ঢাকা, বুধবার, ফেব্রুয়ারী ২১, ২০১৮

সংবাদ শিরোনাম 

জাতীয় সংবাদ : একুশের প্রথম প্রহরে ভাষা শহীদদের প্রতি রাষ্ট্রপতি ও প্রধানমন্ত্রীর গভীর শ্রদ্ধা নিবেদন   |   প্রধানমন্ত্রী : রোহিঙ্গা সংকট অবসানে প্রধানমন্ত্রী মিয়ানমারের ওপর ভারতের চাপ প্রয়োগ কামনা করেছেন   |    জাতীয় সংবাদ : স্বাধীনতা পুরস্কারের জন্য ১৬ জন মনোনীত * ২১ আগস্ট গ্রেনেড হামলা মামলায় আসামী পক্ষের যুক্তিতর্ক উপস্থাপন অব্যাহত * রাজধানীসহ সারাদেশে র‌্যাবের নিরাপত্তা জোরদার   |   রাষ্ট্রপতি : পিএসসির প্রতি জনগণের আস্থা অর্জনে কাজ করতে রাষ্ট্রপতির আহ্বান * দুটি বিলে রাষ্ট্রপতির সম্মতি * ভাষা ও সংস্কৃতি রক্ষায় অমর একুশের চেতনা অনুপ্রেরণার অবিরাম উৎস : রাষ্ট্রপতি   |   বিনোদন ও শিল্পকলা : ওবায়দুল কাদেরের বই মাটি ও মানুষের কথা মেলায় এসেছে *সাহিত্য, প্রকাশনা ও পাঠক সৃষ্টিতে অমর একুশে গ্রন্থমেলার অবদান অনন্য : লেখকবৃন্দ   |    জাতীয় সংবাদ : আদালতের রায়ে নির্বাচনের যোগ্যতা হারালে কিছুই করার নেই : ওবায়দুল কাদের * কাল মহান একুশে ফেব্রুয়ারি * গৌরীপুরে বাসের ধাক্কায় অটোরিকশার ৪ যাত্রী নিহত * বঙ্গবন্ধু যেভাবে সর্বস্তরে বাংলা ভাষা চালুর পরিকল্পনা করেছিলেন   |   খেলাধুলার সংবাদ : আইসিসি ওয়ানডে বোলিং র‌্যাংকিংয়ে যৌথভাবে শীর্ষে রশিদ-বুমরাহ *ফিলিস্তিনে ফিফা বিশ্বকাপ ট্রফি *রশীদ খানের বোলিংয়ে আবারো জিম্বাবুয়েকে হারিয়েছে আফগানিস্তান   |   প্রধানমন্ত্রী : ২১ বিশিষ্ট নাগরিককে প্রধানমন্ত্রীর একুশে পদক প্রদান * আমাদের ঐতিহ্য-সংস্কৃতিকে যথাযথ মর্যাদা দিতে হবে : প্রধানমন্ত্রী * একুশের চেতনা ও মুক্তিযুদ্ধের মূল্যবোধকে ধারণ করে সরকার নিরলসভাবে কাজ করে যাচ্ছে : প্রধানমন্ত্রী   |   আবহাওয়া : রাত এবং দিনের তাপমাত্রা সামান্য বৃদ্ধি পেতে পারে   |    বিভাগীয় সংবাদ : চুয়াডাঙ্গা সাহিত্য সম্মাননা পদক পাচ্ছেন ইবি শিক্ষক ড. রবিউল *বিজয় সরকারের ১১৬তম জন্মজয়ন্তী উপলক্ষে তিন দিনব্যাপী উৎসব শুরু   |    আন্তর্জাতিক সংবাদ : জেরুজালেম প্রশ্নে যুক্তরাষ্ট্রের সিদ্ধান্তের প্রতিবাদ জানাতে জাতিসংঘে যাচ্ছেন ফিলিস্তিনি নেতা * ফিলিপাইনে ডায়রিয়ায় ১০ জনের মৃত্যু * সিরিয়ায় বিদ্রোহী নিয়ন্ত্রিত এলাকায় বিমান হামলা : ১শ বেসামরিক নাগরিক নিহত   |   

