উইকেট হারিয়ে ৩০৫ রান করে স্বাগতিক ইংল্যান্ড।
সেমিফাইনাল নিশ্চিত করার ম্যাচে টস জিতে আগে ব্যাটিং করার সিদ্ধান্ত নেন ইংল্যান্ড অধিনায়ক ইয়োইন মরগান। আবারো ইংল্যান্ডকে ভাল শুরু এনে দেন বেয়ারস্টো ও জেসন রয়।
উদ্বোধনী জুটিতে ১২৩ রান সংগ্রহের পর ব্যক্তিগত ৬০ রানে রয় আউট হলে প্রথম উইকেট হারায় ইংলিশরা। জিমি নিশামের হাতে বলে মিচেল স্যান্টরারের হাতে ক্যাচ দিয়ে আউট হওয়ার আগে ৬১ বল মোকাবেলায় আটটি বাউন্ডারি হাকান রয়।
এরপর ক্রিজে আসেন ফর্মে থাকা জো রুট। তবে ব্যক্তিগত ২৪ রানে টেন্ট বোল্টের প্রখম শিকার হয়ে রুট আউট হলে দলীয় ১৯৪ রানে পড়ে ইংল্যান্ডের দ্বিতীয় উইকেট।
রোববার এজবাস্টনে ভারতের বিপক্ষে ৩১ রানে জয় এনে দেয়া ম্যাচে ১১১ রান করার পর আজ ১৪টি বাউন্ডারি ও একটি ওভার বাউন্ডারিতে ৯৫ বলে নিজের নবম ওয়ানডে সেঞ্চুরি পুরন করেন বেয়ারস্টো। শেষ পর্যন্ত ৯৯ বল মোকাবেলায় ১৫টি বাউন্ডারি ও এক ওভার বাউন্ডারিতে ম্যাট হেনরির বলে সরাসরি বোল্ড আউট হলে ১০৬ রানে থামে তারকা এ ব্যাটসম্যানের ইনিংস।
জস বাটলার ১১ রান করে বোল্টের দ্বিতীয় এবং ৪০ বলে ৪২ রান করে অধিনায়ক মরগান হেনরির দ্বিতীয় শিকারে পরিনত হলে ২৭২ রানে ইংল্যান্ডের সপ্ত উইকেটের পতন ঘটে। এছাড়া বেন স্টোকস ১১, ক্রিস ওকস ৪ রান করেন। আদিল রশিদ ১৬ রান করে আউট হলে দলীয় ৩০১ রানে ইংল্যান্ডের অস্টম উইকেটের পতন হয়। লিয়াম প্লানকেট ১২ বলে ১৫ রানে অপরাজিত থাকেন।
নিশাম, হেনরি ও বোল্ট ২টি করে উইকেট নেন।
ম্যাচ সেরা হয়েছেন ইংল্যান্ডের বেয়ারস্টো।

image_printPrint