ঢাকা, বুধবার, জুলাই ২৬, ২০১৭

সংবাদ শিরোনাম 

জাতীয় সংবাদ : নিজ দপ্তরকেই অবাধ তথ্যপ্রবাহের উদাহরণ হিসেবে গড়ে তুলতে তথ্যমন্ত্রীর আহবান * উন্নত চিকিৎসার জন্য সরকারি খরচে সিদ্দিকুরকে বৃহস্পতিবার চেন্নাই নেয়া হচ্ছে   |    জাতীয় সংবাদ : জঙ্গীবাদের মদদদাতা ও অর্থদাতাদের চিহ্নিত করা হচ্ছে : স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী * বাংলাদেশীদের জন্য প্রবেশ ও নির্গমন সংক্রান্ত নিষেধাজ্ঞা প্রত্যাহার করেছে ভারতে * জেলা প্রশাসকদের চাহিদার ৩ ঘন্টার মধ্যে ত্রাণ পাঠানো হয়েছে : ত্রাণমন্ত্রী   |    অর্থনীতি : জালিয়ার দ্বীপ হবে দেশের প্রথম ট্যুরিজম পার্ক * হজযাত্রীদের বিমান ভাড়ায় শুল্ক কমলো ১ হাজার টাকা   |    জাতীয় সংবাদ : আল-আকসা মসজিদে নামাজ পড়ার ওপর নিষেধাজ্ঞা আরোপে ঢাকার তীব্র নিন্দা *বেবী মওদুদ মুক্তিযুদ্ধের চেতনা ও অসাম্প্রদায়িক বাংলাদেশের জন্য লড়াই করে গেছেন* আইন মেনেই নির্বাচন কার্যক্রম সম্পন্ন করা হবে: সিইসি *বিএনপি নির্বাচনকে ভুন্ডল করার পাঁয়তারা করছে: নাসিম   |    আন্তর্জাতিক সংবাদ : অস্ত্রবিরতি সত্ত্বেও সিরিয়ার বিদ্রোহী নিয়ন্ত্রিত শহরে হামলা, নিহত ৮ * ভারতে নতুন রাষ্ট্রপতির আনুষ্ঠানিক শপথ *পাকিস্তানে আত্মঘাতী হামলায় ২৬ জন নিহত *ইন্দোনেশিয়ায় নৌ দুর্ঘটনায় অন্তত ৮ জনের প্রাণহানি * মুম্বাইয়ে ভবন ধসে নিহত ৬   |   খেলাধুলার সংবাদ : রিয়ালের বিপক্ষে খেলতে পারছেন না বেইলি * মেক্সিকান স্ট্রাইকার হার্নান্দেজকে দলে নিল ওয়েস্ট হ্যাম *   |   আবহাওয়া : ঝড়ো হাওয়াসহ মাঝারী ধরনের ভারী থেকে অতি ভারী বর্ষণ হতে পারে   |   প্রধানমন্ত্রী : জেলা প্রশাসকদের জন্য প্রধানমন্ত্রীর ২৩ দফা নির্দেশনা *ডিসিদের প্রতি জনকল্যাণকে সর্বোচ্চ গুরুত্ব দেয়ার নির্দেশ প্রধানমন্ত্রীর    |    জাতীয় সংবাদ : বেগম খালেদা জিয়া লন্ডনে বসে দেশ অস্থিতিশীল করার নীলনকশা করছেন : ড. হাছান *কক্সবাজারে পাহাড় ধসে শিশুসহ ৪ জনের মৃত্যু *দুর্যোগ মোকাবেলায় প্রতিবেশী দেশগুলোর চেয়ে বাংলাদেশের প্রস্তুতি ভাল : সজীব ওয়াজেদ জয়   |    আন্তর্জাতিক সংবাদ : ভারতের যৌন অপরাধ ঠেকাবে নারী পুলিশ *ইরাকের ভাইস প্রেসিডেন্টের সাথে পুতিনের সাক্ষাত *জেরুজালেম থেকে মেটাল ডিটেক্টর সরাচ্ছে ইসরাইল *ইয়েমেন, কাতার ও লিবিয়ার দাতব্য গ্রুপ সন্ত্রাসী গ্রুপ হিসেবে কালো তালিকাভুক্ত   |    বিভাগীয় সংবাদ : নাটোরে ভোটার তালিকা হালনাগাদ কার্যক্রম শুরু *সুনামগঞ্জে ২১ কোটি টাকা ব্যয়ে ৭টি একাডেমিক ভবন নির্মাণ করা হচ্ছে   |   

