ঢাকা, বুধবার, ডিসেম্বর ১৩, ২০১৭

সংবাদ শিরোনাম 

খেলাধুলার সংবাদ : গেইল ঝড়ে ঢাকাকে হারিয়ে বিপিএলের শিরোপা জিতলো মাশরাফির রংপুর   |    জাতীয় সংবাদ : শেখ হাসিনার পাঁচ দফাই রোহিঙ্গা সমস্যা সমাধানের কার্যকর উপায়   |    জাতীয় সংবাদ : জঙ্গি আস্তানা বর্জনের আহবান তথ্যমন্ত্রীর * মিয়ানমারের ওয়ার্কিং গ্রুপ আগামী ১৯ ডিসেম্বর ঢাকা সফরে আসছে * মধ্যম আয়ের দেশে পরিণত হতে প্রযুক্তির সর্বোচ্চ ব্যবহার নিশ্চিত করতে হবে : শিরীন শারমিন চৌধুরী    |   প্রধানমন্ত্রী : রোহিঙ্গাদের আগমনে পরিবেশের ওপর মারাত্মক ক্ষতিকর প্রভাব পড়েছে : প্রধানমন্ত্রী * অর্থনৈতিক সম্পর্ক জোরদারে ঢাকা-প্যারিস যৌথ কমিশন গঠনে ঐকমত্য * প্রধানমন্ত্রী আজ ওয়ান প্লানেট শীর্ষ সম্মেলনে যোগ দিচ্ছেন   |   রাষ্ট্রপতি : জেরুজালেম বিষয়ে ওআইসির বিশেষ শীর্ষ সম্মেলনে যোগ দিতে ইস্তাম্বুুলে পৌঁছেছেন রাষ্ট্রপতি * রাষ্ট্রপতির তোপকাপি জাদুঘর ও ব্লু মসজিদ পরিদর্শন   |    জাতীয় সংবাদ : জরুরি সেবা ৯৯৯র উদ্বোধন করলেন জয় * নিউইয়র্কে হামলার নিন্দা জানিয়েছে বাংলাদেশ * দেশে শস্য বহুমুখীকরণে উল্লেখযোগ্য অগ্রগতি হয়েছে : কৃষি বিশেষজ্ঞগণ * রোহিঙ্গা শিশুদের মাঝে ডিপথেরিয়া ও অন্যান্য রোগ প্রতিরোধে টিকা অভিযান শুরু   |   খেলাধুলার সংবাদ : পাকিস্তান অংশগ্রহণ নিশ্চিত করায় এশিয়া কাপ আয়োজনে ভারতের অস্বীকৃতি * ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে ওয়ানডেতে সিনিয়র খেলোয়াড়দের বিশ্রাম দিয়েছে নিউজিল্যান্ড * আফ্রিকান বর্ষসেরা খেলোয়াড় মনোনীত হয়েছেন সালাহ   |   শিক্ষা : ঢাবি অধিভুক্ত সাত কলেজের ভর্তি পরীক্ষার ফলাফল প্রকাশ   |   আবহাওয়া : সারাদেশে রাতের তাপমাত্রা ১ থেকে ৩ ডিগ্রি সেলসিয়াস হ্রাস পেতে পারে    |    বিভাগীয় সংবাদ : হবিগঞ্জে ট্রাক-পিকআপ সংঘর্ষে নিহত ২ *আখাউড়া স্থলবন্দরে ছুটির দিনেও ব্যাংক বুথ খোলা থাকবে   |    জাতীয় সংবাদ : জাতিসংঘে বাংলাদেশের শান্তির সংস্কৃতি রেজুলেশন গৃহীত * বিচারকদের আচরণ বিধির গেজেট করায় সুপ্রিম কোর্টের ক্ষমতা ক্ষুণ্ন করা হয়নি : আইনমন্ত্রী * তৃণমূল পর্যায়ের সুপ্ত প্রতিভার বিকাশ ঘটাতে পারলে দেশ অনেক দূর এগিয়ে যাবে : স্পিকার   |    আন্তর্জাতিক সংবাদ : ট্রাম্পের জেরুজালেম পদক্ষেপের প্রতিক্রিয়ায় মধ্যপ্রাচ্যে বিক্ষোভের পঞ্চম দিন * গাজায় ইসরাইলি বাহিনীর ট্যাঙ্ক ও বিমান হামলা * আফগানিস্তানে গাড়ি দুর্ঘটনায় মার্কিন সৈন্য নিহত   |   

