ঢাকা, বুধবার, মে ২৪, ২০১৭

সংবাদ শিরোনাম 

আন্তর্জাতিক সংবাদ : ভারতে পুণ্যার্থীবাহী বাস খাদে পড়ে নিহত ২১   |    বিভাগীয় সংবাদ : জয়পুরহাটে ক্ষেতলাল পৌরসভায় আওয়ামী লীগ প্রার্থী সিরাজুলের জয়লাভ   |   

ইব্রার হ্যাট্রিকে এতিয়েনিকে ৩-০ গোলে হারাল ম্যানইউ

ম্যানচেস্টার (ইউকে), ১৭ ফেব্রুয়ারি ২০১৭ (বাসস/এএফপি) : চমক অব্যাহত রেখেছেন ম্যানচেস্টার ইউনইটেডের সুইডিশ তারকা জ্লাটান ইব্রাহিমোভিচ। তার হ্যাট্রিকে ভর করে বৃহস্পতিবার ইউরোপা লীগের প্রথম লেগে সেন্ট এতিয়েনিকে ৩-০ গোলে পরাজিত করেছে ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড। এই ম্যাচের মাধ্যমে ইউনাইটেডের হয়ে চলতি মৌসুমে ২৩ গোলের মালিক বনে গেলেন ইব্রা।
এই জয়ের সুবাদে হোসে মরিনহোর ইংলিশ ক্লাবটি শেষ ষোলতে এক পা দিয়ে রাখল। আগামী বুধবার ক্লাব দুটির ফিরতি লেগের ম্যাচ অনুষ্ঠিত হবে। তবে হলুদ কার্ড পাওয়ায় আগামী ম্যাচে ইউনাইটেডের হয়ে খেলতে পারবেননা এন্ডার হেরেরা। পরপর দুই ম্যাচে হলুদ কার্ড দেখার কারণে স্তাদে জিওফরয়-গুইচার্ডে অনুষ্টিতব্য ফিরতি লেগের ম্যাচে অংশ নিতে পারবেননা তিনি।
এই ম্যাচেই প্রথমবারের মত সেরা একাদশে ফিরে এসেছেন ইউনাইটেডের তারকা ফুটবলার পল পগবা। সেরা একাদশে ফিরেই গোল করার একটি দারুন সুযোগও পেয়ে গিয়েছিলেন তিনি। তবে তার নেয়া হেডের বলটি দুর্ভাগ্যবশত: বারে লেগে ফিরে আসে।
খেলা শেষে বিটি স্পোর্টসকে ইব্রাহিমোভিচ বলেন, আমরা দারুন কতগুলো গোলের সুযোগ সৃস্টি করেছি। নিজেদের মাঠে এরকম ভাল একটি জয় খুবই গুরুত্বপূর্ণ ছিল। ম্যাচটি ভাল হয়েছে। তবে আমার মতে আরো ভাল হতে পারতো।
আমরা জয় পাচ্ছি ঠিকই। কিন্তু খুবই কম সময়ের মধ্যেই সবকিছু পাল্টে যেতে পারে। তাই জয়ের ধারাটা ধরে রাখা খুবই গুরুত্বপূর্ণ। কারণ এটি আমাদের জন্য বেশ দরকারী। এটি পরিবর্তন হয়ে যাবার সম্ভাবনা থাকলেও এই মুহুর্তে ঘরের মাঠের এই জয়ে আমরা খুবই খুশি।
তবে শুরুতেই হোচট খেতে যাচ্ছিল স্বাগতিক ইউনাইটেড। ওল্ড ট্রাফোর্ডের ওই ম্যাচে রক্ষনভাগের বোকামির কারণে স্টিফেন রাফার সফরকারীদের এগিয়ে দেয়ার দারুন একটি সুযোগ পেয়ে গিয়েছিলেন। আনুমানিক ২৫ গজ দূর থেকে তার নেয়া শটের বলটি হেডের সাহায্যে প্রতিহত করেন এন্থনি মার্টিয়াল। এরপর ১৫তম মিনিটে দারুন এক গোলে ইউনাইটেডকে এগিয়ে দেন ইব্রাহিমোভিচ (১-০)। পরবর্তীতে ব্যবধান বাড়ানোর আরো দুটি সহজ সুযোগ হাতছাড়া করে ইউনাইটেড। পগবার দারুন পাসের একটি বলে হুয়ান মাতা ভলি করলে সেটি প্রতিহত করেন রাফার। এরপর মার্টিয়ালের একটি নীচু শটের বলও আটকে দেন এতিয়েনির এই ফুটবলার।
দ্বিতীয়ার্ধের শেষভাগে এসে ইউনাইটেডের হয়ে আরো দুটি গোল করে হ্যাট্রিক পুর্ন করেন পিএসজি ছেড়ে আসা এই স্ট্রাইকার। ৭৫তম মিনিটে নিজের দ্বিতীয় গোলটি আদায় করেন এই সুইডিশ তারকা (২-০)। এর আগে অবশ্য গোল করার দারুন একটি সুযোগ হাতছাড়া করেছেন তিনি। প্রতিপক্ষের বারে লেগে ফিরে আসা বলে তিনি শট নিয়েছিলেন ঠিকই। কিন্তু সেটি গোল বারের উপর দিয়ে বাইরে চলে যায়। শেষ বাঁশি বাজার ২ মিনিট আগে পেনাল্টি থেকে গোল করে হ্যাট্রিক পুর্ন করেন ইব্রাহিমোভিচ (৩-০)।
বৃহস্পতিবার ইউরোপা লীগের অন্য ম্যাচে ক্রাসনোদার ১-০ গোলে ফেনারবেচকে, এফসি কোপেনহেগেন ২-১ গোলে রাজগ্রাদকে, ফিওরেন্টিনা ১-০ গোলে বরুশিয়া মনচেনগ্লাদবেচকে, লিয়ঁ ৪-১ গোলে এজেড আলকামারকে, শাতকার দোনেস্ক ১-০ গোলে সেল্টাভিগোকে, রোস্তেব ৪-০ গোলে স্পার্তা পাগুকে, কাজেন্ট ১-০ গোলে টোটেনহ্যাম হটস্পারকে, অ্যাথলেটিক বিলবাও ৩-২ গোলে এপোয়েল নিকোশিয়াকে, বেসিকতাস ৩-১ গোলে হেপোয়েল বিরকে, শাকলে ৩-০ গোলে পাওক সালোনিকাকে এবং এএস রোমা ৪-০ গোলে ভিলারিয়ালকে পরাজিত করে।