রোহিঙ্গাদের সহায়তা দেয়ায় বাংলাদেশের প্রশংসায় ইউএনএইচসিআর প্রধান

ঢাকা, ১৫ ফেব্রুয়ারি, ২০১৮ (বাসস) : কক্সবাজারের কুতুপালং-এ রোহিঙ্গাদের আশ্রয়, সুরক্ষা ও সহায়তা প্রদান করায় বাংলাদেশের প্রশংসা করেছেন জাতিসংঘের শরণার্থী বিষয়ক সংস্থা ইউএনএইচসিআর-এর হাইকমিশনার ফিলিপ্পো গ্রান্ডি। কুতুপালং এখন বিশ্বের সবচেয়ে বড় শরণার্থী শিবির।
মঙ্গলবার জাতিসংঘ নিরাপত্তা পরিষদে গ্রান্ডি বলেন, বাংলাদেশ সরকার উচ্চ দক্ষতাসম্পন্ন জাতীয় ও স্থানীয় সংস্থা এবং জাতিসংঘ ও অন্যান্য মানবাধিকার সংস্থাগুলোকে নিয়ে এবং দাতা সংস্থাসমূহের সহায়তায় এ সমস্যা সমাধানে ব্যাপক কাজ করেছে। যদিও এখনো অনেক শরণার্থী সেখানে গাদাগাদি করে বসবাস এবং অনিশ্চিত জীবনের মধ্যে অবস্থান করছে।
ইউএনএইচসিআর-এর এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়েছে, গ্রান্ডি বলেছেন, বাংলাদেশ সরকারের এ ব্যাপারে বড় ধরনের জরুরি প্রস্তুতি রয়েছে, কিন্তু যে কোনো বিপর্যয় এড়াতে আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়ের সমর্থন অবশ্যই প্রয়োজন। ইউএনএইচসিআর-এর এই শীর্ষ কর্মকর্তা বলেন, মিয়ানমারের শত সহ্র রোহিঙ্গাদের নিরাপদে বাড়ি ফেরার অধিকারের বিষয়টি এখন মূল পরিকল্পনায় নিয়ে আসতে হবে।
গত বছরের ২৫ আগস্ট থেকে ৬ লাখ ৮৮ হাজারেরও বেশি রোহিঙ্গা মিয়ানমার থেকে বাংলাদেশে পালিয়ে আসে। মিয়ানমারের সেনাবাহিনীর নৃশংস সহিংসতার কারণে তারা পালাতে বাধ্য হয়, যার ফলে দশক ধরে রোহিঙ্গারা মাতৃভূমি ছেড়ে এভাবে গৃহহারা হচ্ছে।
নিরাপত্তা পরিষদে দেওয়া এক ভিডিও ভাষণে গ্রান্ডি বলেন, এই সংকটের উৎপত্তি হয়েছে মিয়ানমারে এবং এ সংকটের সমাধানের পথ বের করার জন্য অবশ্যই একটি বিশুদ্ধ অনুসন্ধান প্রক্রিয়া চালাতে হবে। তিনি বলেন, এই সমস্যার সমাধানের মূলে থাকবে স্বেচ্ছা ও নিরাপদে, মর্যাদাপূর্ণ অবস্থায় তাদের বাড়িতে ফেরা।
গত আগস্ট থেকে এই সংকটের সূচনা হয়, যখন মিয়ানমারের উত্তরাঞ্চল রাখাইন রাজ্যে রোহিঙ্গাদের ওপর মিয়ানমারের সেনাবাহিনী সহিংসতা চালায়। ওই সময় হাজার হাজার শিশু, নারী-পুরুষ জীবনের নিরাপত্তায় সীমান্ত অতিক্রম করে বাংলাদেশে পালিয়ে আসে।
প্রায় ছয় মাস পর হঠাৎ করেই রোহিঙ্গাদের পালিয়ে আসা কমে যায় উল্লেখ করে গ্রান্ডি বলেন, কিন্তু এখনো সীমান্ত অতিক্রম করে কিছু কিছু রোহিঙ্গা আসছে। তিনি সতর্ক করে দেন যে, স্বেচ্ছা প্রত্যাবাসনের ব্যাপারে মিয়ানমারের অবস্থা এখনও সহায়ক নয়।

সম্পর্কিত সংবাদ