ঢাকা, মঙ্গলবার, ডিসেম্বর ১২, ২০১৭

সংবাদ শিরোনাম 

প্রধানমন্ত্রী : ধানমন্ত্রী আজ ওয়ান প্লানেট শীর্ষ সম্মেলনে যোগ দিচ্ছেন   |    বিভাগীয় সংবাদ : জয়পুরহাটে ৯ হাজার ৭০৫ মেট্রিক টন চাল সংগ্রহের লক্ষ্যমাত্রা নির্ধারণ * জয়পুরহাটে ৯ হাজার ৭০৫ মেট্রিক টন চাল সংগ্রহের লক্ষ্যমাত্রা নির্ধারণ * হবিগঞ্জে গ্রেফতার ৩১   |    জাতীয় সংবাদ : জাতীয় জরুরি সেবা ৯৯৯ সার্ভিসের উদ্বোধন আজ   |    আন্তর্জাতিক সংবাদ : ট্রাম্পের জেরুজালেম পদক্ষেপের প্রতিক্রিয়ায় মধ্যপ্রাচ্যে বিক্ষোভের পঞ্চম দিন * গাজায় ইসরাইলি বাহিনীর ট্যাঙ্ক ও বিমান হামলা * আফগানিস্তানে গাড়ি দুর্ঘটনায় মার্কিন সৈন্য নিহত   |   

কুমিল্লার কাছে হেরে বিপিএল শেষ করলো সিলেট

ঢাকা, ৬ ডিসেম্বর, ২০১৭ (বাসস) : পয়েন্ট টেবিলের শীর্ষ দল কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ান্সের কাছে হেরে বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগ (বিপিএল) টুয়েন্টি টুয়েন্টি ক্রিকেটের পঞ্চম আসর শেষ করলো এবারের টুর্নামেন্টে প্রথম তিন ম্যাচ জিতে দুর্দান্ত শুরু করা সিলেট সিক্সার্স। ঢাকায় দ্বিতীয় ও শেষ পর্বে এবং লিগের সর্বশেষ ও টুর্নামেন্টের ৪২তম ম্যাচে কুমিল্লার কাছে ২৫ রানে হারের স্বাদ পায় আগেই আসর থেকে বিদায় নিশ্চিত করা সিলেট সিক্সার্স।
এই জয়ে লিগ পর্ব শেষে অর্থাৎ ১২ ম্যাচে অংশ নিয়ে ৯ জয়ে ১৮ পয়েন্ট নিয়ে টেবিলের শীর্ষে থেকে কোয়ালিফাইয়ার-এ খেলবে কুমিল্লা। সেখানে তাদের প্রতিপক্ষ ঢাকা ডায়নামাইটস। আগামী ৮ ডিসেম্বর দিনের দ্বিতীয় ম্যাচে ঢাকার মুখোমুখি হবে কুমিল্লা। ওই দিন প্রথম ম্যাচে এলিমিনেটর ম্যাচে লড়বে খুলনা টাইটান্স ও রংপুর রাইডার্স। আর ১২ ম্যাচে ৪ জয়ে ৯ পয়েন্ট নিয়ে টেবিলের পঞ্চমস্থানে থেকে আসর শেষ করলো সিলেট।
মিরপুর শেরে বাংলা জাতীয় ক্রিকেট স্টেডিয়ামে প্রথম ব্যাট করতে নেমে ৩৭ রানেই ২ উইকেট হারায় তামিম বিহীন কুমিল্লা। ইংল্যান্ডের জশ বাটলার ৩ রান করে সিলেটের বাঁ-হাতি স্পিনার নাবিল সামাদের শিকার হন। তিন নম্বরে ব্যাট হাতে নেমে প্রথম বলেই ছক্কা মারেন ইমরুল কায়েস। কিন্তু শেষ পর্যন্ত ৯ বলে ৭ রান করে থামেন তিনি।
দুই ব্যাটসম্যানের পতনের পর তৃতীয় উইকেটে জুটি বাধেন লিটন কুমার দাস ও ওয়েস্ট ইন্ডিজের মারলন স্যামুয়েলস। ৬১ বলে ৮৩ রানে যোগ করেন তারা। ৩৬ বলে হাফ-সেঞ্চুরি তুলে ব্যক্তিগত ৬৫ রানে থামেন লিটন। তার ৪৩ বলের ইনিংসে ৬টি চার ও ৩টি ছক্কা ছিলো। হাফ-সেঞ্চুরির স্বাদ নিয়ে ৫৫ রানে থামেন স্যামুয়েলস। তার ৪৩ বলের ইনিংসে ৫টি চার ও ২টি ছক্কা ছিলো।
১৯তম ওভারের প্রথম বলে দলীয় ১৪৫ রানে স্যামুয়েলস বিদায়ের পর কুমিল্লাকে ১৭০ রান পর্যন্ত নিয়ে যান পাকিস্তানের শোয়েব মালিক। শেষদিকে ১টি চার ও ২টি ছক্কায় ১৮ বলে ২৮ রান করেন মালিক।
১৭১ রানের টার্গেটে শুরুটা ভালো হয়নি সিলেটের। দলীয় ৭ রানে নিজের নামের পাশে ৬ রান রেখে ফিরেন পাকিস্তানের মোহাম্মদ রিজওয়ান। এরপর বড় ইনিংস খেলার চেষ্টা করে ব্যর্থ হন ওয়েস্ট ইন্ডিজের আন্দ্রে ফ্লেচার, অধিনায়ক নাসির হোসেন, পাকিস্তানের বাবর আজম ও ইংল্যান্ডের রস হোয়াইটলি। ফ্লেচার ২৫, নাসির ১২, বাবর ২০ ও হোয়াইলি ৬ রান করেন।
দলীয় ৮৩ রানে পঞ্চম উইকেট হারানোর পর কুমিল্লার বোলারদের উপর চড়াও হন সাব্বির রহমান। ৪টি চার ও ১টি ছক্কায় সিলেটের রানের গতি বাড়িয়েছিলেন সাব্বির। কিন্তু ২০ বলে দলের পক্ষে সর্বোচ্চ ৩১ রান করে সাব্বিরের ফিরলে সিলেটের জয়ের আশা শেষ হয়ে যায়। শেষ পর্যন্ত ৭ উইকেটে ১৪৫ রান করতে পারে সিলেট। কুমিল্লার পক্ষে জিম্বাবুয়ের গ্রায়েম ক্রেমার ১৫ রানে ৩ উইকেট নেন।
সংক্ষিপ্ত স্কোর :
কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ান্স : ১৭০/৪, ২০ ওভার (লিটন ৬৫, স্যামুয়েলস ৫৫, নাসির ১/২০)।
সিলেট সিক্সার্স : ১৪৫/৭, ২০ ওভার (সাব্বির ৩১, ফ্লেচার ২৫, ক্রেমার ৩/১৫)।
ফল : কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ান্স ২৫ রানে জয়ী।
ম্যাচ সেরা : লিটন কুমার দাস (কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ান্স)।