ঢাকা, রবিবার, জানুয়ারী ২১, ২০১৮

সংবাদ শিরোনাম 

জাতীয় সংবাদ : আখেরি মোনাজাতের মধ্য দিয়ে দ্বিতীয় পর্বের বিশ্ব ইজতেমা সমাপ্ত   |    আন্তর্জাতিক সংবাদ : চিলিতে ৬ দশমিক ৩ মাত্রার ভূমিকম্প * কাবুলে হোটেলে হামলায় নিহত ৫ : আফগান গোয়েন্দা সংস্থা *যুক্তরাষ্ট্রের ফেডারেল সরকারের অর্থায়নে সোমবার ভোট *   |   খেলাধুলার সংবাদ : নেইমারকে নিয়ে জিদানের আশাবাদ * হ্যাজার্ডের দুই গোলে চেলসির জয় * আইপিএল নিলামে অংশ নিবেন ৫৭৮ জন খেলোয়াড়   |   

প্রধানমন্ত্রীর সফরে ঢাকা-নমপেন সম্পর্কে নতুন মাত্রা পেয়েছে

নমপেন, ৪ ডিসেম্বর, ২০১৭ (বাসস) : প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার কম্বোডিয়ায় সফল সফরের পর বাংলাদেশ ও কম্বোডিয়ার মধ্যকার সম্পর্ক ভিন্ন মাত্রা পেয়েছে এবং যা আগামী দিনে দ্বিপক্ষীয় ব্যবসা-বাণিজ্যের সম্প্রসারণে নতুন দিগন্তের উন্মেষ ঘটিয়েছে।
দুদেশের দ্বিপক্ষীয় বৈঠকের পর পররাষ্ট্র সচিব মো. শহিদুল হক এক ব্রিফিংয়ে সাংবাদিকদের একথা বলেন। প্রধানমন্ত্রীর প্রেস সচিব ইহসানুল করিম ব্রিফিংয়ে উপস্থিত ছিলেন।
আজ পিস প্যালেসে অনুষ্ঠিত দুদেশের আনুষ্ঠানিক বৈঠকের ফলাফল সম্পর্কে পররাষ্ট্র সচিব বলেন, উষ্ণ ও সৌহার্দপূর্ণ পরিবেশে অনুষ্ঠিত এই বৈঠকে দ্বিপক্ষীয় অনেক বিষয়ে ব্যাপক আলোচনা হয়েছে।
প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বাংলাদেশ পক্ষ এবং কম্বোডিয়ার প্রধানমন্ত্রী হুন সেন কম্বোডিয়া পক্ষের নেতৃত্ব দেন।
বৈঠকের শেষ পর্যায়ে হুন সেন আবেগপূর্ণ কন্ঠে শেখ হাসিনাকে তাঁর বোন হিসেবে সম্বোধন করেন। এর জবাবে শেখ হাসিনাও হুন সেনকে ভাই হিসেবে সম্বোধন করেন। এতে দুদেশের মধ্যকার সম্পর্কের বিশেষ মাত্রা প্রতিফলিত হয়েছে। সচিব বলেন, এই সম্পর্ককে এখন ব্যবসা-বাণিজ্যসহ বিভিন্ন খাতে এগিয়ে নিতে হবে।
শহিদুল হক বলেন, বাণিজ্য বহুমুখীকরণের পাশাপাশি আসিয়ানে নতুন বন্ধুত্ব স্থাপনে বাংলাদেশের প্রয়োজনীয়তার প্রেক্ষাপটে প্রধানমন্ত্রীর কম্বোডিয়া সফর সফল হিসেবে গণ্য হবে। এছাড়া উভয় দেশেই দুদেশের দূতাবাস স্থাপনেরও প্রয়োজনীয়তা রয়েছে।
পররাষ্ট্র সচিব ১৯৭৩ সালে আলজিয়ার্সে ন্যাম শীর্ষ সম্মেলনে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান ও কম্বোডিয়ার প্রয়াত রাজা নরোদম সিহানুকের মধ্যে অনুষ্ঠিত বৈঠকের কথা স্মরণ করেন।
২০১৮ সালের মধ্যে এলডিসি থেকে উত্তরণে বাংলাদেশের প্রয়াসের উল্লেখ করে পররাষ্ট্র সচিব বলেন, কম্বোডিয়া বাংলাদেশের উত্তরণের এই প্রক্রিয়ার থেকে অভিজ্ঞতা নিতে আগ্রহী।
তিনি বলেন, কম্বোডিয়া তার খাদ্য প্রক্রিয়াকরণ শিল্পে বাংলাদেশী ব্যবসায়ীদের বিনিয়োগ করার অনুরোধ জানিয়েছে। একই সঙ্গে বাংলাদেশ থেকে ওষুধ আমদানির বিষয়ে আলোচনা হয়েছে। কম্বোডিয়া বর্তমানে ভারত থেকে অধিকাংশ ওষুধ আমদানি করে।
পররাষ্ট্র সচিব বলেন, আসিয়ানের একটি সদস্য দেশ হিসেবে এই জোটের সঙ্গে কম্বোডিয়ার ভাল সম্পর্ক রয়েছে এবং তাদের অনেক দেশের সঙ্গে এফটিএ রয়েছে।
তিনি বলেন, কম্বোডিয়ায় কৃষি ও ওষুধ শিল্পে বাংলাদেশী ব্যবসায়ীদের খুবই ভাল সম্ভাবনা রয়েছে।

সম্পর্কিত সংবাদ