ঢাকা, বৃহস্পতিবার, জানুয়ারী ১৮, ২০১৮

সংবাদ শিরোনাম 

আন্তর্জাতিক সংবাদ : নির্ধারিত সময়ে কম্বোডিয়ার নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে : কম্বোডিয়ার প্রধানমন্ত্রী   |   

৯৯ শতাংশের মালিক হয়েও শরিকদের কদর দিয়ে ১৪ দল-মহাজোট করেছেন শেখ হাসিনা : ইনু

ঢাকা, ৯ নভেম্বর, ২০১৭ (বাসস) : তথ্যমন্ত্রী হাসানুল হক ইনু বলেছেন, শেখ হাসিনা মহাজোটের ৯৯ শতাংশের মালিক হয়েও ১ শতাংশের সমতুল্য শরিকদের কদর-মর্যাদা দিয়ে ১৪ দল ও মহাজোট গড়ে তুলেছেন।
শেখ হাসিনার এই সিদ্ধান্তকে তাঁর সময়োপযোগী রাষ্ট্রনায়কোচিত প্রজ্ঞার পরিচয় হিসেবে অভিহিত করে ইনু বলেন, সে জন্যই তিনি (শেখ হাসিনা) রাজাকার-জঙ্গি-বিএনপির কাছ থেকে ২০০৮ সালে দেশ উদ্ধার করতে সফল হন এবং এখনও সফলতার সাথে দেশ পরিচালনা করছেন।
তথ্যমন্ত্রী আজ বৃহস্পতিবার দুপুরে সচিবালয়ে তার কার্যালয়ে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে এ কথা বলেন।
গত বুধবার তথ্যমন্ত্রী ও জাসদ সভাপতি তার নির্বাচনী এলাকাস্থ মিরপুর উপজেলায় ২০ হাজারেরও অধিক জনতার উপস্থিতিতে এক সমাবেশে মহাজোটের ঐক্যের গুরুত্ব ও ঐক্যবিরোধী অপপ্রয়াসের বিরুদ্ধে সতর্কবাণী তুলে ধরে যে বক্তব্য দেন, সে বিষয়ে আজ সচিবালয়ে মতবিনিময়কালে তিনি সাংবাদিকদের বিভিন্ন প্রশ্নের উত্তর দেন।
মহাজোটের শরিক সকল দলের অতীত ইতিহাস জেনে-বুঝেই প্রধানমন্ত্রী ঐক্য গড়েছেন উল্লেখ করে তথ্যমন্ত্রী বলেন, এ ঐক্যই জঙ্গি দমনে সাফল্য এনে দিয়েছে, উন্নয়নের ধারাকে এগিয়ে নিয়ে চলেছে। দুঃখের বিষয় কিছু নেতা-নেত্রী ঐক্যের শরিকদের তুচ্ছ-তাচ্ছিল্য, কটাক্ষ করেন।
তিনি বলেন, সকলকে মনে রাখতে হবে খালেদা জিয়া এখনও চক্রান্ত ছাড়েননি। তাই জঙ্গি-রাজাকার-জামাতের বিরুদ্ধে ঐক্যে শামিল শরিকদের চোখের মণির মতোই আগলে রাখতে হবে, পারস্পরিক শ্রদ্ধা বজায় রাখতে হবে।
ইনু বলেন, যেহেতু বিএনপি-খালেদাচক্র এখনো চক্রান্ত চালাচ্ছে, রাজাকার-জঙ্গি ত্যাগ করেনি, তাই বিপদ এখনো কাটেনি। সেজন্যই মহাজোটের এই ঐক্য ক্ষতিগ্রস্ত হলে বাংলাদেশ রক্তাক্ত আফগানিস্তানে পরিণত হবে।
স্বাধীনতা অর্জনকে কঠিন এবং স্বাধীনতা অক্ষুণ রাখাকে আরো কঠিন বর্ণনা করে ইনু বলেন, ঠিক তেমনই জঙ্গিদমন একটি বড় চ্যালেঞ্জ, কিন্তু দেশকে জঙ্গিমুক্ত রাখা আরো বড় চ্যালেঞ্জ। বাংলাদেশকে স্থায়ীভাবে জঙ্গিমুক্ত নিরাপদ রাখতে প্রয়োজনে স্বাধীনতার স্বপক্ষের শক্তিকে হাজার বছরের জন্য ঐক্য করতে হবে।

সম্পর্কিত সংবাদ