ঢাকা, সোমবার, নভেম্বর ২০, ২০১৭

সংবাদ শিরোনাম 

জাতীয় সংসদ : সংসদে বঙ্গমাতা শেখ ফজিলাতুন্নেছা মুজিব বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় বিল পাস   |   বিনোদন ও শিল্পকলা : কাল শুরু হচ্ছে ৩ দিনব্যাপী নবম যাত্রা উৎসব-২০১৭   |   রাষ্ট্রপতি : নেতৃত্বের প্রতি অনুগত থেকে সশস্ত্র বাহিনীকে তাদের গৌরব সমুন্নত রাখতে হবে : রাষ্ট্রপতি   |   জাতীয় সংসদ : দুগ্ধে স্বয়ং সম্পূর্ণতা অর্জনে ডেইরি বোর্ড প্রতিষ্ঠা করা হচ্ছে : ছায়েদুল হক * গত বছর ভিআইপিদের সফরে জ্বালানি বাবদ ৩৯ কোটি ৯৩ লাখ টাকা ব্যয় হয়েছে : জনপ্রশাসন প্রতিমন্ত্রী   |   প্রধানমন্ত্রী : গাজীপুর ও রংপুর মেট্রোপলিটন পুলিশ আইনের অনুমোদন মন্ত্রিসভায় * সরকার সশস্ত্র বাহিনীর আধুনিকায়নে সর্বাত্মক কার্যক্রম চালিয়ে যাচ্ছে : প্রধানমন্ত্রী * প্রধানমন্ত্রীর এএসওসিআইও-২০১৭ ডিজিটাল গভর্নমেন্ট এ্যাওয়ার্ড গ্রহণ    |    অর্থনীতি : ডিএসইতে লেনদেন বেড়েছে ১৯ শতাংশ   |   খেলাধুলার সংবাদ : হাসানের বিধ্বংসী বোলিং আর মালিকের দায়িত্বশীল ব্যাটিং জেতালো কুমিল্লাকে * ইউএসএইডের শুভেচ্ছা দূত হলেন মাহমুদুল্লাহ রিয়াদ *শেষদিনের উত্তেজনার পর ড্র হলো কোলকাতা টেস্ট   |   আবহাওয়া : আকাশ অস্থায়ীভাবে আংশিক মেঘলাসহ সারাদেশে আবহাওয়া শুষ্ক থাকতে পারে   |   শিক্ষা : জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ে ১ম বর্র্ষ স্নাতক (সম্মান) ভর্তির ২য় রিলিজ স্লিপের আবেদন ২২ নভেম্বর শুরু * বরিশাল বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তি পরীক্ষা ২৪ ও ২৫ নভেম্বর   |    জাতীয় সংবাদ : ভারতের কংগ্রেস নেতা প্রিয় রঞ্জন দাসমুন্সির পরলোকগমন * আওয়ামী লীগের সংসদীয় দলের সভা আগামী বুধবার * বাংলাদেশের উন্নয়ন ও অগ্রগতিতে স্পেনের সহযোগিতার প্রশংসা স্পিকারের * ৭ মার্চ কেন ঐতিহাসিক জাতীয় দিবস নয় : জানতে চেয়েছে হাইকোর্ট   |    বিভাগীয় সংবাদ : সুনামগঞ্জে রোপা আমনের বাম্পার ফলন * মতলব উত্তরে সৌর সোলার বিদ্যুতের আলোতে জ্বলছে গ্রামীণ সড়ক বাতি *নাটোরে মা ও ছেলেকে কুপিয়ে হত্যার দায়ে যুবক গ্রেফতার * শাবির ভর্তি পরীক্ষার ফল প্রকাশ আজ   |    আন্তর্জাতিক সংবাদ : পাকিস্তানে ভ্যানের ওপর ট্রাক উল্টে নিহত ২০ * কলম্বিয়ায় বাস দুর্ঘটনায় নিহত ১৪ * নিউ ক্যালেডোনিয়া উপকূলে শক্তিশালী ভূমিকম্প, সুনামি সতর্কতা জারি *জার্মানীতে জোট গঠনের আলোচনা ভেস্তে যাওয়ায় মার্কেলের দুঃখ প্রকাশ   |    জাতীয় সংবাদ : নারীর প্রতি সহিংসতার সব অভিযোগ লিপিবদ্ধ হয় না : তথ্যমন্ত্রী * শাহজালালে কম্বলের ভেতর থেকে প্রায় ৭ কেজি স্বর্ণ জব্দ, আটক ১ * রাষ্ট্রদ্রোহ মামলায় তারেক রহমানসহ চারজনের বিরুদ্ধে অভিযোগ গঠন * ২১ আগস্ট হামলায় ব্যবহৃত গ্রেনেড সরবরাহের হোতা জঙ্গি মাজেদ ভাট   |   