মানব অঙ্গ প্রতিস্থাপন আইনের খসড়া মন্ত্রিসভায় অনুমোদন

ঢাকা, ১৮ জুলাই, ২০১৭ (বাসস) : মানব দেহের অঙ্গ প্রতঙ্গ প্রতিস্থাপন আইন ২০১৭র খসড়ার চূড়ান্ত অনুমোদন দিয়েছে মন্ত্রিসভা। চিকিৎসা বিজ্ঞানের উৎকর্ষের সঙ্গে সঙ্গতি রেখে চিকিৎসা সেবার উন্নয়ন এবং মানব অঙ্গ পাচার বন্ধ ও এর অবৈধ ব্যবসা রোধের লক্ষ্যে খসড়া আইনটি প্রণীত হয়েছে। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সভাপতিত্বে গতকাল বাংলাদেশ সচিবালয়ে মন্ত্রিপরিষদের নিয়মিত সাপ্তাহিক বৈঠকে এ অনুমোদন দেয়া হয়।
বৈঠক শেষে মন্ত্রিপরিষদের অতিরিক্ত সচিব আশরাফ শামীম সাংবাদিকদের ব্রিফকালে বলেন, সরকার চিকিৎসা বিজ্ঞানের উৎকর্ষের সঙ্গে সঙ্গতি রেখে চিকিৎসা সেবার উন্নয়ন এবং মানব অঙ্গ পাচার বন্ধ ও এর অবৈধ ব্যবসা রোধে আইন প্রণয়নের লক্ষ্যে এই উদ্যোগ নিয়েছে। তিনি বলেন, প্রস্তাবিত আইনে কোন ব্যক্তি অঙ্গদাতা ও গ্রহিতা সম্পর্কে মিথ্যা তথ্য দিলে বা এতে কাউকে উৎসাহিত বা প্ররোচিত বা ভীতি প্রদর্শন করলে তার সর্বোচ্চ ২ বছরের সশ্রম কারাদন্ড বা সর্বাধিক ৫ লাখ টাকা জরিমানা বা উভয় দন্ডই হতে পারে। এছাড়া এ আইনের অন্যান্য ধারা অমান্যে বা এ ব্যাপারে কাউকে সহায়তার অপরাধে সর্বোচ্চ ৩ বছরের সশ্রম কারাদন্ড ও সর্বাধিক ১০ লাখ টাকা জরিমানা বা উভয় দন্ডই হতে পারে। কোন চিকিৎসক এই আইনে অপরাধী সাব্যস্ত হলে তার বাংলাদেশ মেডিকেল ও ডেন্টাল কাউন্সিলের নিবন্ধন বাতিল হয়ে যাবে।
অতিরিক্ত সচিব বলেন, কোন হাসপাতাল বা ক্লিনিকে এই আইন লংঘিত হলে এর মালিক, পরিচালক ও ম্যানেজার বা অন্য কোন পদবীধারী যদি প্রমাণ করতে না পারেন যে তাদের জ্ঞাতসারে এ অপরাধ হয়নি এবং তারা এটা রোধে যথাসাধ্য চেষ্টা করেছেন, তবে তারাও এই আইনে অপরাধী হিসেবে গণ্য হবেন। এ প্রসঙ্গে তিনি বলেন, এ সম্পর্কিত ১৯৯৯ সালের বিদ্যমান আইনে এর কোন ধারা লংঘনে সর্বোচ্চ ৭ বছর কারাদন্ড বা সর্বাধিক ৩ লাখ টাকা জরিমানা বা উভয় দন্ডের বিধান রয়েছে। আইনটি কার্যকরভারে যাত্রা শুরু করলে অঙ্গ সংস্থাপনের জন্য কাউকে আর দেশের বাইরে যেতে হবে না।

