ঢাকা, শনিবার, এপ্রিল ২১, ২০১৮

সংবাদ শিরোনাম 

জাতীয় সংবাদ : সাইবার অপরাধের বিরুদ্ধে কমনওয়েলথের দৃঢ় অবস্থান   |    জাতীয় সংবাদ : প্রধানমন্ত্রী দেশে ফেরার পরই মহার্ঘ্য ভাতা সম্পর্কিত প্রজ্ঞাপন : ইনু * বিসিএসআইআর মডেল রাস্তা নির্মাণে জাপানের টুইস্টার টেকনোলজি ব্যবহার করবে * জাতিসংঘের ৫৪টি শান্তিরক্ষা মিশনে বাংলাদেশের ১ লাখ ৫৬ হাজার ৩২৮ জন শান্তিরক্ষীর অংশ গ্রহণ   |   খেলাধুলার সংবাদ : ইংল্যান্ডের নির্বাচক হিসেবে নিয়োগ পেলেন সাবেক ব্যাটসম্যান স্মিথ *ওয়েস্ট ইন্ডিজ, অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে দিবা-রাত্রির টেস্ট খেলবে না ভারত * ওয়েঙ্গারের উত্তরসূরী হিসেবে পাঁচজনকে বিবেচনা করা হচ্ছে * ওয়াটসনের সেঞ্চুরিতে জয়ের ধারায় ফিরলো চেন্নাই   |   আবহাওয়া : দেশের কোথাও কোথাও বিক্ষিপ্তভাবে শিলাবৃষ্টি হতে পারে   |    বিভাগীয় সংবাদ : মেহেরপুরের মোমিনুলের আর্সেনিকমুক্ত প্লান্ট আবিস্কার *পিরোজপুর আধুনিক কারাগারের নির্মাণ কাজ এগিয়ে চলছে    |    আন্তর্জাতিক সংবাদ : উ. কোরিয়ার প্রতিশ্রুতিতে সন্তুষ্ট নয় জাপান *সিনেট প্যানেলে প্রত্যাখ্যাত হতে পারেন পম্পেও * অশালীন ভিডিও : সৌদি আরবে বন্ধ করে দেয়া হলো নারী শরীরচর্চা কেন্দ্র *পারমাণবিক অস্ত্র নিরস্ত্রীকরণ প্রশ্নে ইতিবাচক পদক্ষেপ উ.কোরিয়ার   |   

এবার অস্ট্রেলিয়ার লক্ষ্য ইংল্যান্ড জয়

সিডনি, ২১ ডিসেম্বর, ২০১৭ (বাসস) : প্রথম তিন ম্যাচ শেষেই শিরোপা পুনরুদ্ধারের পর এবার অস্ট্রেলিয়ার লক্ষ্য ইংল্যান্ডের মাটিতে এ্যাশেজ জয়।
অস্ট্রেলিয়া ক্রিকেট দলের কোচ ড্যারেন লেহম্যান স্পষ্ট করেই বলেছেন, তাদের লক্ষ্য এবার ইংল্যান্ডের মাটিতে সিরিজ জয় করা।
পার্থে ইনিংস ও ৪১ রানে তৃতীয় টেস্ট জিতে ইংল্যান্ডের বিপক্ষে ৩-০ ব্যবধানে সিরিজ নিশ্চিত করার পাশপাশি এ্যাশেজ শিরোপা পুনরুদ্ধার করে স্বাগতিক অস্ট্রেলিয়া। তবে দুই বছর বাকি থাকলেও অস্ট্রেলিয়া লক্ষ্য নির্ধারন করেছে ইংল্যান্ডে অনুষ্ঠিতব্য পরবর্তী এ্যাশেজ সিরিজ জয়। যা অসিদের জন্য মোটেই সহজ নয়। কেননা সর্বশেষ ২০০১ সালে ইংল্যান্ডের মাটিতে একটি এ্যাশেজ সিরিজ জিতেছিল অস্ট্রেলিয়া।
নিজ মাঠে আরেকটি এ্যাশেজ শিরোপা জিতলেও ইংল্যান্ডের মাটিতে জয় পাওয়াটা কঠিন হবে মনে করলেও লেহম্যান বলেন, অস্ট্রেলিয়ার মেধাবী তারুণ্য নির্ভর দলটি আরো ভাল অবস্থানে থাকবে।
লেহম্যান বলেন, আমি নিশ্চিত এই গ্রুপটি সমন্বিত ভাবে সেটা করতে পারবে। তারা বয়সে যথেষ্ট তরুণ এখনো বেশ কয়েক বছর একত্রে খেলতে পারবে এবং গত এক বছর আগে আমাদের জন্য এটাই ছিল গুরুত্বপূর্ণ বিষয়। অবশ্য এ সময়ে বেশ কয়েকজন তরুণ খেলোয়াড়কে আমরা পরিবর্তন করেছি।
তিনি আরো বলেন, তারা (ইংল্যান্ড) কিছু ভাল তরুণ খেলোয়াড় পেয়েছে। আমরা সঠিক সময়ে তাদেরকে চাপে রাখতে পেরেছি এবং আশা করছি আগামী দুই ম্যাচেও সেটা অব্যাহত রাখতে পারব। তবে এ সকল খেলোয়াড়দের মধ্যে কেউ কেউ আগামী এ্যাশেজে খেলবে। সুতরাং আমাদের পরিকল্পনার উন্নতি ঘটাতে হবে এবং আরো ভাল হতে হবে।
ইতোমধ্যেই সিরিজের ফয়সালা হয়ে যাওযায় বক্সিং ডে টেস্ট হবে মূল্যহীন। চাপ না থাকায় তার দল কেমন খেলবে সে বিষয়ে নিশ্চিত নন লেহম্যান। তিনি বলেন, আমরা কিছু ব্র্যান্ড ক্রিকেট খেলবো। তবে অবশ্যই আমাদের চাপ কম থাকবে। এমন অবস্থায় ছেলেরা কেমন খেলে সেটা দেখাটা হবে মজার বিষয়।