ঢাকা, শুক্রুবার, জানুয়ারী ১৯, ২০১৮

সংবাদ শিরোনাম 

শিক্ষা : ঢাবি সিনেটে রেজিস্টার্ড গ্র্যাজুয়েট প্রতিনিধি নির্বাচনে ঢাকা কেন্দ্রের ভোট গ্রহণ আগামীকাল   |    জাতীয় সংবাদ : বিশ্ব ইজতেমার ২য় পর্বের শুরু, তুরাগ তীরে মুসুল্লিদের ঢল * আইভীকে দেখতে হাসপাতালে ওবায়দুল কাদের   |   বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি : ড্রোন প্রযুক্তি ব্যবহারে উড়োজাহাজ তৈরি করেছে গোপালগঞ্জের কিশোর আরমানুল ইসলাম   |    আন্তর্জাতিক সংবাদ : দ.কোরিয়ায় অগ্রবর্তী বাদকদল পাঠাবে উ.কোরিয়া * আফগানিস্তানে সরকারি বাহিনীর অভিযানে ৮ জঙ্গি নিহত * ইরানের পারমাণু চুক্তির শর্ত কঠিন করাই মার্কিন আইনপ্রণেতাদের লক্ষ্য   |   আবহাওয়া : আবহাওয়া শুষ্ক এবং রাত ও দিনের তাপমাত্রা প্রায় অপরিবর্তিত থাকতে পারে   |   খেলাধুলার সংবাদ : শ্রীলংকার বিপক্ষে টস জিতে প্রথমে ব্যাটিং-এ বাংলাদেশ   |   

খাগড়াছড়িতে পাহাড় ধসে নিহত ৩, আহত ১

খাগড়াছড়ি, ১৮ জুন, ২০১৭ (বাসস) : জেলার রামগড় উপজেলার পাতাছড়া বুদংছড়া এলাকায় বসতবাড়ির ওপর পাহাড় ধসে ঘুমন্ত অবস্থায় দুই সহোদরসহ তিনজনের মৃত্যু হয়েছে। আজ ভোর সাড়ে ৬ টায় এই দুর্ঘটনা ঘটে।
নিহতরা হলেন বুদংপাড়ার মো: মোস্তফার ছেলে নুরনবী (১৪) ও হোসেন (১০) এবং বিল্লাল হোসেন নামে একজন আহত হয়েছে।
পারিবারিক ও স্থানীয়সূত্র জানায়, ভোর রাতে প্রবল বর্ষণের সময় বাড়ির পূর্ব পাশের পাহাড় ধসে মাটিচাপা পড়ে ঘুমন্তাবস্থায় দুই সহোদরের মৃত্যু হয়। স্থানীয়রা নিহতদের লাশ উদ্ধার করে। উপজেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে নিহতদের পরিবারকে তাৎক্ষণিক ২০ হাজার টাকা সাহায্য দেয়া হয়েছে।
রামগড় থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) শরিফুল ইসলাম নিহতদের বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।
অন্যদিকে, রোববার সকাল ৮ টায় লক্ষ্মীছড়ির যতীন্দ্র কার্বারী পাড়া এলাকায় পাহাড় ধসে নিপুন চাকমা (৫) নামে এক শিশুর মৃত্যু হয়। সে একই এলাকার দেবব্রত চাকমার মেয়ে।
এদিকে খাগড়াছড়ির জেলা প্রশাসক মো: রাশেদুল ইসলাম জানান, ঝুঁকিপূর্ণ এলাকায় বসবাসকারীদের সরিয়ে আনতে জেলা সদর, মহালছড়ি, মানিকছড়ি ও রামগড়ে ৫টি আশ্রয় কেন্দ্র খোলা হয়েছে। মাইকিং করে ও উপজেলা প্রশাসন ঝুঁকিপূর্ণ বসতবাড়ি সনাক্ত করে তাদের উদ্বুদ্ধ করে আশ্রয় কেন্দ্রে নেয়া হচ্ছে। এখন পর্যন্ত ৮০টির মতো পরিবার আশ্রয় কেন্দ্রে রয়েছে। তাদের খাবার, বিশুদ্ধ খাবার পানি ও নিরাপত্তার জন্য আশ্রয়কেন্দ্র গুলোতে পুলিশ মোতায়ন করা হয়েছে।
এবছর পাহাড় ধস ও প্রবল বর্ষণ অতীতের সকল রেকর্ড ভেঙ্গেছে উল্লেখ করে তিনি ভূ-তাত্ত্বিকদের সমন্বয়ে পাহাড়ের প্রকৃতিগত বৈশিষ্ট্য জরিপ করে নীতিমালা প্রণয়নের প্রস্তাব দেন।