মন্ত্রিপরিষদ সচিব বলেন, আইনে ঘনিষ্ট আত্মীয়-স্বজন বলতে বাবা মা, সন্তান, ভাই, বোন, নাতি নাতনি, স্বামী স্ত্রী এবং রক্তের সম্পর্কীয় দাদা, নানা, মামা, চাচা, খালু, ফুফা, মামি, চাচি ও ফুপুর মতো আত্বীয়-স্বজনদেরকে সঙ্গায়িত করা হয়েছে।
প্রস্তাবিত খসড়া আইন অনুযায়ী প্রতিস্থাপনের জন্য লাইফ সাপোর্টে থাকা কোন মানব দেহ থেকে সংগৃহীত কিডনি, লিভার, হাড়, চক্ষু, হার্ট, লাং এবং টিস্যুসহ মানব দেহের যে কোন অঙ্গপ্রতঙ্গ মানব দেহে প্রতি স্থাপন করা যাবে। কোন হাসপাতাল সরকারের অনুমোদন ব্যাতিত মানবদেহের কোন অঙ্গপ্রতঙ্গ প্রতিস্থাপন করতে পারবে না। তবে সরকারি হাসপাতালগুলো সরকারের কোন অনুমোদন ছাড়াই মানব দেহের অঙ্গপ্রতঙ্গ প্রতিস্থাপন করতে পারবে।
মন্ত্রিপরিষদের অতিরিক্ত সচিব বলেন, একজন নিউরোলজিস্ট, এনেস্থেসিয়োলজিস্ট এবং একজন মেডিসিন অথবা ক্রিটিক্যাল বিশেষজ্ঞ সমন্বয়ে প্রতিটি হাসপাতালে তিন সদস্যের একটি সমন্বয় কমিটি গঠন করা হবে এবং তারা অধ্যাপক অথবা কমপক্ষে সহযোগী অধ্যাপক হবেন।
তিনি বলেন, প্রস্তাবিত আইনে অঙ্গপ্রতঙ্গ প্রতিস্থাপনের ঘোষণাদানকারি কোন ব্যাক্তির কোন আত্মীয়-স্বজনের এই কমিটির অন্তর্ভুক্ত হবাব ক্ষেত্রে বিধিনিষেধ আরোপ করা হয়েছে। প্রস্তাবিত আইন অনুযায়ী বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালযের উপাচার্যের নেতৃত্বে একটি কারডিয়াক কমিটি গঠন করতে হবে। এই কমিটি মানব অঙ্গ প্রতিস্থাপনের গোটা বিষয়টি দেখভাল করবেন এবং পরামর্শ দেবেন।
অতিরিক্ত সচিব বলেন, প্রতিটি হাসপাতালে সার্জারী বিভাগের একজন অধ্যাপকের নেতৃত্বে তিন সদস্যের একটি মেডিকেল বোর্ড গঠিত হবে। বোর্ডে সদস্য হিসেবে এক বা একাধিক বিশেষজ্ঞ চিকিৎসককে কো-অপট করা যাবে। বেসরকারি হাসপাতালগুলোকে আইনটি কার্যকরের ৬০ দিনের মধ্যে বোর্ডের সার্টিফিকেটের জন্য আবেদন করতে হবে।
সভায় মন্ত্রীবর্গ ও সংশ্লিষ্ট প্রতিমন্ত্রীগণ ও সংশ্লিষ্ট সচিবগণ এ সময় উপস্থিত ছিলেন।