ঢাকা, শুক্রুবার, ফেব্রুয়ারী ২৩, ২০১৮

সংবাদ শিরোনাম 

শিক্ষা : জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের মাস্টার্স শেষপর্ব পরীক্ষা আগামীকাল থেকে শুরু   |    বিভাগীয় সংবাদ : গাজীপুরে ১৪তম স্কাউট সমাবেশের উদ্বোধন * দেশে দারিদ্র্যের হার শতকরা ১২ ভাগে নেমে এসেছে : মন্ত্রিপরিষদ সচিব * মাদারীপুরে সড়ক দুর্ঘটনায় স্বামী-স্ত্রী নিহত   |    জাতীয় সংবাদ : এডিবির প্রেসিডেন্ট আসছেন ২৭ ফেব্রুয়ারি * প্রশ্ন ফাঁস রোধে সকলের সহযোগিতা চাইলেন শিক্ষামন্ত্রী   |   রাষ্ট্রপতি : রোহিঙ্গাদের ফেরাতে সিঙ্গাপুরের সহযোগিতা চাইলেন রাষ্ট্রপতি   |    জাতীয় সংবাদ : এ বছর আরও ১০ হাজার চিকিৎসক নিয়োগ দেওয়া হবে : নাসিম * বিএনপি বিপর্যয়ের মুখে অপ্রাসঙ্গিক কথাবার্তা বলছে : হানিফ * সরকারের ভিত কারো কথায় নড়ে না : ইনু * ময়মনসিংহে বাস খাদে পড়ে ৪ জনের প্রাণহানি, আহত ২০   |   আবহাওয়া : সারাদেশে আবহাওয়া প্রধানত শুষ্ক থাকতে পারে   |   খেলাধুলার সংবাদ : আইসিসির অনুমোদন পেল কানাডার টি-২০ লীগ * কেনিয়া ক্রিকেট দলের অধিনায়ক, কোচ ও বোর্ড সভাপতির পদত্যাগ   |    আন্তর্জাতিক সংবাদ : পদত্যাগ করছেন অস্ট্রেলিয়ার উপপ্রধানমন্ত্রী * আর্জেন্টিনার রুশ দূতাবাস থেকে ৪০০ কিলো কোকেন উদ্ধার * মধ্যপ্রাচ্য শান্তি প্রস্তাব প্রায় প্রস্তুত : জাতিসংঘে মার্কিন দূত   |   

বগুড়া পাসপোর্ট অফিস এক বছরে ১৪ কোটি টাকার রাজস্ব আয় করেছে

বগুড়া, ৯ ফেব্রুয়ারি ২০১৮ (বাসস) : গত এক বছরে ১৪ কোটি সাড়ে ১৪ লাখ টাকা রাজস্ব আয় হয়েছে।
এছাড়া বগুড়া পাসপোর্ট অফিস এখন দালাল মুক্ত। কমে গেছে দালালদের দৌরাত্ম্য। গ্রাহক সেবার মানও বৃদ্ধি পেয়েছে।
পাসপোর্ট অধিদপ্তর বগুড়া আঞ্চলিক কার্যালয়ের সহকারি পরিচালক সাজাহান কবির জানান, সেবার মান বৃদ্ধি পাওয়ায় গত এক বছরে এ কার্যালয় থেকে ৩৭ হাজার ৩৮৪টি পাসপোর্ট ইস্যু করা সম্ভব হয়েছে।
তিনি আরো জানান, এ বছরের জানুয়ারি মাসেই ৪ হাজার ৫২টি পাসপোর্ট গ্রাহকদের হাতে তুলে দেয়া হয়েছে। প্রতিদিন এ কার্যালয়ে প্রায় দুশ আবেদনপত্র জমা পড়ে। বর্তমানে গ্রাহকদের বেশি টাকা খরচ করে দালালদের শরণাপন্ন হতে হয় না। স্বাভাবিক একটি পাসপোর্ট ৩ হাজার ৪৫০ টাকায় ২১ কার্যদিবসের মধ্যে এবং জরুরি পাসপোর্ট ৬ হাজার ৯৫০ টাকায় ৭ কার্যদিবসের মধ্যে পাওয়া যায়।
গত ৩ ফেব্রুয়ার থেকে পাসপোর্ট সেবা সপ্তাহ সেবা শুরু হয়েছে। বগুড়া পাসপোর্ট সেবা সপ্তাহ উপলক্ষে বিশেষ ব্যবস্থা চালু করেছে। অসুস্থ, বৃদ্ধ ও প্রতিবন্ধীদের সেবায় বিশেষ কলিং বেলের ব্যবস্থা করা হয়েছে। যারা কলিংবেল টিপলেই কর্মকর্তা গিয়ে ওই গ্রাহকের নিকট হাজির হয়ে সেবা দিয়ে থাকেন।