জাতি স‌ত্তার বিকাশে সঠিক ইতিহাস চর্চা করুন : তথ্যমন্ত্রী

ঢাকা, ১৭ ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ (বাসস) : তথ্যমন্ত্রী হাসানুল হক ইনু জাতি স‌ত্তার বিকাশে সঠিক ইতিহাস চর্চার প্রয়োজনীয়তার ওপর গুরুত্ব আরোপ করেছেন।
তিনি বলেছেন, একাত্তরের গণহত্যা, বিভিন্ন জাতিসত্বার ওপর নিপীড়ন এবং সন্ত্রাস সৃষ্টি ও তা ছড়িয়ে দেওয়ার বিষয়টি পাকিস্তান স্বীকার করুক আর না করুক ইতিহাসে তাদের অপকীর্তির কথা লিখা থাকবেই। কারণ অপরাধী যতই মিথ্যাচারে লিপ্ত হোক না কেন, কখনোই ইতিহাসে তাদের ক্ষমা নেই।
তথ্যমন্ত্রী শুক্রবার রাজধানীর ধানমন্ডিস্থ জাতীয় শিক্ষা ব্যবস্থাপনা একাডেমি (নায়েম) মিলনায়তনে ইতিহাস ও ঐতিহ্য বিষয়ক ত্রয়োদশ আন্তর্জাতিক সম্মেলনে প্রধান অতিথির বক্তৃতায় এ সব কথা বলেন।
ইতিহাস একাডেমি, ঢাকার উদ্যোগে আয়োজিত এ সম্মেলনে সভাপতিত্ব করেন সংস্থার সহ-সভাপতি অধ্যাপক ড. শরীফ উদ্দিন আহমেদ।
ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ইতিহাসের অধ্যাপক ড. মুনতাসীর মামুন অনুষ্ঠানে মূল প্রবন্ধ উপস্থাপন করেন। নায়েমের মহাপরিচালক অধ্যাপক মোঃ হামিদুল হক অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি ছিলেন।
তথ্যমন্ত্রী বলেন, চার হাজার বছরের ইতিহাসসমৃদ্ধ এদেশের মানুষ সকল বাধা পায়ে দলে জঙ্গিমুক্ত, বৈষম্যহীন, সবুজ ও টেকসই এবং ডিজিটাল বাংলাদেশের সমৃদ্ধ ভবিষ্যৎ গড়বেই ।
দেশের ইতিহাস সম্পর্কে আলোকপাত করতে গিয়ে মুক্তিযোদ্ধা ইনু বলেন, আধুনিক বাঙালি জাতীয়তাবাদের জনক বঙ্গবন্ধুর নেতৃত্বে স্বাধীনতা সংগ্রামে বাঙালি যে বীরত্ব ও ত্যাগ দেখিয়েছে, তা বিশ্বের বুকে বীরের জাতি হিসেবে বাঙালীকে প্রতিষ্ঠিত করেছে।
তিনি বলেন,পদ্মা-মেঘনা-যমুনার পানি আজো শহীদের রক্তে রক্তাক্ত, মাটিতে এখনো আবাল-বৃদ্ধ-বণিতার রক্তের দাগ। এদেশের প্রতিটি কণা আক্রমণকারী পশুর বিরুদ্ধে আক্রান্ত মানুষের মাথা নত না করার সাক্ষী।
তথ্যমন্ত্রী বলেন, বঙ্গবন্ধুর হত্যাকারী, রাজাকার, সামরিক ও সাম্প্রদায়িক চক্র পঁচাত্তর সাল থেকে যে অন্ধকার যুগের সূচনা করেছিল, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা তা থেকে জাতিকে আলোর পথে নিয়ে চলেছেন; এই পথে জঙ্গি-সন্ত্রাসের কোনো স্থান নেই। জিয়া এবং বিএনপি সাম্প্রদায়িক সন্ত্রাসে মদদ না দিলে জঙ্গিবাদের এতো উৎপাত হতো না, বহু আগেই জঙ্গিরা নির্মূল হতো, শান্তি প্রতিষ্ঠিত হতো।

সম্পর্কিত সংবাদ