ঢাকা, শনিবার, মে ২৬, ২০১৮

সংবাদ শিরোনাম 

প্রধানমন্ত্রী : ভারতীয় বিনিয়োগকে বাংলাদেশ স্বাগত জানায় : প্রধানমন্ত্রী * প্রধানমন্ত্রীর রবীন্দ্রনাথের স্মৃতি বিজড়িত ঠাকুরবাড়ি পরিদর্শন   |   রাষ্ট্রপতি : নজরুলের আদর্শে অসাম্প্রদায়িক সমাজ গঠনের আহ্বান রাষ্ট্রপতির   |    জাতীয় সংবাদ : বাংলাদেশ-ভারত সম্পর্ক দৃঢ় ও অব্যাহত থাকবে : মমতা * বাংলাদেশ ভবন উভয় দেশের সাংস্কৃতিক বিনিময়ের প্রতীক : মোদি * মাদকের ডন বা গডফাদার যে দলের হোক না কেউই ছাড় পাবে না : ওবায়দুল কাদের * ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে যথাযোগ্য মর্যাদায় জাতীয় কবির জন্মবার্ষিকী উদযাপিত   |   প্রধানমন্ত্রী : ঢাকা-দিল্লী সহযোগিতা ভবিষ্যতেও অব্যাহত থাকবে : প্রধানমন্ত্রী * শান্তি নিকেতনের সমাবর্তনে প্রধানমন্ত্রী * শেখ হাসিনা-মোদি বৈঠক অনুষ্ঠিত   |    বিভাগীয় সংবাদ : খাদ্য সহায়তা পাচ্ছেন রাঙ্গামাটির সাড়ে ১৯ হাজার জেলে *চট্টগ্রামে সড়ক দুর্ঘটনায় পিকআপভ্যান চালকসহ নিহত ২   |    আন্তর্জাতিক সংবাদ : নাজিব রাজাকের বাসভবন থেকে ৩০ মিলিয়ন মার্কিন ডলার উদ্ধার * লিবিয়ার বেনগাজিতে গাড়ি বোমা হামলায় ৭ জন নিহত   |   

খুব শিগগিরই ডিজিটাল রেজিস্ট্রেশন পদ্ধতি চালু করা হবে : আইনমন্ত্রী

ঢাকা, ২ ফেব্রুয়ারি ২০১৮ (বাসস) : আইন, বিচার ও সংসদ বিষয়ক মন্ত্রী আনিসুল হক বলেছেন, খুব শিগগিরই ডিজিটাল রেজিস্ট্রেশন পদ্ধতি চালু করা হবে।
আজ বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলন কেন্দ্রে বাংলাদেশ রেজিস্ট্রেশন সার্ভিস এসোসিয়েশনের (বিআরএসএ) বার্ষিক সাধারণ সভায় প্রধান অতিথির বক্তৃতায় তিনি এসব কথা বলেন।
আনিসুল হক বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ২০১১ সালে নিবন্ধন পরিদপ্তরকে অধিদপ্তরে উন্নীত করার ব্যাপারে নীতিগতভাবে সম্মত হওয়ার পরও তা আমলাতান্ত্রিক জটিলতায় বিলম্বিত হয় এবং চলতি বছরের ২ জানুয়ারি প্রতিষ্ঠানটিকে অধিদপ্তরে উন্নীত করা হয়।
তিনি বলেন, নিবন্ধন পরিদপ্তর অধিদপ্তরে উন্নীত হওয়ায় নিবন্ধন কর্মকর্তাদের দায়িত্ব ও কর্তব্যসহ জনগণকে সেবা দেয়ার সুযোগ বেড়ে গেছে। তিনি জনগণকে উন্নত সেবা দিয়ে তাদের মন জয় করার জন্য নিবন্ধন কর্মকর্তাদের প্রতি আহবান জানান।
তিনি বলেন, নিবন্ধন অধিদপ্তরের কর্মকর্তারা যে কাজ করেন তার যথাযথ মর্যাদা আগে কখনই দেওয়া হয়নি।
প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সরকার বাংলাদেশের মর্যাদা বাড়াতে চায় একথা স্মরণ করিয়ে দিয়ে মন্ত্রী বলেন, বাংলাদেশের মর্যাদা বাড়াতে হলে প্রয়োজন বাংলাদেশের সকল নাগরিকের মর্যাদা বাড়ানো এবং নিবন্ধন অধিদপ্তরের কর্মকর্তারা সেই নাগরিকদের মধ্যে অন্যতম।
সাব-রেজিস্ট্র অফিসগুলোকে সার্বক্ষণিক মনিটরিং করার জন্য আগামী পহেলা বৈশাখ-এর আগেই জেলা রেজিস্ট্রারদের গাড়ি বরাদ্দ দেওয়া হবে বলে তিনি উল্লেখ করেন।
আইনমন্ত্রী বলেন, নাগরিক সুবিধা বাড়াতে সরকার জেলা ও উপজেলা পর্যায়ে আধুনিক সুযোগ-সুবিধা সম্বলিত রেজিস্ট্রি ও সাব-রেজিস্ট্রি অফিসভবন নির্মাণ করার জন্য প্রকল্প হাতে নিয়েছে এবং এ প্রকল্প বাস্তবায়নাধীন রয়েছে।
বিআরএসএ-এর সভাপতি দ্বীপক কুমার সরকারের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে আইন ও বিচার বিভাগের সচিব আবু সালেহ শেখ মো. জহিরুল হক, নিবন্ধন পরিদপ্তরের মহাপরিদর্শক খান মো. আব্দুল মান্নান এবং বিআরএসএ-এর মহাসচিব শেখ কাওসার আহমেদ বক্তৃতা করেন।

সম্পর্কিত সংবাদ