আমিষের চাহিদা পূরণে সংশ্লিষ্ট সকলকে আরো নিষ্ঠার সাথে কাজ করতে হবে : প্রধানমন্ত্রী

ঢাকা, ১৭ জুলাই, ২০১৭ (বাসস) : প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা আমিষের চাহিদা পূরণে সংশ্লিষ্ট সকলকে আরো নিষ্ঠার সাথে কাজ করার আহ্বান জানিয়েছেন।
আগামীকাল থেকে জাতীয় মৎস্য সপ্তাহ- ২০১৭ উপলক্ষে আজ সোমবার দেয়া এক বাণীতে তিনি এ আহবান জানান।
শেখ হাসিনা বলেন, খাদ্যে আমিষের চাহিদা পূরণে মৎস্যসম্পদ উন্নয়ন, মৎস্য ও মৎস্যজাত পণ্যের উৎপাদন বৃদ্ধি ও গুরুত্ব সম্পর্কে সর্বস্তরের জনগণকে সচেতন করার মাধ্যমে দেশে মাছের উৎপাদন বাড়াতে হবে।
জাতীয় মৎস্য সপ্তাহের এবারের প্রতিপাদ্য মাছচাষে গড়বো দেশ, বদলে দেব বাংলাদেশ অত্যন্ত সময়োপযোগী হয়েছে বলেও তিনি মনে করেন।
মৎস্যখাতকে সরকারের অন্যতম অগ্রাধিকারভুক্ত খাত হিসেবে অভিহিত করে শেখ হাসিনা বলেন, দেশের বিপুল জনগোষ্ঠীর পুষ্টি চাহিদা পূরণের লক্ষ্যে বিগত সাড়ে আট বছরে আওয়ামী লীগ সরকার এখাতে পরিকল্পিত উন্নয়ন কার্যক্রম বাস্তবায়ন করেছে। এর ফলে জাতীয় অর্থনীতিতে মৎস্যখাতের ভূমিকা বৃদ্ধি পেয়েছে। এখাতে অধিকতর কর্মসংস্থানের সুযোগ সৃষ্টি হয়েছে।
তিনি বলেন,আমরা প্রাকৃতিক জলাশয়ের সুষ্ঠু ব্যবস্থাপনা, জলজ জীববৈচিত্র্য সংরক্ষণ, পরিবেশবান্ধব ও উন্নত প্রযুক্তিনির্ভর মৎস্যচাষ ব্যবস্থাপনার জন্য বিভিন্ন কার্যক্রম গ্রহণ করেছি। যার ফলে দেশের মৎস্য উৎপাদন বৃদ্ধি পেয়ে ২০১৫-১৬ অর্থবছরে ৩৮ লাখ ৭৮ হাজার মেট্রিক টনে উন্নীত হয়েছে। অভ্যন্তরীণ জলাশয়ের মৎস্য আহরণে আমাদের স্থান বিশ্বে চতুর্থ।
আমরা দেশে প্রথমবারের মতো জাতীয় মৎস্য নীতি ১৯৯৮ প্রণয়ন করেছি উল্লেখ করে প্রধানমন্ত্রী বলেন, পরিবেশের ভারসাম্য রক্ষা ও জলমহালে সমাজভিত্তিক মাছচাষ ব্যবস্থাপনা, মাছের আবাসস্থল উন্নয়ন, প্লাবনভূমিতে মৎস্যচাষ ও অভয়াশ্রম স্থাপনসহ অবকাঠামো উন্নয়নে ২০১৬-১৭ অর্থবছরে ৩৩২ কোটি টাকার ২২টি প্রকল্প বাস্তবায়ন করা হয়েছে।
তিনি বলেন,বঙ্গোপসাগরে মৎস্য আহরণক্ষেত্র, মৎস্যসম্পদের মজুদ নির্ণয় ও সহনশীল আহরণমাত্রা নির্ধারণের লক্ষ্যে আর ভি মীন সন্ধানী নামে একটি সর্বাধুনিক প্রযুক্তিসম্পন্ন গবেষণা ও জরিপ জাহাজ ক্রয় করা হয়েছে।
শেখ হাসিনা জানান,পরিবেশবান্ধব ও লাগসই প্রযুক্তি সম্প্রসারণের মাধ্যমে মাছের উৎপাদন বৃদ্ধি ও মুক্ত জলাশয়ে মৎস্য সংরক্ষণ করে এখাতের কাক্সিক্ষত উন্নয়ন সম্ভব। এছাড়া, মাছ ও চিংড়ি চাষের পাশাপাশি বিভিন্ন অপ্রচলিত মৎস্য, কুঁচিয়া ও কাঁকড়ার উৎপাদন বৃদ্ধি ও রপ্তানির মাধ্যমে বৈদেশিক মুদ্রা অর্জনেরও সম্ভাবনা রয়েছে।